please click here to view dainikshiksha website

ভর্তি যুদ্ধ শেষে পাঠদান নিয়ে শংকা বরিশালের ২ সরকারি স্কুলে

বায়েজীদ পান্নু, বরিশাল অফিস | ডিসেম্বর ২৮, ২০১৫ - ৭:১৬ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

বরিশাল রুপাতলী ও কাউনিয়া এ দুটি নতুন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভর্তি যুদ্ধ আজ সোমবার শেষ হয়েছ্। সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত বরিশাল জিলা স্কুল, সরকারি বালিকা বিদ্যালয় ও বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বিদ্যালয় দুটির ফলাফল প্রকাশ করা হবে আগামী ৬ জানুয়ারি। তবে নতুন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ক্লাশ শুরু হওয়া নিয়ে অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে । সেই সাথে বিদ্যালয় দুটিতে ভর্তি প্রাপ্তদের পাঠদান নিয়েও ।

ববির ভিসি ড. এ.এস.এম ইমামুল হক সাফ জানিয়েছেন তাদের অস্থায়ী ক্যাম্পাস (জিলা স্কুল) মন্ত্রনালয় থেকে কোন ত্যাগের নির্দেশ নেই ।

তিনি জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে নতুন বিদ্যালয়ের ক্লাশ শুরু করার যে সিদ্ধান্ত হয়েছে, তা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। তিনি আরও জানান নতুন বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তার প্রতিষ্ঠানে ক্লাস নিতে ১৫ ডিসেম্বর চিঠি পেয়েছেন।

এ দুটি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, সরকারের নিয়মতান্ত্রিক ভাবে পর্যায়ক্রমে বিদ্যালয় দুটির কার্যক্রম করা হবে । বর্তমানে নিতুন বিদ্যালয় দুটির নির্মান কাজ চলছে।এ অবস্থায় নতুন কিদ্যালয় দুটির পাঠদানের স্থান সংকটের বিষয়টি শিক্ষামন্ত্রনালয়কে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে।

এদিকে নতুন বিদ্যালয় দুটিতে প্রথম বছরে ভর্তি নেয়া হবে ৬ ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত । প্রত্যেক শ্রেণিতে আসন রয়েছে ৬০ জনের। এরমধ্যে ৩০ জন মেয়ে এবং ৩০ জন ছেলে শিক্ষার্থী। দুটি বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণিতে ৩৬০ আসনের বিপরীতে ২ হাজার ৭৯০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় যুদ্ধে অংশ নিয়েছে।

কাউনিয়া সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দায়িত্বরত প্রধান শিক্ষক শংকর কুমার পাল জানান, তার বিদ্যালয় ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এতে প্রত্যেক শ্রেণিতে ৬০ টি আসন রয়েছে। ৯ম শ্রেণির ভর্তি জেএসসি ও জেডেসির পরীক্ষার ফলাফলের পর আবেদনের ওপর ভিত্তি করে ভর্তি করা হবে। ৯ম শ্রেণিতে ২৭২ জন আবেদন করছে বলেন তিনি।

রুপাতলী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দায়িত্বরত প্রধান শিক্ষিকা পাপিয়া জানান, তার বিদ্যালয় ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণিতে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা । এখানেও প্রত্যেক শ্রেণিতে৬০ টি আসন রয়েছে। এতে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণিতে ১৮০ টি আসনের বিপরীতে ১৫৮৪ জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষা অংশ গ্রহণ করছে । আর ৯ম শ্রেণির ভর্তি জেএসসি ও জেডেসির পরীক্ষার ফলাফলের পর আবেদনের ওপর ভিত্তি করে ভর্তি করা হবে। এখানে ৯ম শ্রেণিতে ৩০০ জন আবেদন করছে বলেন তিনি।

গত ২ ডিসেম্বর শিক্ষামন্ত্রনালয় সরকারি দুটি বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রদান করেন। পরে শিক্ষা মন্ত্রনালয় ভর্তি প্রক্রিয়া কার্যক্রমের অনুমতি প্রদান করছেন বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তরকে । এতে গত ১৭ ডিসম্বর বরিশাল জেলা প্রশাসক ড. গাজী সাইফুজ্জামান নতুন দুটি বিদ্যালয়ের ভর্তির কার্যক্রম উদ্বোধন করেন এবং ২৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন জমার নোটিশ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় ।

এদিকে নতুন বিদ্যালয় দুটির ভবন নির্মান কাজ চলমান। অপরদিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের চলমান রয়েছে । বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায় ২০১১ সনে জিলা স্কুলের প্রস্তাবিত কলেজের ভবন বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে কার্যক্রম শুরু হয় । যাহা এখনও চলমান রয়েছে।

বায়েজীদ পান্নু

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন