please click here to view dainikshiksha website

মাদ্রাসাছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক বরখাস্ত

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি | আগস্ট ১৫, ২০১৭ - ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ
dainikshiksha print

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের বন্দরের একটি দাখিল মাদরাসায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার বিকেলে শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন সুমনকে মাদরাসা থেকে বের করে দিয়েছে ব্যবস্থাপনা কমিটি। ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার।

তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন সুমন ওই মাদরাসার সুপারের ভাগিনা। এ কারণে তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এ কারণে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মঞ্জুরুল হক ভূঁইয়া বলেন, নন-এমপিওভুক্ত মাদরাসার শিক্ষক সাজ্জাদের কাছে কম্পিউটার শেখার জন্য এক ছাত্রী প্রাইভেট পড়ত। মাদরাসা চলাকালে গত বুধবার দুপুরে খাবারের বিরতিতে ওই ছাত্রী কম্পিউটার কক্ষে প্রবেশ করে। এ সময় শিক্ষক তাকে হয়রানি করেন। এ খবর শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। মুহৃর্তের মধ্যে তারা উত্তেজিত হয়ে ওঠে।

শিক্ষকের অপসারণ ও  শাস্তি দাবি করে। পরে সুপার মাওলানা আব্দুস ছাত্তার অভিযুক্তকে মাদরাসা থেকে বের দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ৯টি

  1. Krshibid Shahinur Islam Sumon says:

    natok naki onnokisu .valo vaba todonto kora dorkar.

  2. মুহাম্মদ সাখাওয়াত হোসাইন। প্রভাষক রাষ্টবিঞান। says:

    অপরাধ করলে তার শাস্তি হওয়া দরকার আমি মনে করি। কারন শিক্ষক জাতীর মানুষ গড়ার কারিগরি।

  3. মোঃরফিকুল ইসলাম।সহকারী শিক্ষক, আল-মাদানী দাখিল মাদ্রাসা,আশাশুনি,সাতক্ষীরা। says:

    প্রাইভেটে এমনটা ঘটে।

  4. মণি রহমান says:

    বিয়ে নয়! শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে! তাও আবার মাদ্রাসার মতো জায়গা- যেখানে কোরান-হাদিস শিক্ষা দেয়া হয়! সেখানে এমন লম্পট-চরিত্রহীন নরপশুকে প্রকাশ্যে তাৎক্ষণিক গুলী করে হত্যাই সঠিক।

  5. মো: জহিরুল ইসলাম says:

    এটা কখনোই কাম্য নয়।

  6. Md.Babul Akter,AHM,Golkhali High School,Galachipa Patiakhali says:

    should be punishment

আপনার মন্তব্য দিন