ব্রিটিশ এমপি হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারী - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ব্রিটিশ এমপি হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারী

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে বরিস জনসনের দল কনজারভেটিভ পার্টি। এছাড়া শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এতে এমপি হিসেবে নির্বাচিত হলেন ৪ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নারী। তারা হলেন টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, রূপা হক, রুশনারা আলী ও আফসানা বেগম।

আজ শুক্রবার প্রকাশিত নির্বাচনের সর্বশেষ ফলাফলে দেখা গেছে, ৬৫০টি আসনের মধ্যে ৬৩৫টি আসনের ভোট গণনা শেষ হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৩৫৪টি আসন পেয়ে নিরঙ্কুশভাবে বিজয়ী হয়েছে কনজারভেটিভ পার্টি। এককভাবে সরকার গঠন করতে কনজারভেটিভদের প্রয়োজন ছিল ৩২০টি আসন, যা তারা পেয়ে গেছে।

এবারের নির্বাচনে প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কনজারভেটিভ পার্টি এবং জেরেমি করবিনের নেতৃত্বাধীন লেবার পার্টি।

হ্যাম্পস্টেড এন্ড কিলবার্ন এলাকা থেকে জয় পেয়েছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত টিউলিপ সিদ্দিক। তিনি ২৮০৮০ ভোট পেয়েছেন। অন্যদিকে কনসারভেটিভ পার্টির জনি লাক পেয়েছেন ১৩৮৯২ ভোট।

নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন ১০ জন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্যক্তি। তাদের মধ্যে অন্তত চার বাঙালি নারী এবার নির্বাচিত হয়েছেন।

এদের মধ্যে আলোচনায় ছিলেন পাঁচ বাঙালি নারী। তারা হলেন- টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, রুশনারা আলী, রূপা হক, আফসানা বেগম ও ব্যারিস্টার মেরিনা মাসুমা আহমেদ। তারা পাঁচজনই লড়েছেন বামধারার রাজনীতিক দল লেবারের প্রার্থী হিসেবে।

এছাড়াও লেবার পার্টির হয়ে আবারডিন নর্থ আসনে নুরুল হক আলী ও সাউথওয়েস্ট হার্টফোর্টশায়ার আসনে আলী আখলাকুল, লিবারেল ডেমোক্র্যাটস দল থেকে কার্ডিফ সেন্ট্রাল আসনে বাবলিন মল্লিক ও উইয়ার ফরেস্ট আসনে সাজু মিয়া এবং ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের পক্ষে হ্যারো ওয়েস্ট আসনে আনোয়ারা আলী লড়েছেন।

প্রধান বিরোধীদল লেবার পার্টি পেয়েছে ২০২টি আসন। এছাড়া, স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি (এসএনপি) পেয়েছে ৪৭টি আসন এবং অন্য আরও তিনটি দল ৩২টি আসন। 

মাদরাসা শিক্ষকদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের জুনের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের জুনের এমপিওর চেক ছাড় শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর - dainik shiksha শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ - dainik shiksha তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা - dainik shiksha জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ - dainik shiksha প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান - dainik shiksha শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক - dainik shiksha বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে - dainik shiksha শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website