please click here to view dainikshiksha website

বেত্রাঘাতে ছাত্রের চোখ নষ্ট : শিক্ষক কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ৯, ২০১৭ - ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ
dainikshiksha print

বেত্রাঘাতে স্কুলছাত্রের চোখ নষ্ট হওয়ার অভিযোগে বেপজা পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের গণিত শিক্ষক মো. আরিফ বিল্লাহকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আহত ছাত্র মো. মাশরাফুল আল কারীব বেপজা পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র।

শিক্ষকের কাঁটাতারে প্যাঁচানো বেত্রাঘাতে স্কুলছাত্রের চোখ নষ্ট হওয়ার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় এই নির্দেশ দেন আদালত। গতকাল তাকে আদালতে হাজির করলে বিচারক অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ইপিজেড থানায় ওসি মো. সৈয়দ আহসানুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত সোমবার রাতে ইপিজেড থানা পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে মাশরাফুলের বাবা বলেন, তার ছেলের বাম চোখের কর্নিয়া গুরুতর জখম হয়েছে। যার ফলে তার বাম চোখের দৃষ্টিশক্তি ধিরে ধিরে হারিয়ে ফেলছে। তবে অপারেশন হলে হয়তো সে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেতে পারে, আবার তার উল্টোও হতে পারে।

এ সময় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অন্যসব ছাত্রের মতো আমার ছেলেও সেদিন কোচিং করতে যায়। সুস্থ ছেলে আজ বাম চোখ দিয়ে কিছুই দেখতে পাচ্ছে না। আমি এই শিক্ষকের কঠিন বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

মাশরাফুলের বাবার দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৯ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ৮ম শ্রেণীর বিশেষ কোচিং ক্লাস চলাকালে একটি অঙ্ক করতে গিয়ে ভুল করে মাশরাফুল।

এতে ওই গণিত শিক্ষক উত্তেজিত হয়ে চিকন কাঁটাতার প্যাঁচানো বেত দিয়ে উপর্যুপরি মাশরাফুলকে বেত্রাঘাত করতে থাকে। এক পর্যায়ে তারযুক্ত বেতের আঘাতে তার বাম চোখ যখম হয়ে লাল বর্ণ ধারণ করে। ছেলেকে তার সহপাঠীরা বাসায় নিয়ে আসলে তার চোখের জখম গুরুতর মনে হলে তাৎক্ষণিকভাবে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

পরে চমেক চিকিৎসকরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ অপটোলজিতে পাঠানোর জন্য পরামর্শ দেয়। এরপর মাশরাফুলের উন্নত চিকিৎসার জন্য শেভরন আই এবং ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতাল লিমিটেডে চিকিৎসা দেয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ২৪টি

  1. মো:সরওয়ার উদ্দীন,সিনিয়র সহ:শিক্ষক(ইংরেজী)বেংগুরা সি:মাদ্রাসা,বোয়ালখালী,চট্টগ্রাম says:

    কাজটা ভাল হয় নাই, ক্ষতিপূরণ দেওয়া উচিৎ

  2. মোঃ আবুল কালাম ,সহকারী প্রধান শিক্ষক,পি.কে.বি.স্কুল এন্ড কলেজ,নবাবগঞ্জ,ঢাকা । says:

    এরাই শিক্ষক নামের কলঙ্ক -সাজা সঠিক হয়েছে ।

  3. মো: আইয়ুব আলী says:

    বেহুদা শিক্ষক মনে হয় মাতাল ছিল।

  4. moniruzzaman;bezpara hayatunnesa dakhil madrasah.koyra; khulna says:

    May Allah help.the students.

  5. মো: আবুল কাশেম সহকারী শিক্ষক লাকেশ্বর দাখিল মাদ্রাসা ছাতক সুনামগঞ্জ says:

    এটা অমানবিক তাই উপযুক্ত শাস্তি হউক। ছাত্রছাত্রীদের জীবন গড়ার দায়িত্বে নিয়োজিত জীবন নষ্ট করার জন্য নয়।

  6. লিটন আহমেদ says:

    যে দেশে শিক্ষকদের সম্মান নেই সেখানে উন্নত শিক্ষা আশা করা যায়না ।

  7. মোঃ শফিকুল ইসলাম, সহঃশিক্ষক। বাংগালপাড়া ইসলামিয়া দাঃমাঃ অষ্ঠগ্রাম, কিশোর গঞ্জ। says:

    এই ভাবে প্রহার করা শিক্ষক এর উচিত হয়নি।

  8. MD.SHAHIDUL ISLAM, Senior Assi. Teacher,Chapadaha B.L. High School,GAIBANDHA. says:

    শান্তি পাওয়ার যোগ্য

  9. Md. Ziaur Rahman, Lecturer (English) Sholtohori Alim Madrasah, Thakurgaon says:

    He is the black sheep in the name of a teacher. We want justice so that no other students become victim of such kind of cruelty any more.

  10. হুমায়ুন কবির says:

    এই নির্মমতা-নির্দয়তার জন্যে শিক্ষকের মুখোশধারি এই নরপশুকে প্রকাশ্যে গুলী করে হত্যা করা হোক।

  11. Md.Nazmul Hassan says:

    ঐ শিক্ষকের উপযুক্ত শাস্তি চাই।

  12. শওকত আলী বাংগালপাড়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা অষ্টগ্রাম কিশোরগন্জ says:

    আপনার মন্তব্যmmmm

  13. শওকত আলী বাংগালপাড়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা অষ্টগ্রাম কিশোরগন্জ says:

    শিক্ষকের কাজ ঠিক হল না।

  14. Ashraful Anik says:

    সাথে প্রধান শিখ্খকের ও সাস্তি হয়া উচিত, উনি কোচিং এর ভাগ নেন অথচ শিখ্খক শ্রেনীতে বেত ব্যাবহার করেন। উনি তা দেখেন না কেন?

  15. মো : হারুন অর রশিদ says:

    পাগলের মত মারা শিক্ষকের কাজ নয়। এই শিক্ষক কি সব বিষয়ে দক্ষ ছিল ? তাকে শিক্ষক পেশা থেকে বাদদিয়ে সাস্থি দাও।

  16. আবদুস ছাত্তার, প্রভাষক, এম ই এইচ আরিফ কলেজ, গাজীপুর says:

    শিক্ষকের উচিত ছিল অংক বুঝিয়ে দেয়া কিন্তু তা নাকরে উল্টো শাস্তি দিল!!!

  17. Md Rafiqul Alam. Assistant Headmaster, Nayachar Bazar girls High school, Rajibpur, Kurigram says:

    Kaj ta thik hoy ni Sir. A ki korlen apni.

  18. প্রভাষক মাহবুব এ খোদা মৌখাড়া মহিলা কলেজ নাটোর says:

    এই শিক্ষক মানুষ নয়।ওর জন্য কারাগার উত্তম স্হান।

  19. Rafiqul islam says:

    Ato rag kora teacherer thikna

  20. সাইফুল ইসলাম|সহকারী শিক্ষক ,পাটুলী উচ্চ বিদ্যালয় ,ফুলবাড়ীয়া,ময়মনসিংহ| says:

    এভাবে বেহুশ হয়ে মারা ঠিক হয়নি |

  21. কাসেদ মিঞা says:

    শিক্ষকতার মত মহান পেশায় থেকে বর্তমানে নিজেদের শিক্ষক হিসাবে অনেকেই পরিচয় দিতে লজ্জাবোদ করেন কারন হিসাবে তারা মনে করেন টাকার বিনিময়ে নিয়োগ প্রাপ্ত অযোগ্য চিটারদের দ্বারা ধর্ষণ,খুনসহ নানা অপকর্ম হয়ে থাকে।যার নতুন আর একটি নিকিষ্টি উদাহরণ হল তারকাটা পেচানো বেতদিয়ে মেরে ছাত্রের চোখ অন্ধ করে দেওয়া।এখন উচিত যদি ঐ ছাত্রের ছোখ নষ্ট হয় তাহলে মাতাল শিক্ষকের চোখ নিয়ে ছাত্রের চোখে লাগিয়ে দেওয়া।

  22. মো:সাইফুল ইসলাম,অধ্যক্ষ কোহিনৃর হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ,তরগাও,কাপাসিয়া,গাজীপুর। says:

    শিক্ষক ছাত্রদের মারদোর করে ছাত্রদের উপকারের জন্য।কোনশিক্ষক তার ছাত্রকে এভাবে পিটাতে পারেনা। এইগঠনার সষ্ঠু তদন্ত করা উচিৎ। বেতে কাটাতার পেচানোর অপরাদে তার সাজা হওয়া উচিৎ।

  23. হাজী মোঃ শামীম উজ্জামাম says:

    কোন শিক্ষক ইচ্ছা করে এমন কাজ করে না। হাঠাৎ করেই এমনটি হয়ে গেছে। তাই শিক্ষককে এমন কুটু বাক্য বলা ঠিক হবে না।

  24. ABU SUFIAN.. assistant teacher..Patanusher high school. Kamalgonj.Moulvibazar says:

    ১৩/১১/১১ পরিপত্র বাতিল করে আগে সকল শাখা শিক্ষক দের এম,পি,ও দিন।
    ব্যবসায় শাখা কে প্যাটার্ন ভূক্ত শূন্য পদ করে commerce এর এম,পি,ও
    দিন।।।

আপনার মন্তব্য দিন