পোষা কুকুর একটানা আটকে রাখলে জরিমানা - বিবিধ - Dainikshiksha

পোষা কুকুর একটানা আটকে রাখলে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাংলাদেশের মন্ত্রিসভা নতুন একটি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে যেটি চূড়ান্তভাবে কার্যকর হলে কুকুরকে চলাফেরার সুযোগ দিতে হবে, একটানা আটকে রাখা  যাবেনা। এই আইনে বলা হয়েছে কুকুরকে চলাফেরার সুযোগ না দিয়ে একটানা ২৪ ঘণ্টা বা তারও বেশি সময় বেঁধে রাখলে জেল জরিমানা ভোগ করতে হবে। অপরাধের জন্য ছয় মাসের জেল হতে পারে।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানিয়েছেন যে, ১৯২০ খ্রিস্টাব্দের পশুর প্রতি নিষ্ঠুরতা  নিরোধ আইনের ভিত্তিতেই এই আইনটি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রত্যেক প্রাণির মালিক বা তত্ত্বাবধানকারীর দায়িত্ব হবে যৌক্তিক কারণ ছাড়া প্রাণির প্রতি মানবিক আচরণ করা। 

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও বলেন, এই আইনের মাধ্যমে বন্যপ্রাণী ছাড়াও পোষা প্রাণি থেকে শুরু করে অন্য যে প্রাণি আছে সবাই বাংলাদেশ রাষ্ট্রের একটি আইনি  অধিকারের মধ্যে চলে এলো।

এর আগে ১৯২০ খ্রিস্টাব্দের আইনটি থাকলেও তার কোনো প্রয়োগ ছিলোনা বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রাকিবুল হক বলেন, বাংলাদেশে ব্যক্তি বিশেষের ইচ্ছের ওপর নির্ভর করে প্রাণী বাসায় বা ব্যক্তির নিয়ন্ত্রণে কেমন থাকবে। তিনি যদি মানবিক হন, সহমর্মী হন তাহলে হয়তো ভালো থাকে। অনেক প্রাণ বিশেষ কুকুর বিড়াল অনেকে শখ করে কিনে থাকেন। পরে দেখা যায় কিছু দিন পর তাকে বাউন্ডারি ওয়ালের সাথে আটকে রাখে।

রাকিবুল হক বলেন, অনেক সময় একটি গরুর সামনে আরেকটি গরুকে জবাই করা হয়। তার মানে হলো জবাইর আগেই একটি গরুকে মানসিকভাবে হত্যা করা হয়। ঘোড়ার গাড়ি ব্রিটিশ আমল থেকে চলছে। সেটি চলছে ইচ্ছামতো। অনেক ঘোড়া নাজুক অবস্থায় আছে সক্ষমতার বাইরে বোঝা বহনের কারণে। হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি নতুন বিষয়। মুরগি ঝুলিয়ে নিয়ে যাওয়া। গরু ছাগল যেভাবে নেয়া হয়।

এখন নতুন আইনটি কার্যকর হলে কোন ব্যক্তি বা সংগঠনকে এগিয়ে আসতে হবে এসব প্রাণির আইনি অধিকার পাওয়ার ক্ষেত্রে। সেজন্য আইনটি কার্যকরের জন্য সচেতনতা তৈরিও গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন তিনি।

জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী - dainik shiksha জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার অপেক্ষায় চাকরিতে প্রবেশের বয়স: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার অপেক্ষায় চাকরিতে প্রবেশের বয়স: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী আরও ৯২ প্রতিষ্ঠানের তথ্য চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় - dainik shiksha আরও ৯২ প্রতিষ্ঠানের তথ্য চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ১৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু শিক্ষকতা ছেড়ে উপজেলা নির্বাচনে শিক্ষক - dainik shiksha শিক্ষকতা ছেড়ে উপজেলা নির্বাচনে শিক্ষক প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সুপারিশপ্রাপ্তদের করণীয় - dainik shiksha প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সুপারিশপ্রাপ্তদের করণীয় স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ২০ ফেব্রুয়ারি - dainik shiksha স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ২০ ফেব্রুয়ারি প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website