please click here to view dainikshiksha website

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ৫ বছরের শিশু! (ভিডিওসহ)

দৈনিক শিক্ষা ডেস্ক | নভেম্বর ৩০, ২০১৬ - ৪:২২ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

পাঁচ বছর বয়সী একটি শিশুকে যদি জিজ্ঞেস করা হয়, বড় হয়ে তুমি কী হতে চাও? তার উত্তরে যদি বলে, সে শিক্ষক হওয়ার স্বপ্ন দেখে। তাতে নিশ্চয় আপনি অবাক হবেন না।

আপনি হয়তো তাকে বলবেন, ভালো করে পড়াশুনা কর, নিশ্চয়ই হবে। সাধারণত আমরা এটাই বলি। কিন্তু অদ্ভুত হলেও সত্য, পাঁচ বছরের একটি কন্যা শিশু তার সে স্বপ্নের কথা বলা মাত্রই শিক্ষক হয়ে গেছে। আর এই সুযোগটি করে দিয়েছে গ্লামবিং স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়।

জুরেনি জনশন নামের পাঁচ বছরের একটি শিশু ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল শিক্ষক হওয়ার। আর তাতেই সেই সুযোগ করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয়টি। একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের জীবন কেমন তা জানতে `অসাধারণ বাস্তব অভিজ্ঞতা` কর্মসূচির আলোকে এ সুযোগ পেয়েছে। এই কর্মসূচিতে ৫ থেকে ১৯ বছর বয়সী কন্যা শিশুরা সুযোগ পেয়ে থাকে।

গ্লামবিং বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত লুসিয়ানা কলেজে জুরেনি এই শিক্ষকতার সুযোগ পায়। গত সপ্তাহ থেকে তিনি তার শিক্ষক জীবনের যাত্রা শুরু করে।

প্রথম ক্লাস নেওয়ার পর এক সাক্ষাৎকারে জুরেনি বলে, `আমি তাদের গণিত শেখাতে গিয়েছিলাম, কিন্তু ক্লাসের অনেকেই খুব দুষ্টু। তবে সবাই না।`

জুরেনি ক্লাস নেওয়া ছাড়াও `পরিপাটি ইউনিফর্মের গুরুত্ব` সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ধারণা দেয়। বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটে দাঁড়িয়ে থেকেও তত্বাবধান করে তিনি।

শিক্ষার্থীদের ক্লাস রুমে মোবাইল ফোন নিয়ে আসতে বারণ করে সে। ফোন নিয়ে এলে সেটা কেড়ে নিয়ে ডিনের রুমে জমা দেওয়ার হুমকিও দেয় জুরেনি।

ভিডিও দেখুন:

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন