মন্ত্রীরা আসবেন, তাই শিক্ষা ভবন ফিটফাট - বিবিধ - Dainikshiksha

মন্ত্রীরা আসবেন, তাই শিক্ষা ভবন ফিটফাট

নিজস্ব প্রতিবেদক |

হঠাৎ বাহ্যিক চেহারা বদলে গেছে শিক্ষা ভবনের। আজ বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল শিক্ষা ভবনে আসছেন। এই খবরে বদলে গেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাহ্যিক চিত্র।হঠাৎ সর্বত্র পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার ছাপ। নতুন দেয়া রংয়ে দেয়াল ঝকঝক করছে। 

দুর্নীতিবাজ, বিতর্কিত ও যুগ যুগ ধরে শিক্ষা ভবনে থাকা কর্মকর্তারা বুলি পাল্টে নতুন মন্ত্রীদের বরণ করার দায়িত্ব পেয়েছেন। কেউ পেয়েছেন ফুলের টব কেনার কেউ পেয়েছেন দেয়ালে রং লাগানোর কাজ দেখভাল করার। কিন্তু ঘুষ লেনদেন বন্ধ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্য্যদের নিয়ে কর্টূক্তি মামলার আসামীদের শিক্ষা ভবনের কতিপয় কর্মকর্তার সাথে গোপন বৈঠক,  শিক্ষকদের ভোগান্তি কমানো ও দালালদের উৎপাত বন্ধ করার কোনো উদ্যোগ নেই।

নাম প্রকাশে অনিচছুক শিক্ষা অধিদপ্তরের একাধিক কর্মকর্তা দৈনিক শিক্ষাকে বলেন, ভিকারুননিসা ও আইডিয়াল স্কুলে ভর্তির দালাল, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ডিজিটাল অপপ্রচার ও কটূক্তি করে আড়াই মাস জেলখাটা এক দালালকে আর্থিকসহ বিভিন্নভাবে সাহায্য করেন শিক্ষা ভবনের অন্তত দশজন শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা ও কর্মচারী। গত দশ বছর যাবত তারা শিক্ষা অধিদপ্তর, পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরেই আছেন। এছাড়া এমপিও দালাল ও কর্মকর্তাদের সিন্ডিকেট সক্রিয় আছে। সদ্য সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর সময়ে যারা ধরাকে সরা জ্ঞান করেছেন তারা সবাই শিক্ষা অধিদপ্তরের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন।  

এমতাবস্থায় শিক্ষামন্ত্রী  এবং উপমন্ত্রী বৃহস্পতিবার দুপুরে শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করবেন। মন্ত্রী হওয়ার পর এটাই তাদের প্রথম শিক্ষা অধিদপ্তরে আগমন। অধিদপ্তর সূত্র দৈনিকশিক্ষা ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

দায়িত্ব গ্রহণের পর গত ১৬ জানুয়ারি মন্ত্রী ও উপমন্ত্রী  সচিবালয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন শিক্ষার বিভিন্ন  অধিদপ্তর ও সংস্থা পরিদর্শনে যাবেন তাঁরা । ওই ঘোষণার অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার শিক্ষা ভবন পরিদর্শন করছেন দুই মন্ত্রী।

সূত্র জানায়, শিক্ষা ভবনে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ও উপমন্ত্রী অধিদপ্তরের কার্যক্রম গতিশীল এবং সেবার মান বৃদ্ধির বিষয়ে কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেবেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website