প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ - স্কুল - Dainikshiksha

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি |

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার নতুন বসতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ উঠেছে। তাঁকে অপসারণের দাবিতে গতকাল সোমবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা।

দুপুরে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সম্মেলনকক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো. সেলিম মিয়া। তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহানা আকতার শিক্ষার্থীদের যথানিয়মে পাঠদানের ব্যবস্থা নেননি। তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অমান্য করে কোচিং-বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রধান শিক্ষক সময়মতো বিদ্যালয়ে আসেন না এবং বিদ্যালয় ত্যাগের কোনো নিয়মনীতি মানেন না। এতে বিদ্যালয়ের স্বাভাবিক পাঠদান কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির অনুমতি ও পরামর্শ ছাড়াই প্রধান শিক্ষক শাহানা আকতার সভা আহ্বান করে থাকেন। কখনো কখনো কোরাম (দু-তৃতীয়াংশ সদস্য) পূর্ণ না হলেও সভা করা হয়। তাতে উপস্থিত দু-চারজন সদস্যকে ভুল বুঝিয়ে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেন, যা সম্পূর্ণভাবে নিয়মবহির্ভূত। এ ছাড়া বিদ্যালয়ের উন্নয়নে বরাদ্দ করা সরকারি অর্থ কমিটির সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা না করেই ব্যয় করেন। বিল-ভাউচার অনুমোদন করতে কমিটির ওই সদস্যদের উৎকোচ গ্রহণের প্রস্তাব দেন প্রধান শিক্ষক। অবিলম্বে শাহানা আকতারকে এ পদ থেকে অপসারণের দাবি জানান তাঁরা।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সহসভাপতি সাইদুর রহমান খান, সদস্য মোরসালিন চৌধুরী ও খন্দকার আনোয়ার উদ্দিন, বিদ্যালয়ের অভিভাবক কমিটির সহসভাপতি মীর আশরাফ আলী এবং স্থানীয় নতুন বসতি জামে মসজিদের মোতায়ালি সিরাজুল ইসলাম।

তবে প্রধান শিক্ষক শাহানা আকতার সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি উল্টো অভিযোগ করে বলেন, কমিটির সভাপতি তিনিসহ (প্রধান শিক্ষক) বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষিকার সঙ্গে অসদাচরণ করেন। এ বিষয়ে সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন তাঁরা। এ কারণেই সভাপতি সংবাদ সম্মেলন করে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছেন।

দুর্নীতিবাজরা সাবধান হয়ে যান: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha দুর্নীতিবাজরা সাবধান হয়ে যান: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী অর্ধাক্ষর শিক্ষকরা সিকিঅক্ষর শিক্ষার্থী তৈরি করছেন: যতীন সরকার - dainik shiksha অর্ধাক্ষর শিক্ষকরা সিকিঅক্ষর শিক্ষার্থী তৈরি করছেন: যতীন সরকার অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ নিয়ে যা বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ নিয়ে যা বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী ১৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ২০ ফেব্রুয়ারি - dainik shiksha স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ২০ ফেব্রুয়ারি প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website