প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির শর্ত শিথিলের সুপারিশ - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির শর্ত শিথিলের সুপারিশ

রুম্মান তূর্য |

বেসরকারি স্কুল কলেজ এমপিওভুক্তির শর্ত শিথিল করার সুপারিশ করছে এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংশোধন কমিটি। এমপিওভুক্তি শর্ত হিসেবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থী সংখ্যা ও পাসের হার কমানোর সুপারিশ করা হচ্ছে। আজ বুধবার (১১ মার্চ) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে এমপিও নীতিমালা ও সংশোধন কমিটির পঞ্চম সভা। সভায় এমপিও নীতিমালা সংশোধনে সুপারিশগুলো চূড়ান্ত করা হয়েছে। সভায় উপস্থিত একাধিক সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।   

বেসরকারি স্কুল ও কলেজের এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংশোধনে গঠিত কমিটির পঞ্চম সভায় সভাপতিত্ব করবেন কমিটির আহ্বায়ক ও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোমিনুর রশিদ আমিন। 

একাধিক সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানায়, বুধবার নীতিমালা সংশোধন কমিটির পঞ্চম সভায় আগের সভাগুলোর আলোচ্যসুচি ও সুপারিশ বিষয়ে আলোচনা করে সুপারিশ চূড়ান্ত করা হয়েছে। এসব সুপারিশ লিখিতভাবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীকে দেয়া হবে। তারা নীতিমালা সংশোধনের বিষয়ে সভা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন।

আরও পড়ুন: শিক্ষা উপমন্ত্রীর বাসভবনে চুরি

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানায়, সভায় বেসরকারি স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্তিতে শর্ত শিথিলের বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এমপিওভুক্তি শর্ত হিসেবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাসের হার ও শিক্ষার্থী সংখ্যা শিথিলের প্রস্তাব করার বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। কমিটিতে থাকা ননএমপিও শিক্ষক নেতারা শর্ত শিথিলের বিষয়ে বেশ কিছু প্রস্তাব করেছিলেন। কিন্তু সব প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়নি। তবে, শর্ত কিছুটা শিথিলের সুপারিশ করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিটি। 

সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানায়, বিদ্যমান এমপিও নীতিমালায় একক শ্রেণি বা শাখার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থী সংখ্যা ন্যূনতম ৫০ জন ও পরবর্তী শাখার জন্য ন্যূনতম ৪০জন শিক্ষার্থী থাকার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু শিক্ষকদের পক্ষ থেকে এ সংখ্যা একক শ্রেণির ক্ষেত্রে ৪০ ও পরবর্তী শাখার ক্ষেত্রে ৩০ করার প্রস্তাব করা হয় নীতিমালা সংশোধন কমিটির তৃতীয় সভায়। কমিটি শিক্ষার্থী সংখ্যা কমানোর বিষয়ে সহনশীল। শিক্ষার্থী সংখ্যা কিছুটা কমানো হচ্ছে। সেভাবেই নীতিমালা সংশোধনের সুপারিশ করবে কমিটি।

এছাড়া এমপিওভুক্তিতে শিক্ষার্থীদের পাসের হার কমানোর বিষয়ে সুপারিশ করার বিষয়টি চূড়ান্ত করেছে কমিটি। নীতিমালায় বলা হয়েছে, এমপিওভুক্ত হতে প্রতিষ্ঠানের ৭০ শতাংশ পাসের হার থাকতে হবে। তবে, সে শর্ত শিথিল করা হবে। স্কুলের পাসের হার বিদ্যমান নীতিমালায় ৭০ শতাংশ বলা হয়েছে। যা একই থাকছে। তবে উচ্চ মাধ্যমিক কলেজের ক্ষেত্রে পাসের হার ৬০ শতাংশ করে নীতিমালা সংশোধনের সুপারিশ করা হচ্ছে। আর ডিগ্রি কলেজের এমপিওভুক্তি শর্ত হিসেবে পাসের হার ৫৫ শতাংশ করার সুপারিশ করছে কমিটি। 

এর আগে গত ৭ জানুয়ারি এমপিও নীতিমালা কমিটির চতুর্থ সভা, ২২ ডিসেম্বর তৃতীয়, ১২ ডিসেম্বর দ্বিতীয় সভা এবং ৪ ডিসেম্বর এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংশোধনে গঠিত কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

গত ১২ নভেম্বর বেসরকারি স্কুল ও কলেজের এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংশোধনে ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এক মাসের মধ্যে এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো পর্যালোচনা করে প্রয়োজনীয় সংস্কারের সুপারিশ করতে বলা হয়েছে এ কমিটিকে। কমিটিতে ননএমপিও শিক্ষক নেতারাও সদস্য হিসেবে আছেন। স্কুল-কলেজের এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংস্কারের সুপারিশ করবে এ কমিটি। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের বেসরকারি মাধ্যমিক শাখার অতিরিক্ত সচিব মোমিনুর রশিদকে কমিটির আহ্বায়ক করা হয়।

বিশ্ব এক হলেই শুধু করোনা মোকাবেলা সম্ভব : জাতিসংঘ - dainik shiksha বিশ্ব এক হলেই শুধু করোনা মোকাবেলা সম্ভব : জাতিসংঘ সংসদ টিভিতে ক্লাসের নতুন রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha সংসদ টিভিতে ক্লাসের নতুন রুটিন প্রকাশ জুন পর্যন্ত কিস্তি না আদায় নিশ্চিতে ৯ সদস্যের মনিটরিং সেল - dainik shiksha জুন পর্যন্ত কিস্তি না আদায় নিশ্চিতে ৯ সদস্যের মনিটরিং সেল শিক্ষকদের বৈশাখী ভাতার ২০ শতাংশ অসহায় মানুষের কল্যাণে - dainik shiksha শিক্ষকদের বৈশাখী ভাতার ২০ শতাংশ অসহায় মানুষের কল্যাণে ১০ এপ্রিল সরকারকে করোনা শনাক্তের কিট দেবে গণস্বাস্থ্য - dainik shiksha ১০ এপ্রিল সরকারকে করোনা শনাক্তের কিট দেবে গণস্বাস্থ্য ‘প্রধানমন্ত্রীর গৃহীত পদক্ষেপে মানুষ নিরাপদ থাকার চেষ্টা করছে’ - dainik shiksha ‘প্রধানমন্ত্রীর গৃহীত পদক্ষেপে মানুষ নিরাপদ থাকার চেষ্টা করছে’ ছুটি বাড়ল ১১ এপ্রিল পর্যন্ত - dainik shiksha ছুটি বাড়ল ১১ এপ্রিল পর্যন্ত টিভিতে পাঠদান : সারাদেশের শিক্ষকরাই সুযোগ পাবেন - dainik shiksha টিভিতে পাঠদান : সারাদেশের শিক্ষকরাই সুযোগ পাবেন করোনা সন্দেহ হলে যা করতে হবে - dainik shiksha করোনা সন্দেহ হলে যা করতে হবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website