ব্রিটিশ কাউন্সিল বন্ধ : বিপাকে ইংলিশ মিডিয়ামের শিক্ষার্থীরা - ইংলিশ মিডিয়াম - Dainikshiksha

ব্রিটিশ কাউন্সিল বন্ধ : বিপাকে ইংলিশ মিডিয়ামের শিক্ষার্থীরা

দৈনিক শিক্ষা ডেস্ক |

ss

নিরাপত্তাজনিত কারণে হঠাৎ করেই বাংলাদেশে বন্ধ হয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিলের সব অফিস। আর এ কারণে দেশের ইংলিশ মিডিয়ামের কয়েক লাখ ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেল শিক্ষার্থী পড়েছেন বিপাকে। কারণ, ইংলিশ মিডিয়ামের ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার আয়োজন করে ব্রিটিশ কাউন্সিল। ফলে শিক্ষার্থীরা সময়মত পরীক্ষা দিতে পারবেন কিনা তা নিয়ে পড়েছেন দুঃশ্চিন্তায়।

বুধবার দুপুরে প্রতিষ্ঠানটি গণমাধ্যমে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বন্ধ ঘোষণা করার পর বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ভিড় দেখা যায় ব্রিটিশ কাউন্সিলের সামনে। পূর্ব ঘোষণা ছাড়া হঠাৎ করে সব অফিস বন্ধ হয়ে যাওয়ায় নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা হবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন ভিড় জমানো শিক্ষার্থীরা।

রয়্যাল চার্টার দ্বারা পরিচালিত যুক্তরাজ্যভিত্তিক দাতব্য সংস্থা ব্রিটিশ কাউন্সিল। পৃথিবীর শতাধিক দেশে এর কার্যক্রম রয়েছে। প্রায় দুই হাজার শিক্ষকসহ আট হাজার কর্মী রয়েছে সংস্থাটির। দেশেও বর্তমানে মোট চারটি (ঢাকায় দুটি, চট্টগ্রাম ও সিলেটে একটি করে) অফিস রয়েছে।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার সংলগ্ন ফুলার রোডে ব্রিটিশ কাউন্সিলের অফিসে গিয়ে দেখা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলসহ বিভিন্ন কোর্সের শিক্ষার্থীরা এসে ভিড় জমিয়েছেন। খোঁজ নিতে এসেছেন কবে খুলবে প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু এসেও কোনও লাভ হয়নি,তারা প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ দেখতে পান। ধানমণ্ডি ও গুলশান অফিসেও দেখা যায় একই চিত্র। নিরাপত্তা কর্মীদের পাহারায় অফিসগুলোতে তালা বন্ধ থাকায় কোনও তথ্য দেওয়া হচ্ছে না। প্রতিটি অফিসের সামনে বন্ধের বিজ্ঞপ্তি লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ফুলার রোডে ব্রিটিশ কাউন্সিলের অফিসে আসা ‘ও’ লেভেলের পরীক্ষার্থী সফিউল আলম বলেন, আগামী ডিসেম্বর মাসে আমার পরীক্ষা শুরু কথা রয়েছে। তাই রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। কিন্তু গতকাল হঠাৎ একটি অনলাইন পত্রিকায় দেখলাম ব্রিটিশ কাউন্সিল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তারপর থেকে আমি দুশ্চিন্তায় আছি। তিনি আরও বলেন, এসব পরীক্ষায় রেজিস্ট্রেশন করতে অনেক টাকা খরচ হয়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা না হলে রেজিস্ট্রেশন বাতিল হয়ে যায়। এসব বিষয় জানতে এখানে এলেও কিছুই জানতে পারলাম না। ‘এ’ লেভেল পড়ুয়া এক ছাত্রীর মা জেসমিন আরা বলেন, সামনে আমার মেয়ের পরীক্ষা। এখন কি হবে বুঝতে পারছিনা।

রাজধানীর স্কলাসটিকায় ‘এ’ লেভেলে পড়ুয়া সজীব হোসাইন নামে ছাত্র বলেন, হঠাৎ করেই ব্রিটিশ কাউন্সিল বন্ধ হয়ে যাওয়াতে বেশ ঝামেলায় পড়তে হবে বলে মনে হচ্ছে। দেশের যে অবস্থা তাতে নিরাপত্তারও দরকার রয়েছে। তবে নিরাপত্তা ব্যবস্থা যত দ্রুত সম্ভব জোরদার করে অফিসটি খুলে দেওয়া উচিত। অন্যদিকে বেশ কয়েকজনকে দেখা গেছে, যারা বিদেশে স্কলারশিপ নিতে আগ্রহী। তারা ব্রিট্রিশ কাউন্সিলের অধিনে আইইএলটিএ, জিমেট, জিআরইসহ বিভিন্ন কোর্সের রেজিস্ট্রেশন করেছেন। কেউ কেউ খুব শিগগিরই তাদের ক্লাস শুরু করতে চেয়েছিল, আবার অনেকেরই ক্লাস শেষ পর্যায়ে। কিন্তু এখন মাঝ পথে এসে তাদের পরিকল্পনা সব থমকে গেলো বলে মনে করছেন অনেকেই। আবার বৃহস্পতিবার অনেকেরই পরীক্ষা ছিল বলেও জানান তারা।

গত বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের পরিচালক বারবারা উইকহ্যাম বলেন, আমরা লক্ষ্য করেছি, সাধারণ জনগণ নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন এবং তাদের মধ্যে আতঙ্ক দিন দিন বাড়ছে। ফলে বাংলাদেশে ব্রিটিশ কাউন্সিল সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হলো। বিজ্ঞপ্তিটিতে আরও বলা হয়েছে, সাময়িকভাবে বন্ধ থাকা অবস্থায় আমাদের গ্রাহকরা যদি কোনও ধরনের তথ্য জানতে চান, তবে তারা [email protected] -এ ইমেইল করে জানতে পারবেন।

এদিকে বৃটিশ কাউন্সিলের হেড অব মার্কেটিং অ্যান্ড কমিউনিকেশন আর্শিয়া আজিজ এক বিবৃতিতে বলেন, এই মুর্হূতে আমাদের অফিসের নিরাপত্তা রিভিউ (মূল্যায়ণ) করছি। তারা সিকিউরিটি দেখবে, কোথাও সিকিউরিটি উন্নত করার প্রয়োজন হলে সেগুলো আমাদের জানাবে। আইইএলটিএস সহ অন্যান্য পরীক্ষা যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে তিনি বলেন, অফিস বন্ধের ফলে পরীক্ষার ওপর কোনও প্রভাব পড়বে না। কারণ পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন অনলাইনে এবং ফি ব্যাংকে জমা দেওয়ার সব ব্যবস্থা আছে। এই পরীক্ষা নিয়ে চিন্তা করার কোনও কারণ নেই বলে জানান তিনি।

তবে যুক্তরাজ্যের ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর কালচারাল অ্যান্ড এডুকেশনাল অপরচ্যুনিটিসের এক বিবৃতিতে বলা হয়, নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা তৈরি হয়ে গেলেই ঢাকায় ব্রিটিশ কাউন্সিলের অফিস খুলে নিয়মিত কার্যক্রম চালু করা যাবে বলে আশা প্রকাশ করা যায়।

ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি - dainik shiksha নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত - dainik shiksha ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website