মাধ্যমিকে একীভূত শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনে বিদ্যালয় নির্বাচন শুরু - স্কুল - Dainikshiksha

মাধ্যমিকে একীভূত শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনে বিদ্যালয় নির্বাচন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক |

প্রাথমিকের পর মাধ্যমিকে একীভূত শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনে বিদ্যালয় নির্বাচনের কাজ শুরু করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। বিদ্যালয় নির্বাচনে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে তথ্য চাওয়া হয়েছে। বুধবার (১০ অক্টোবর) অধিদপ্তর থেকে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। 

অধিদপ্তরের চিঠিতে, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট-৪ প্রকল্পের আওতায় নির্দিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একীভূত শিক্ষা ব্যবস্থা প্রবর্তনের লক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্বাচিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাছাকাছি একটি করে মাধ্যমিক বিদ্যালয় নির্বাচন করে তালিকা অধিদপ্তরে পাঠাতে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে।  

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের জেলায় নির্বাচিত প্রাথমিক বিধ্যালয়ের সংলগ্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নাম, ঠিকানা, প্রধান শিক্ষকের নাম, মোবাইল নম্বর, শিক্ষার্থীর সংখ্যা, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্খীর সংখ্যা, একীভুত শিক্ষায় দক্ষ সহকারী শিক্ষকের নাম ও বিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত তথ্য পাঠাতে বলেছে অধিদপ্তর।

উল্লেখ্য, একীভূত শিক্ষা প্রক্রিয়ায় প্রত্যেক শিশুর চাহিদা ও সম্ভাবনা অনুযায়ী শিখন ও জ্ঞানার্জনের প্রতিবন্ধকতা সীমিত ও দূরীকরণের মাধ্যমে শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতি ঘটায়। এ পদ্ধতির মাধ্যমে ধর্ম-বর্ণ, ধনী-গরিব, ছেলে-মেয়ে, প্রতিবন্ধী-সুস্থসহ সকল শিশুকে একই শিক্ষক দ্বারা, একই পরিবেশে এক সাথে মানসম্পন্ন শিক্ষাদান করা হয়। 

এ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শিক্ষার বিভিন্ন চাহিদাগুলোকে সামাজিক সাংস্কৃতিক অংশগ্রহণের মাধ্যমে পরিপূর্ণ করা হয়। এ শিক্ষা ব্যবস্থা প্রত্যেক শিক্ষার্থীর সাম্যতা ও অধিকার নিশ্চিত করে। একীভূত শিক্ষা কার্যক্রমে প্রতিবন্ধীসহ প্রান্তিক শিশু ও সাধারণ শিশু একসাথে অধ্যয়ন করে। ফলে পরস্পর সম্পর্কে জ্ঞান ও শ্রদ্ধাবোধ অর্জন করতে পারে।

উল্লেখ্য, একীভূত শিক্ষা ব্যবস্থা প্রবর্তনে দেশের প্রত্যেক জেলায় একটি করে মোট ৬৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্বাচনের কাজ শেষ হয়েছে।

চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ভাতা দেয়ার আদেশ জারি - dainik shiksha চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ভাতা দেয়ার আদেশ জারি এইচএসসির ফল প্রকাশ হতে পারে ২১ জুলাই - dainik shiksha এইচএসসির ফল প্রকাশ হতে পারে ২১ জুলাই বরিশাল বোর্ডে কর্মচারীদের দুই গ্রুপের হাতাহাতি - dainik shiksha বরিশাল বোর্ডে কর্মচারীদের দুই গ্রুপের হাতাহাতি রায় অমান্য করে মাছুমকে টাইমস্কেল: বরিশাল বোর্ড কর্মচারীদের বিক্ষোভ - dainik shiksha রায় অমান্য করে মাছুমকে টাইমস্কেল: বরিশাল বোর্ড কর্মচারীদের বিক্ষোভ ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে তুলতে হবে উচ্চ মাধ্যমিকের উপবৃত্তি - dainik shiksha ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে তুলতে হবে উচ্চ মাধ্যমিকের উপবৃত্তি প্রকল্পের ৬৩ কর্মচারীকে রাজস্বখাতে পদায়ন - dainik shiksha প্রকল্পের ৬৩ কর্মচারীকে রাজস্বখাতে পদায়ন শিক্ষকের বেতের আঘাতে চোখ হারাল মাদরাসাছাত্র - dainik shiksha শিক্ষকের বেতের আঘাতে চোখ হারাল মাদরাসাছাত্র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ভর্তির যোগ্যতা নির্ধারণ - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ভর্তির যোগ্যতা নির্ধারণ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website