ভিকারুননিসার ছাত্রীরা আজও আন্দোলনে, পরিচালনা পর্ষদের পদত্যাগ দাবি - স্কুল - Dainikshiksha

ভিকারুননিসার ছাত্রীরা আজও আন্দোলনে, পরিচালনা পর্ষদের পদত্যাগ দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক |

রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বন) তৃতীয় দিনের মতো বেশ কিছু ছাত্রী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির মূল ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে। ছয়দফা দাবি পূরণ না হলে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। 

আন্দোলনকারী ছাত্রীরা বলছে, তারা যে ছয় দফা দাবি জানিয়েছে, তার মধ্যে কিছু বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। এতে তারা সন্তুষ্ট। বাকি দাবিগুলোরও বাস্তবায়ন চায় তারা।

প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নেওয়া নবম ও দশম শ্রেণির তিন ছাত্রী আজ বেলা ১২টার দিকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলে। তারা জানায়, অরিত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় প্ররোচনাকারী হিসেবে প্রতিষ্ঠানটির ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ, শাখাপ্রধান ও তার এক শ্রেণি শিক্ষককে চিহ্নিত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি। তিনজনকেই গতকাল বুধবার বরখাস্ত করা হয়েছে। এই পদক্ষেপে তারা সন্তুষ্ট।

তিন ছাত্রী বলে, তাদের আরও কিছু দাবি রয়েছে। তার মধ্যে পরিচালনা কমিটির সদস্যদের পদত্যাগ এবং অরিত্রীর বাবা-মায়ের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের জন্য তাঁদের কাছে কর্তৃপক্ষের প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থনার বিষয়টিও রয়েছে। তারা দ্রুত এই দুটি দাবির বাস্তবায়ন দেখতে চায়।

কোনো শিক্ষার্থীকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হবে না—এমন নিশ্চয়তা দেওয়া, কথায় কথায় শিক্ষার্থীদের টিসির হুমকি না দেওয়া, প্রত্যেক ক্লাসে মনোবিদের ব্যবস্থা রাখা, আন্দোলনকারী কারও বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা না নেওয়া প্রভৃতি দাবির বিষয়ে লিখিত প্রতিশ্রুতি চায় ছাত্রীরা।

তিন ছাত্রী বলে, দাবিগুলো তারা ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষকে দিয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়েও তা পাঠানো হবে। দাবি পূরণ না হলে তারা ক্লাসে ফিরবে না। পরীক্ষা দেবে না।

বরখাস্ত হওয়া তিন শিক্ষকের বেতন-ভাতার সরকারি অংশ গতকাল বন্ধ করা হয়েছে। গত রাত ১১টার দিকে রাজধানীর উত্তরা থেকে অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত সোমবার শান্তিনগরের বাসায় আত্মহত্যা করে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারী। এ ঘটনায় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ, শাখাপ্রধান ও এক শ্রেণিশিক্ষককে আসামি করে মামলা হয়েছে। ঘটনার পর প্রতিষ্ঠানটির ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকেরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

বিকেল সাড়ে চারটার দিকে পরিচালনা কমিটির সভাপতি গোলাম আশরাফ তালুকদার আন্দোলনকারী ছাত্রীদের সামনে এসে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ীই পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্ত নেওয়ার ঘোষণা দেন। তবে সব দাবি পূরণ না হলে ছাত্রীরা আজ বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিনের মতো অবস্থানের ঘোষণা দেয়।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) বিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পক্ষে ছাত্রী প্রতিনিধি আনুশ্কা রায় ও অধরা অঞ্জলী বলেন, যেহেতু আমরা বর্তমান পরিচালনা পর্ষদের পদত্যাগ দাবি করছি সুতরাং তাদের কাছে এর কোনোটিরই প্রতিশ্রুতি চাই না। আমরা চাই শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে পরিপূর্ণভাবে হস্তক্ষেপ করুক। তারা নতুন পরিচালনা পর্ষদ গঠন করুক। সেই পর্ষদই নতুন করে প্রিন্সিপাল নিয়োগসহ অন্যান্য সমস্যার সমাধান করবে।

পেন্সিলে লেখা যাবে না স্কুল ভর্তি পরীক্ষায় - dainik shiksha পেন্সিলে লেখা যাবে না স্কুল ভর্তি পরীক্ষায় আগামী বছর সব স্কুলে একযোগে প্রাক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ - dainik shiksha আগামী বছর সব স্কুলে একযোগে প্রাক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ ৬০ লাখ টাকার আর্থিক অনিয়ম করে ফাঁসছেন প্রধান শিক্ষক - dainik shiksha ৬০ লাখ টাকার আর্থিক অনিয়ম করে ফাঁসছেন প্রধান শিক্ষক তথ্য গোপন করে উচ্চতর স্কেলে বেতন, এমপিও বাতিল হচ্ছে শিক্ষকের - dainik shiksha তথ্য গোপন করে উচ্চতর স্কেলে বেতন, এমপিও বাতিল হচ্ছে শিক্ষকের এক নজরে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার নম্বর বিভাজন - dainik shiksha এক নজরে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার নম্বর বিভাজন প্রাথমিক সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষার ফল ২৪ ডিসেম্বর - dainik shiksha প্রাথমিক সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষার ফল ২৪ ডিসেম্বর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website