প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নতুন জটিলতার আশঙ্কা - স্কুল - Dainikshiksha

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নতুন জটিলতার আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

ইদের আগে একযোগে দুই ধাপে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজনে জটিলতা দেখা দিয়েছে। পরীক্ষার জন্য এখন পর্যন্ত চার দফা সময় পেছানো হয়েছে।

পঞ্চমবারের মতো নির্ধারিত সময়েও সহকারী শিক্ষক নিয়োগ- ২০১৮ এর লিখিত পরীক্ষা আয়োজনে নতুন করে জটিলতা দেখা দিয়েছে। ইদের আগে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য পর্যাপ্ত শিক্ষক পাওয়া যাবে কি-না সন্দেহ প্রকাশ করেছেন অনেকেই। ইদের আগে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজনে বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরে সিলেট ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসকরা লিখিতভাবে জানিয়েছেন। নির্ধারিত যেসব কেন্দ্রে পরীক্ষার আয়োজনের কথা রয়েছে, শিক্ষক-সঙ্কট থাকায় তা সম্ভব হচ্ছে না বলেও অধিদপ্তরে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।[insidfe-ad]

তবে, অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এফ এম মনজুর কাদির বলেন, ইদের আগে ২৪ মে ২৫ জেলায় এবং ৩১ মে ২৬ জেলায় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজনের চিন্তা রয়েছে। তবে শিক্ষক-সঙ্কট বা অন্য কারণে যদি কোনো কেন্দ্রে পরীক্ষার আয়োজন সম্ভব না হয়, তাহলে তা ১৪ জুন ও ২১ জুন তৃতীয় ও চতুর্থ ধাপের পরীক্ষার সঙ্গে আয়োজন করা যেতে পারে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সকল প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। ইদের আগে যেসব কেন্দ্রে নিয়োগ পরীক্ষা হবে সেগুলোতে আগামী ১৫ ও ১৬ মে ওএমআর শিট পাঠানো হবে। প্রবেশপত্র বিতরণ করা শুরু হবে ১৭ মে থেকে। তাই শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা আয়োজন করতে কোনো বাধা নেই বলে আমি মনে করি।

অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানান, সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা চার ধাপে নেয়ার প্রস্তুতি চলছে। এর মধ্যে ২৪ মে ২৫ জেলা, ৩১ মে ২৬ জেলা, ১৪ জুন ২৭ জেলা এবং ২১ জুন ২৩ জেলায় নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজনের কথা। কিন্তু রমজান মাসে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় আগামী ২৪ ও ৩১ মে ৫১ জেলায় প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষার আয়োজন নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। কারণ ওই সময় শিক্ষকরা ইদুল ফিতর পালন নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন। ফলে পরীক্ষা পরিদর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য পর্যাপ্ত শিক্ষক পাওয়া যাবে না বলে বিভিন্ন জেলা থেকে ডিপিইকে জানানো হয়েছে।

তারা বলেন, রমজান ও ইদের ছুটি হিসেবে গত ৫ মে থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণা করা হয়। আগামী ১৫ জুন এ ছুটি শেষ হবে। এসব কারণে ঈদের আগে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজনে বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরে সিলেট ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসকরা লিখিতভাবে জানিয়েছেন। নির্ধারিত যেসব কেন্দ্রে পরীক্ষার আয়োজনের কথা রয়েছে, শিক্ষক-সঙ্কট থাকায় তা সম্ভব হচ্ছে না বলেও ডিপিইতে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

সেখানে আরও বলা হয়েছে, ঈদের ছুটিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষকরা বিভিন্ন স্থানে চলে গেছেন বা যাচ্ছেন। তাই পরীক্ষার হলে পরিদর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য শিক্ষক-সঙ্কট দেখা দিয়েছে। এ কারণে ঈদের আগে দেশের ৫১ জেলায় দুই ধাপে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে পাস ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ - dainik shiksha ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে পাস ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ বেকারভাতা দেয়ার চিন্তা সরকারের - dainik shiksha বেকারভাতা দেয়ার চিন্তা সরকারের তদবিরে তকদির: চাকরির বাজারে এগিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েটরা - dainik shiksha তদবিরে তকদির: চাকরির বাজারে এগিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েটরা নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা - dainik shiksha নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা এমপিওভুক্ত হচ্ছেন ১০ হাজার ৮৫ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন ১০ হাজার ৮৫ শিক্ষক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website