বিকেলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে জাবি প্রশাসন - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

বিকেলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে জাবি প্রশাসন

জাবি প্রতিনিধি |

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলছেন।

মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে চতুর্থ দিনের মতো আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটা থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা। তবে বিকেলে প্রশাসন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে—উপাচার্য এমন আশ্বাস দিলে অবরোধ সাময়িকভাবে প্রত্যাহার করেন তাঁরা।

আজ বিকেল চারটা থেকে পাঁচটার মধ্যে প্রশাসন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে—এমন আশ্বাস দিয়েছেন উপাচার্য। এদিকে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শহীদ মিনারে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছেন এক শিক্ষক।

গত ২৬ মে ভোরের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলসংলগ্ন সিঅ্যান্ডবি এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নাজমুল হাসান ও মেহেদি হাসান নামের দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর ও শিক্ষক লাঞ্ছনার অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে প্রশাসন মামলা করে। গত ২৭ মে রাতে ৫৪ জন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আসামিদের মধ্যে ১৪ জন নারী শিক্ষার্থী। সেই মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিভিন্ন বামপন্থী ছাত্রসংগঠনের নেতা-কর্মী এবং সাধারণ শিক্ষার্থীরা এ অবরোধ কর্মসূচি পালন করছেন।

গতকাল বুধবার বিকেলে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি সিন্ডিকেট সভা হয়। সভায় মামলা প্রত্যাহারর বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি, বরং শিক্ষা এবং প্রশাসনিক কার্যক্রমে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বাধা না দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয় সিন্ডিকেট থেকে।

আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত শিক্ষার্থীদের জানান এবং অবরোধ প্রত্যাহারের অনুরোধ করেন। এ সময় প্রক্টর তপন কুমার সাহা সঙ্গে ছিলেন। কিন্তু মামলা প্রত্যাহার না হলে অবরোধ প্রত্যাহার সম্ভব নয় বলে শিক্ষার্থীরাও তাঁদের অবস্থান জানান।

এর কিছুক্ষণ পর উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলতে আসেন। এ সময় দুই সহ-উপাচার্য অধ্যাপক আবুল হোসেন এবং অধ্যাপক আমির হোসেন, কোষাধ্যক্ষ শেখ মনজুরুল হকসহ সিন্ডিকেট সদস্য এবং প্রশাসনের বিভিন্ন দায়িত্বে থাকা একাধিক শিক্ষক তাঁর সঙ্গে ছিলেন।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অবরোধ প্রত্যাহারের অনুরোধ জানাচ্ছেন রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক।

উপাচার্য প্রায় ৪০ মিনিট শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। চলমান সংকটে দুই পক্ষই তাদের বক্তব্য তুলে ধরেন। উপাচার্য শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, কিছুদিন পর ভর্তি পরীক্ষা। আজ বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি কমিটির সভা। অবরোধের কারণে সভা করা না গেলে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়ে যাবে বিশ্ববিদ্যালয়।

শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমরাও চাই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলুক। একই সঙ্গে প্রশাসন আমাদের স্বাভাবিক জীবন নিশ্চিত করুক।’

কথোপকথনের শেষের দিকে ভর্তি পরীক্ষাসংক্রান্ত সভা শেষে আজ বিকেলে চারটা থেকে পাঁচটার মধ্যে প্রশাসন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে- উপাচার্য এমন আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা অবরোধ সাময়িকভাবে প্রত্যাহার করে।

শিক্ষকের অবস্থান

এদিকে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আজ শহীদ মিনারে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছেন নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাঈদ ফেরদৌস।

সাঈদ ফেরদৌস বলেন, ‘প্রশাসন শিক্ষার্থীদের প্রতি যে আচরণ করেছে, তাতে আমি লজ্জিত। শিক্ষার্থীদের ভুল থাকতে পারে। কিন্তু শিক্ষকের জায়গা থেকে শিক্ষার্থীদের প্রতি আরও সহমর্মী হওয়া উচিত ছিল। তবে তা হয়নি। তাই এর প্রতিবাদে এবং মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আমি অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছি।’

আসছে দ্বিতীয় ধাপের নিয়োগ সুপারিশ - dainik shiksha আসছে দ্বিতীয় ধাপের নিয়োগ সুপারিশ স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ১৪ মার্চ - dainik shiksha স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ১৪ মার্চ এনটিআরসিএর ভুল, আমি পরিপত্র মানি না.. (ভিডিও) - dainik shiksha এনটিআরসিএর ভুল, আমি পরিপত্র মানি না.. (ভিডিও) এমপিওভুক্তির নামে প্রতারণা, মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha এমপিওভুক্তির নামে প্রতারণা, মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি শিক্ষকদের কোচিং করাতে দেয়া হবে না: শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের কোচিং করাতে দেয়া হবে না: শিক্ষামন্ত্রী জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী - dainik shiksha জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী ৬০ বছরেই ছাড়তে হবে দায়িত্ব - dainik shiksha ৬০ বছরেই ছাড়তে হবে দায়িত্ব ফল পরিবর্তনের চার ‘গ্যারান্টিদাতা’ গ্রেফতার - dainik shiksha ফল পরিবর্তনের চার ‘গ্যারান্টিদাতা’ গ্রেফতার নকলের সুযোগ না দেয়ায় শিক্ষিকাকে জুতাপেটা - dainik shiksha নকলের সুযোগ না দেয়ায় শিক্ষিকাকে জুতাপেটা প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা - dainik shiksha প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website