বাংলাদেশ নিয়ে বিভ্রান্তিকর পোস্ট : অ্যামনেস্টির ক্ষমা প্রার্থনা - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

বাংলাদেশ নিয়ে বিভ্রান্তিকর পোস্ট : অ্যামনেস্টির ক্ষমা প্রার্থনা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাংলাদেশ নিয়ে ফেইসবুকে একটি পোস্টের জন্য ক্ষমা চেয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। সংস্থাটির ফেইসবুক পাতায় নতুন এক পোস্টে বলা হয়, “সংঘাত ও যুদ্ধময় দেশ, যেখানে মানুষ আক্রমণ, সংঘাত ও মৃত্যুর মুখোমুখি হচ্ছে- ফেইসবুক বিজ্ঞাপনে বাংলাদেশকে অন্তর্ভুক্ত করায় ক্ষমা চাচ্ছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

তারা লিখেছে “আমরা এই ভুলের জন্য বাংলাদেশের জনগণের এবং যারা এর মাধ্যমে মর্মাহত হয়েছেন, তাদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাচ্ছি।”

গত শুক্রবার যুদ্ধ ও সংঘাতময় দেশে মানুষের আক্রান্ত, সংঘাত ও মৃত্যুর মুখোমুখি হওয়ার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে একটি ফেইসবুক পোস্ট দিয়েছিল অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশাল।

কেবল বাংলাদেশের নাম উল্লেখ করে দেওয়া ওই পোস্টে ছবি সংযুক্ত করা হয় সিরিয়ার একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত এলাকার। ওই পোস্টে লেখা হয়, “বাংলাদেশ এবং পৃথিবীর অন্যান্য জায়গায় নিরপরাধ মানুষ আক্রমণের শিকার, সংঘাত ও মৃত্যুর মুখোমুখি হচ্ছে- কেবল মাত্র ভুল সময়ে ভুল জায়গায় থাকার কারণে। যুদ্ধ ও সংঘাতের সময় ভয়ঙ্কর নির্যাতনকে তুলে ধরতে আমরা সংগ্রাম করছি। এ ধরনের গল্প শোনানোর জন্য হাজার হাজার মানুষের সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিন।”

অ্যামনেস্টির এই পোস্টের কমেন্ট বক্সে অনেকে তাদের এমন বক্তব্যকে ’বিভ্রান্তিকর ও মিথ্যা’ অভিহিত করে মতামত দেন ফেইসবুক ব্যবহারকারীরা। ওই পোস্টের নিচে অমিত হাসান নামে একজন লেখেন, “এই ছবি বাংলাদেশের জন্য চরম অবমাননাকর। অ্যামনেস্টি সিরিয়া, ইরাক, ইয়েমেন কিংবা সিরিয়ার জন্য কিছু করতে পারে না, বরং আমেরিকা ও অন্যদের স্বার্থ উদ্ধার করতে পারে। কী হাস্যকর!”

মনজুরুল ওয়াহিদ অনু নামে একজন লেখেন, “বর্তমানে বাংলাদেশ অত্যন্ত স্থিতিশীল রাষ্ট্র। বর্তমানে আমাদের দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রয়েছে। এমন শিরোনাম আপনারা কোথায় পেয়েছেন? কোথায় পেয়েছেন নিরপরাধ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে? যে ছবি দেওয়া হচ্ছে তার স্থান কোথায়?

“আপনারা ছেলেখেলা করছেন নাকি পাগল হয়ে গেছেন? এই ছবি অন্য কোনো দেশের। এই ষড়যন্ত্রের জন্য কারা টাকা দিয়েছে?” এর আগে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীদের দণ্ডের বিরোধিতার কারণে বাংলাদেশে সমালোচনায় পড়তে হয়েছিল অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালকে।
শুক্রবারে পোস্ট দেওয়ার কিছু সময় পর থেকে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ফেইসবুক পাতায় বাংলাদেশ থেকে সেটি দেখা যাচ্ছিল না।

এরপর মঙ্গলবার রাতে আরেকটি ফেইসবুক পোস্টের মাধ্যমে বাংলাদেশের জনগণের কাছে ক্ষমা চায় সংস্থাটি। সেখানে আরও লেখা হয়, “আমরা স্বীকার করছি বাংলাদেশ যুদ্ধ ও সংঘাতময় দেশের মধ্যে নেই। অধিকন্তু তারা মিয়ানমারে মানবতাবিরোধী অপরাধের শিকার প্রায় ১০ লাখ মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে।”

ওই পোস্টটি সংশোধনের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এমন পোস্টের ক্ষেত্রে আরও যাচাই-বাছাইয়ের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় মঙ্গলবারের পোস্টে। সেখানে আরও লেখা হয়, “আমরা স্বীকার করছি বাংলাদেশ যুদ্ধ ও সংঘাতময় দেশের মধ্যে নেই। অধিকন্তু তারা মিয়ানমারে মানবতাবিরোধী অপরাধের শিকার প্রায় ১০ লাখ মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে।”

ওই পোস্টটি সংশোধনের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এমন পোস্টের ক্ষেত্রে আরও যাচাই-বাছাইয়ের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় মঙ্গলবারের পোস্টে।

মাদরাসা শিক্ষকদের জুনের এমপিওর জিও জারি - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের জুনের এমপিওর জিও জারি করোনায় ৪৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৬৬৬ - dainik shiksha করোনায় ৪৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৬৬৬ শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর - dainik shiksha শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ - dainik shiksha তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা - dainik shiksha জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ - dainik shiksha প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান - dainik shiksha শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক - dainik shiksha বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে - dainik shiksha শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website