please click here to view dainikshiksha website

মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের সব শিক্ষকের সনদ যাচাইয়ের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ৮, ২০১৭ - ১০:০০ পূর্বাহ্ণ
dainikshiksha print

ভুয়া সনদে চাকরি নেওয়ার অভিযোগে রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সব শিক্ষকের সনদ যাচাইয়ের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। জানা গেছে, ওই স্কুলের প্রায় অর্ধশত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরি করছেন বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ আসে। পরে মন্ত্রণালয় অভিযোগ আমলে নিয়ে সব শিক্ষকের সনদ যাচাই  করতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদদফতরকে (মাউশি) নির্দেশ দিয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব (মাধ্যমিক) সালমা জাহান বলেন, ‘আমরা প্রতিষ্ঠানটির অনেক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরি নেওয়ার অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ওই প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষকের সনদ যাচাই করতে মাউশিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দিতে তাদের দুই সপ্তাহের সময় দেওয়া হয়েছে।’

এর আগে গত মে মাসে এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষামন্ত্রণালয় স্কুলটির মতিঝিল শাখার সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুস ছালাম খানের বিএড সনদ ভুয়া বলে প্রমাণিত হয়। এরপর মাউশি ছালাম খানের এমপিও স্থগিত করে। একই সঙ্গে তাকে চাকরিচ্যুত করতে ম্যানেজিং কমিটিকে চিঠি দেয় ঢাকা শিক্ষাবোর্ড। এই নির্দেশনার বিরুদ্ধে ছালাম খান হাইকোর্টে রিট আবেদন করলে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন আদালত।

এ ঘটনার পরে প্রতিষ্ঠানটির আরও অনেক শিক্ষকের বিরুদ্ধে জাল শিক্ষক নিবন্ধন সনদ দিয়ে চাকরি নেওয়ার অভিযোগ জমা পড়ে শিক্ষামন্ত্রণালয়ে। এসব অভিযোগ আমলে নিয়ে মন্ত্রণালয় তদন্ত করতে মাউশিকে নির্দেশ দিয়েছে। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত শিক্ষকদের এমপিও বাতিলসহ বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ৪টি

  1. এমদাদুল হক এখলাছ says:

    এইভাবে সারা বাংলাদেশে বহু Bed,নিবন্ধন সনদ,ভুয়া computer certificate, physical সনদ, জাল মুক্তি যোদ্ধা সনদ আছে।এছাড়া নিয়ম বহির্ভূত অনেকে time scale করিয়েছেন।অনেকে আবার time scale এর পড়ে Bed এর scale করিয়েছেন যেটা সম্পূর্ণ অবৈধ।এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হোক।উপযুক্ত শিক্ষিত বেকারদের চাকরী এবং seqaep act দের parmanent করার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।আর এসব বিষয় লেখালেখির জন্য সম্পাদক sir কে অনুরোধ করছি।

  2. Subrata says:

    অবাক হওয়ার কিছুই নেই। দেশে হাজার হাজার প্রতিষ্ঠানে এভাবে লাখ লাখ শিক্ষক দিনের পর দিন ভূয়া সার্টিফিকেট দিয়ে শিক্ষকতা চালিয়ে যাচ্ছে। মন্ত্রণালয় এগুলো জেনেও চুপচাপ থেকে যাচ্ছে দিনের পর দিন। দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে এরূপ ছেলেখেলা জাতিকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে তা কী জানা নয়!

  3. রিপন আহমদ says:

    অবাক হওয়ার কিছুই নেই। দেশে হাজার হাজার প্রতিষ্ঠানে এভাবে লাখ লাখ শিক্ষক দিনের পর দিন ভূয়া সার্টিফিকেট দিয়ে শিক্ষকতা চালিয়ে যাচ্ছে। মন্ত্রণালয় এগুলো জেনেও চুপচাপ থেকে যাচ্ছে দিনের পর দিন। দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে এরূপ ছেলেখেলা জাতিকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে তা কী জানা নয়! এভাবে দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্টারে শিক্ষকদের সনদ যাচাই করা হক এবং প্রকৃত সনদ ধারিদে সুযোগ করে দেওয়া হক

  4. মোঃমশিউর রহমান। says:

    আমার মনে হয় দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এর শিক্ষকদের সার্টিফিকেট গুলি আবার যাচাই করে দেখা উচিত।

আপনার মন্তব্য দিন