বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে হতাশ স্থানীয় শিক্ষাবিদরা - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে হতাশ স্থানীয় শিক্ষাবিদরা

ববি প্রতিনিধি |

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংকটে স্থানীয় শিক্ষাবিদরা হতাশ হয়ে পড়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার দাবিতে যারা নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, তাদেরকে অবহেলা-অবজ্ঞা করায় চলমান সংকট নিরসনে তারা কেউ এগিয়ে আসছেন না। বিশ্ববিদ্যালয় আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হলে প্রথম সিন্ডিকেট সভায় বরিশালের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদদের সদস্য রাখা হলেও পরবর্তীকালে তাদেরকে বাদ দেওয়া হয়।

প্রথম উপাচার্য তাদেরকে মূল্যায়ন করলেও দ্বিতীয় উপাচার্য অবমূল্যায়ন করেন। এছাড়া সিন্ডিকেটে যারাই অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছেন তাদেরকে নানা কৌশলে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে এ সংকট মোকাবিলায় যাদের কথা বলার ছিল তারা কোনো দায়িত্বে না থাকায় কেউ এগিয়ে আসছেন না।

২৬ মার্চ থেকে টানা ৩৫ দিনের আন্দোলনের মুখে উপাচার্য প্রফেসর ড. এস এম ইমামুল হক যে সিন্ডিকেট রেখে গেছেন সেখানে তিনি সভাপতিসহ ১৬ জনের মধ্যে বেশির ভাগই বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে থাকা সিন্ডিকেট সদস্যের মধ্যে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্রনাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য, ওয়ারপোর সাবেক মহাপরিচালক রয়েছেন।

সিন্ডিকেটের সদস্যরা বলছেন সিন্ডিকেট সভা আহ্বান করেন উপাচার্য। কারণ তিনি পদাধিকার বলেন সভাপতি। উপাচার্য না থাকায় সভা হচ্ছে না ফলে এ বিষয়ে আলোচনার সুযোগ নেই। সিন্ডিকেটের সাবেক সদস্যরা জানান, চাইলে সিন্ডিকেট সদস্যরা বিশ্ববিদ্যালয়ের যে কোনো বিষয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা করতে পারেন।

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষাকার্যক্রম বাস্তবায়ন কমিটির অন্যতম সদস্য শিক্ষাবিদ প্রফেসর শাহ সাজেদা জানান, উপাচার্যসহ গুরুত্বপূর্ণ পাঁচ পদ শূন্য থাকায় চরম সংকটের মধ্যে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। এ অবস্থা কারো কাম্য ছিলো না।

তিনি এ থেকে উত্তোরণসহ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটে এখানকার শিক্ষাবিদদের সম্পৃক্ত রাখার দাবি জানান। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. হারুনর রশীদ খান বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে নেতৃত্বদানকারী বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর মো. হানিফ ও বরিশালের ইতিহাসবিদ সাবেক সচিব ড. সিরাজ উদ্দিন আহমেদকে সিন্ডিকেট সদস্য করেছিলেন তিনি।

পরে উপাচার্য ড. ইমামুল হক প্রথম সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর মো. হানিফ ও ড. সিরাজ উদ্দিন আহমেদকে বাদ দেন। সাবেক সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর মো. হানিফ  জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত হতাশাবাঞ্জক। এ নিয়ে আগে থেকেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত ছিল। তিনি এ সংকট নিরসনে সরকারের সর্বোচ্চ মহল থেকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া এবং দক্ষ ব্যক্তিকে উপাচার্য পদে নিয়োগ দিয়ে সমস্যা সমাধানের অনুরোধ জানান।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেয়াল ঘেঁষে তৈরি করা মার্কেট অপসারণের নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেয়াল ঘেঁষে তৈরি করা মার্কেট অপসারণের নির্দেশ নীতিমালা সংশোধন কমিটির দ্বিতীয় সভায় এমপিওভুক্তির শর্ত নিয়ে আলোচনা - dainik shiksha নীতিমালা সংশোধন কমিটির দ্বিতীয় সভায় এমপিওভুক্তির শর্ত নিয়ে আলোচনা এমপিও পুনর্বিবেচনা কমিটির সভা ১৫ ডিসেম্বর - dainik shiksha এমপিও পুনর্বিবেচনা কমিটির সভা ১৫ ডিসেম্বর সমাপনী পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের দায়ে ৩ শিক্ষক বরখাস্ত - dainik shiksha সমাপনী পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের দায়ে ৩ শিক্ষক বরখাস্ত ‘শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিটি বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নিজে খোঁজ রাখেন’ - dainik shiksha ‘শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিটি বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নিজে খোঁজ রাখেন’ এইচএসসি-আলিমের ফরম পূরণ শুরু - dainik shiksha এইচএসসি-আলিমের ফরম পূরণ শুরু জেএসসি-জেডিসির ফল ৩১ ডিসেম্বর - dainik shiksha জেএসসি-জেডিসির ফল ৩১ ডিসেম্বর লিফলেট ছড়িয়ে সরকারি স্কুল শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য, ভর্তির গ্যারান্টি! - dainik shiksha লিফলেট ছড়িয়ে সরকারি স্কুল শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য, ভর্তির গ্যারান্টি! এমপিওভুক্তিতে কর্তৃত্ব কমলো ডিডিদের, বাড়লো শিক্ষা ক্যাডারের - dainik shiksha এমপিওভুক্তিতে কর্তৃত্ব কমলো ডিডিদের, বাড়লো শিক্ষা ক্যাডারের শিক্ষামন্ত্রীকে লেখা এমপিদের চিঠিতে এমপিও কেলেঙ্কারি - dainik shiksha শিক্ষামন্ত্রীকে লেখা এমপিদের চিঠিতে এমপিও কেলেঙ্কারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনীর ফল বছরের শেষ দিনে - dainik shiksha প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনীর ফল বছরের শেষ দিনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া দৈনিকশিক্ষার ফেসবুক লাইভ দেখতে আমাদের সাথে থাকুন প্রতিদিন রাত সাড়ে ৮ টায় - dainik shiksha দৈনিকশিক্ষার ফেসবুক লাইভ দেখতে আমাদের সাথে থাকুন প্রতিদিন রাত সাড়ে ৮ টায় শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন please click here to view dainikshiksha website