please click here to view dainikshiksha website

ববিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ: আহত ৩

বরিশাল প্রতিনিধি | আগস্ট ৬, ২০১৭ - ৭:০১ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হামলা, সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন ছাত্রলীগ কর্মী আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে দু’জনকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার (৬ই আগস্ট) দুপুর থেকে দফায় দফায় এই ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহত ছাত্রলীগ কর্মীরা হলো- সমাজ বিজ্ঞান পঞ্চম সেমিষ্টারের ছাত্র সাইদ শোভন, একই বিভাগ এবং বর্ষের ছাত্র নূরুল্লাহ ও অপরজন হলো সোয়ান। তবে তার বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু ও শেরে বাংলা হলের আবাসিক হলের ৩য় এবং ৪র্থ ব্যাচের দুই গ্রুপ ছাত্রলীগের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিলো। এর অংশ হিসেবে রোববার দুপুরে এক গ্রুপ ক্যাম্পাসের একাডেমিক ভবনের সামনে এবং অপর গ্রুপ ক্যাম্পস সংলগ্ন বরিশাল-পটুয়াখালী সড়কে অবস্থান নেয়। এতে ক্যাম্পাস জুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে বন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে দুই গ্রুপকে দু’দিকে সরিয়ে দেন এবং ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে পরবর্তীতে দুই গ্রুপ লাঠি-সোটা এবং রড সহ বেভিন্ন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে পুনরায় পাল্টাপাল্টি অবস্থান নিলে ধাওয়া পাল্টা এবং সংঘর্ষ হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, সদ্য শেষ হওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দন্দ চলে আসছিলো। এর জের ধরে ছাত্রলীগের একাংশের ইমরান হোসেন নাঈম ও রুম্মান হোসেন রুজবেল, ফিরোজ হোসেন নয় ও শাওন আল মাহাদী অনুসারীরা অনু, সিফাত ও মিষ্ঠু অনুসারী ছাত্রলীগ কর্মী বিধান চন্দ্র সাদকে পিটিয়ে আহত করে। ওই ঘটনার জের ধরেই রোববার পুনরায় দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ এবং ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন সাধারন শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন বন্দর থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে ববি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ এবং ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এতে তিনজনের মত আহতও হয়েছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। পাশাপাশি পরবর্তী অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তাছাড়া সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘরোয়াভাবে সমাধান করবেন বলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পুলিশকে জানিয়েছে বলে জানান ওসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন