বিদ্যালয়ে দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতা, লেখাপড়া বিঘ্নিত - স্কুল - Dainikshiksha

বিদ্যালয়ে দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতা, লেখাপড়া বিঘ্নিত

নেত্রকোনা প্রতিনিধি |

নেত্রকোনা সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের মেয়ারগাতী গ্রামে অবস্থিত সুরাইয়া আব্বাছ ডিএমসিসি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রবেশপথসহ খেলারমাঠ দীর্ঘদিন ধরে পানিতে ডুবে আছে। স্থানীয় এক ব্যক্তি তার মাছ চাষের খামের পানি ধরে রাখার জন্য একটি সরকারি কালভার্টের মুখ বন্ধ করে দেওয়ায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে বিদ্যালয়ের প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে যাতায়াতে প্রতিদিন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। আর এ কারণে বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিতি দিনদিন কমে যাচ্ছে। তা ছাড়া মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে লেখাপড়া। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও  কোনো কাজ হচ্ছে না।

জানা গেছে, মাহফুজুর রহমান নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি মত্স প্রকল্প স্থাপন করে জলাশয়ে পানি ধরে রাখতে বিদ্যালয়ের পানি নিষ্কাশনের কার্লভার্টটি বন্ধ করে দেন। এতে গত দুই বছর ধরে সামান্য বৃষ্টি হলেই বিদ্যালয় চত্বরে মারাত্মক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। পানি নিষ্কাশনের বিকল্প কোনো ব্যবস্থা না থাকায় বিদ্যালয়ে চলাচলের রাস্তাসহ বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের টিনশেডে ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির পাঠদান কক্ষ, বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। এতে করে পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। খেলার মাঠ পানিতে ডুবে থাকায় শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করতে পারছে না। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজমিনে বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, বিদ্যালয়ের প্রবেশ পথে হাঁটু পানি, খেলার মাঠ পানিতে থৈ থৈ করছে। হাঁটু পানি মাড়িয়ে কিছু শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে যাচ্ছে। বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশে জরাজীর্ণ টিনশেড ঘর। সুরাইয়া আব্বাছ ডিএমসিসি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ আহমাদুল্লাহ বলেন, বিদ্যালয়ের পাশে থাকা একটি কালভার্টের মুখ বন্ধ করে মত্স্য চাষ করার কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে।

মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহাম্মেদ ফকির বলেন, তিনি এ সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছেন। সুরাইয়া আব্বাছ ডিএমসিসি উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নূরুজ্জামান বলেন, বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে।

মাছের খামারের মালিক মাহফুজুর রহমানের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তিনি মোবাইল ফোন কল রিসিভ করেননি।

নেত্রকোনা সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবদুল বাতেন বলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ে জলাবদ্ধতার বিষয়টি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে দ্রুত সময়ের মধ্যে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website