বকেয়া টাইমস্কেল-সিলেকশন গ্রেড ইদের আগে বাস্তবায়নের দাবি (ভিডিও) - সমিতি সংবাদ - Dainikshiksha

সরকারি মাধ্যমিকের শিক্ষকদেরবকেয়া টাইমস্কেল-সিলেকশন গ্রেড ইদের আগে বাস্তবায়নের দাবি (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক |

আসন্ন ইদুল ফিতরের পূর্বে  টাইমস্কেল ও সিলেকশন গ্রেডসহ ৮ দফা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছেন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। এ সময়ের মধ্যে বকেয়া পাওনা পরিশোধ করা না হলে ইদের পর লাগাতার কর্মবিরতি পালন করবেন শিক্ষকরা। বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ সরকারি মাধ্যমিকের বঞ্চিত শিক্ষকবৃন্দের ব্যানারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন শেখ মনির হোসেন। এ সময় আরও বক্তব্য দেন সরকারি মাধ্যমিকের বঞ্চিত শিক্ষকদের আহ্বায়ক ও সভাপতি মীর মো. এনায়েত হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, সাঈদ আনোয়ার, মাহমুদা খাতুন প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, পিটিআই ইন্সট্রাক্টর, সমাজ সেবা কর্মকর্তাদের পদ সরকারি মাধ্যমিকের সহকারী শিক্ষকদের সম স্কেলে ছিল। এ পদগুলো আপগ্রেড হয়ে ১ম শ্রেণিতে উন্নীত হয়েছে। কিন্তু সরকারি মাধ্যমিকের শিক্ষকরা দীর্ঘদিন যাবত পদোন্নতি ও অর্থিক সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছেন। এ জন্য অনেকেই শিক্ষকতা পেশা থেকে সরে যাচ্ছেন। এ জটিলতা দূর করতে শিক্ষকদের ৮ দফা দাবি বাস্তবায়ন করতে হবে। দাবিগুলো হল, বকেয়া টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেডসহ যাবতীয় পাওনা দ্রুত প্রদান, এন্ট্রি পদ ৯ম গ্রেডে, আত্তীকরণ বিধিমালা দ্রুত সংশোধন করে গেজেট আকারে প্রকাশ, আত্তীকৃত সরকারি মাধ্যমিকের শিক্ষকদের পদ কলেজের মতো ওয়ান স্টেপ ডাউন হতে হবে, আর্থিক সুবিধা যাই হোক সরকারি চাকরিতে যোগদানের তারিখ থেকে আত্তীকৃতদের জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণ করতে হবে, ২০১০ খ্রিষ্টাব্দের শিক্ষানীতির আলোকে স্বতন্ত্র মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর বাস্তবায়ন করতে হবে। 

শিক্ষকদের দাবিগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে- এন্ট্রি পদে ৯ম গ্রেডে বেতন নিশ্চিত করা, ৮ বছর পরে সরকারি মাধ্যমিকের শিক্ষকদের শতভাগ পদোন্নতি দিয়ে সিনিয়র সহকারী শিক্ষক পদে ৮ম গ্রেডে বেতন দিতে হবে। এর ৪ বছর পরে বিভাগীয় পরীক্ষার মাধ্যমে ৫০ শতাংশ শিক্ষককে ৬ষ্ঠ গ্রেড দিতে হবে। এরও ৪ বছর পরে বিভাগীয় পরীক্ষার মাধ্যমে ২৫ শতাংশ পদোন্নতি দিয়ে ৫ম গ্রেডে বেতন দিতে হবে। সহকারী প্রধান শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষক পদে সরাসরি নিয়োগ বন্ধ করতে হবে। সরকারি মাধ্যমিককে নন-ভ্যাকেশনাল ডিপার্টমেন্ট ঘোষণা করতে হবে। সপ্তাহে শুক্র ও শনিবার দুই দিন ছুটির ব্যবস্থা করতে হবে। এ সময় আরও বক্তব্য দেন সরকারি মাধ্যমিকের বঞ্চিত শিক্ষকদের আহ্বায়ক ও সভাপতি মীর মো. এনায়েত হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, সাঈদ আনোয়ার, মাহমুদা খাতুন প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনের আগে একই দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন বাংলাদেশ সরকারি মাধ্যমিকের বঞ্চিত শিক্ষকরা। মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন সহকারী শিক্ষক সমিতির যুগ্ম আহ্বায়ক বকেয়া টাইমস্কেল-সিলেকশন গ্রেড বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী বেলাল। দুঃখ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমাদের মর্যাদা বাড়িয়ে বেতন কমিয়ে দেয়া হয়েছে। মাউশির কর্মকর্তরা ষড়যন্ত্র করে সিনিয়র শিক্ষক পদায়ন বন্ধ করে রেখেছে। সমস্যা সমাধানে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

সরকারি হলো আরও ২ স্কুল - dainik shiksha সরকারি হলো আরও ২ স্কুল নতুন দুটি শিক্ষক পদ সৃষ্টি হচ্ছে সব স্কুলে - dainik shiksha নতুন দুটি শিক্ষক পদ সৃষ্টি হচ্ছে সব স্কুলে একাদশে ভর্তিকৃতদের তালিকা নিশ্চয়ন ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃতদের তালিকা নিশ্চয়ন ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে ভর্তি কোচিং নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী (ভিডিও) - dainik shiksha ভর্তি কোচিং নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী (ভিডিও) বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির বিকল্প প্রয়োজন - dainik shiksha বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির বিকল্প প্রয়োজন এমপিওভুক্ত হলেন আরও ৮০ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলেন আরও ৮০ শিক্ষক একাদশে ভর্তিকৃতদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃতদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে স্কুল-কলেজ খোলা রেখে বন্যার্তদের আশ্রয় দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খোলা রেখে বন্যার্তদের আশ্রয় দেয়ার নির্দেশ শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website