ব্র্যাকের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

ব্র্যাকের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক |

গত বৃহস্পতিবার রাতে আন্দোলনের স্থগিতের ঘোষণা দিয়েও শুক্রবার সকাল থেকে আন্দোলনে নামে ব্র্যাকের শিক্ষার্থীরা। শনিবার ক্যাম্পাসের ৩নং ভবনের সামনে শিক্ষার্থীরা জড়ো হন। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আজকের মধ্যে রেজিস্ট্রার বরখাস্ত না হলে আগামীকাল কঠোর কর্মসূচি আসবে।

তবে সকাল থেকে ক্যাম্পাসের সামনে শিক্ষার্থীরা জড়ো হলেও আন্দোলনকারীদের সংখ্যা আজ অনেক কম। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘টানা কয়েকদিন আন্দোলন করায় অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাই আজ অনেকে আসেনি। তবে কাল আন্দোলন আরও শক্তিশালী হবে।’

শিক্ষার্থী কাজী ফারহান বলেন, ‘শিক্ষক ফারহানকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জোর করে বের করে দেওয়ার যে ষড়যন্ত্র হয়েছে তা প্রমাণ করবে তদন্ত কমিটি। কিন্তু রেজিস্ট্রারসহ অন্য তিন কর্মকর্তার কর্মকাণ্ড চন্দ্র-সূর্যের মত সত্য। তারা যা করেছে তার প্রমাণ সবার হাতে রয়েছে। ফলে এই তিনজনের বরখাস্তের বিষয়ে কোনও আপোষ করবো না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজকের মধ্যে যদি দাবি আদায় না হয় তাহলে আরও বড় কর্মসূচি আসবে আগামীকাল। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তা বাতিল করেছে। আগামীকাল থেকে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা শুরু হবে। আমরা কালও কোনও পরীক্ষায় অংশ নেব না।’

আন্দোলনকারীদের অন্যতম মুখপাত্র কামরুন নাহার ডানা বলেন, ‘রেজিস্ট্রার আফজালের অধীনে আমরা কোনও পরীক্ষা দেব না। দাবি না মানলে কাল ফের আন্দোলনে নামব।’

শিক্ষার্থীদের দাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ শাহুল আফজাল, সহকারি রেজিস্ট্রার মাহি উদ্দিন এবং অফিস অব কো-কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিজের সিনিয়র অফিসার জাভেদ রাসেলকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়টির নিরাপত্তাকর্মীদের হাতে ছাত্রীদের লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনা, যৌন নিপীড়নের অভিযোগটি তদন্ত করতে হবে। এবং তদন্ত চলাকালে ফাইনাল পরীক্ষাসহ সব ধরনের অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম স্থগিত রাখতে হবে।

শিক্ষার্থীদেকে হয়রানি করার কারণে উপাচার্য সৈয়দ সাদ আন্দালিবকে শিক্ষার্থীদের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

আন্দোলন চালাকালীন শিক্ষার্থীরা কোনও পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। ফলে আলোচনার ভিত্তিতে নতুন করে পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করে পরীক্ষা নিতে হবে।

স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ১৪ মার্চ - dainik shiksha স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ১৪ মার্চ এনটিআরসিএর ভুল, আমি পরিপত্র মানি না.. (ভিডিও) - dainik shiksha এনটিআরসিএর ভুল, আমি পরিপত্র মানি না.. (ভিডিও) এমপিওভুক্তির নামে প্রতারণা, মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha এমপিওভুক্তির নামে প্রতারণা, মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি শিক্ষকদের কোচিং করাতে দেয়া হবে না: শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের কোচিং করাতে দেয়া হবে না: শিক্ষামন্ত্রী জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী - dainik shiksha জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী ৬০ বছরেই ছাড়তে হবে দায়িত্ব - dainik shiksha ৬০ বছরেই ছাড়তে হবে দায়িত্ব ফল পরিবর্তনের চার ‘গ্যারান্টিদাতা’ গ্রেফতার - dainik shiksha ফল পরিবর্তনের চার ‘গ্যারান্টিদাতা’ গ্রেফতার নকলের সুযোগ না দেয়ায় শিক্ষিকাকে জুতাপেটা - dainik shiksha নকলের সুযোগ না দেয়ায় শিক্ষিকাকে জুতাপেটা প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা - dainik shiksha প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website