বাসে লাঞ্ছনার শিকার চবি ছাত্রী - বিবিধ - Dainikshiksha

বাসে লাঞ্ছনার শিকার চবি ছাত্রী

চবি প্রতিনিধি |

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) এলাকা থেকে নগরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা এক বাসে চবির এক ছাত্রী বাসের হেল্পার দ্বারা লাঞ্ছিত হয়েছেন! বৃহস্পতিবার বিকেলে চট্টগ্রাম নগরের রিয়াজ উদ্দিন বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার ক্লাস শেষ করে বিকেল ৩টার দিকে ওই ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল গেইট থেকে ৩নং বাসে ওঠেন। বাসটি নগরের রিয়াজউদ্দিন বাজার এলাকায় পৌঁছুলে ওই ছাত্রী ছাড়া সকল যাত্রী নেমে যান। তিনি নিউমার্কেট মোড়ে নামার জন্য বাসেই অবস্থান করে। তাকে একা পেয়ে হঠাৎ বাসটি তার রাস্তা বদল করে স্টেশন রোডের দিকে চলতে শুরু করে। তখন মেয়েটি নিরাপত্তার জন্য বাস ড্রাইভারকে বাস থামাতে বলেন। এ সময় বাসের হেল্পার তার কাছে ছুটে এসে তাকে জাপটে ধরে। এ সময় মেয়েটি চিৎকার করতে গেলে তার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তাকে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করে হেলপার।

এ সময় মেয়েটি আত্মরক্ষার্থে তার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে হেল্পারের মাথায় আঘাত করে। তারপর প্রাণ রক্ষার্থে চলন্ত বাস থেকে লাফ দেয়। এরপর এক রিকসাওয়ালার সাহায্যে শরীরে আঘাতের চিহ্ন নিয়ে বাসায় ফেরেন। ঘটনার সময় ওই বাসের ড্রাইভার হেল্পারকে উৎসাহ দিচ্ছিলেন বলে জানান তিনি।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রী বাদী হয়ে শুক্রবার কোতয়ালি থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন বলে জানিয়েছেন ওই থানার ওসি মো. মহসীন।

মহসীন বলেন, ‘ওই মেয়ের দায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশের একটি টিম কাজ করছে। ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে শাস্তির আওতায় আনা হবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন, ‘ওই মেয়ের বাবা এবং কোতয়ালি থানার ওসির সঙ্গে আলাপ হয়েছে। পুলিশ ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে। দোষীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেওয়া হবে।

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website