ফুচকা বিক্রেতা বিশ্বকাপের ক্রিকেট দলে - খেলাধুলা - দৈনিকশিক্ষা

ফুচকা বিক্রেতা বিশ্বকাপের ক্রিকেট দলে

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

এলাকায় ফুচকা ও ভেলপুরি বিক্রি করে পেট চালাত এক কিশোর। ক্রিকেটে বেশ ঝোঁক ছিল তার। ক্রিকেটকে হৃদয়ে লালন করত। ফুচকা বিক্রয়ের ফাঁকে ক্রিকেটের সব খোঁজখবর রাখত সে। শুধু খোঁজই রাখত না; নিয়মিত অনুশীলনও করতে দেখা যেত তাকে।

থাকার ভালো ঘর ছিল না তার। মাঝেমধ্যে দিনে কাস্টমার কম হলে ফুচকা বিক্রি করে তেমন পয়সা জোগাড় হতো না। রাতে না খেয়ে থাকতে হতো।

তাতে কি! বিকালবেলায় মাঠে প্র্যাকটিসে যেত সেই তরুণ।

আর ক্রিকেটের প্রতি অগাধ ভালোবাসা থেকেই আজ সে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ করে নেয়া এক ক্রিকেটার।

তার নাম যশস্বি জসওয়াল। আগামী বছরে ১৭ জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় বসতে যাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট।

আর সেই বিশ্বকাপ খেলতে ভারতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ডাক পেয়েছেন ১৭ বছর বয়সী যশস্বি।

ইতোমধ্যে নিজের পারফরম্যান্সের কথা জানান দিয়েছে দরিদ্র এই কিশোর। চলতি বছর বিজয় হাজারে ট্রফিতে ঝাড়খণ্ডের বিপক্ষে ১৫৪ বলে ২০৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে বিস্ময়বালকে পরিণত হয় মুম্বাইয়ের বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান।

১২ ছক্কা ও ১৭ বাউন্ডারির মারে এক ঝকঝকে ইনিংস খেলে সে।

এর পরই ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে যশস্বিকে নিয়ে খবর ছড়িয়ে পড়ে। মুম্বাইয়ের এই কিশোরকে এই বাঁহাতি বিরাট কোহলি বলে ডাকা শুরু করেন ভারতীয়রা।

ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, মুম্বাইয়ের আজাদ ময়দানে ফুচকা বিক্রি করে দিনযাপন করে যশস্বি জসওয়াল। তার জন্ম দেশটির উত্তরপ্রদেশের সুরিয়ায়। তবে ১১ বছর বয়সে বাবার হাত ধরে মুম্বাইয়ে চলে আসে যশস্বি। তখন থেকে ক্রিকেটে হাতেখড়ি তার। ক্রিকেট খেলার ফাঁকে ফুচকা ও ভেলপুরি বিক্রি করে জসওয়াল।

এখনও পর্যন্ত ৯টি লিস্ট-এ ম্যাচ খেলেছে যশস্বি। গত মৌসুমে রঞ্জি ট্রফিতে ছত্তিশগড়ের বিপক্ষে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় তার।

ভারতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পর যশস্বির বাবা ভূপেন্দর কুমার জসওয়াল বলেন, ‘ছোট থেকেই স্বপ্ন দেখত একদিন ভারতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবে। সেই স্বপ্নই এবার পূরণ হতে চলেছে।’

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি - dainik shiksha প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের - dainik shiksha ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? - dainik shiksha শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন - dainik shiksha ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না - dainik shiksha চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক - dainik shiksha হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প - dainik shiksha শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প please click here to view dainikshiksha website