মানিকগঞ্জে কলেজ বানাতে চান ইংল্যান্ডের রামসগেটের মেয়র - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

মানিকগঞ্জে কলেজ বানাতে চান ইংল্যান্ডের রামসগেটের মেয়র

লন্ডন প্রতিনিধি |

ইংল্যান্ডের ইংলিশ সমুদ্র উপকূলীয় নগরী রামসগেট কাউন্সিলের মেয়র রওশন আরা দোলন জন্ম গ্রহণ করেন  মানিকগঞ্জের ইরতাকাশিমপুর গ্রামে। তাঁর পিতা প্রকৌশলী রজ্জব আলী খান উচ্চ শিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে আসেন ১৯৬৩ খ্রিষ্টাব্দে। তিনি বাবা-মার সঙ্গে ১৯৭৭ খ্রিষ্টাব্দ থেকে সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। শৈশবের পড়া-লেখা শেষে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেন রয়েল চার্টার খ্যাত ইউনিভার্সিটি অব কেন্ট থেকে। ১৯৬৫ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত এই ইউনিভার্সিটির প্রথম চ্যান্সেলর ছিলেন পঞ্চম জর্জের পুত্রবধূ প্রিন্সেস ম্যারিনা।

মিস রওশন আরা উচ্চ শিক্ষা শেষে যুক্তরাজ্যের জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল লেবার পার্টির সাথে যুক্ত হয়ে নানা সমাজ সেবামূলক কাজ শুরু করেন। এরপর তিনি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে লেবার পার্টি থেকে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন লাভ করেন। এই নির্বাচনে তিনি প্রথমবারের মতো এশীয় বংশোদ্ভূত কোনো মুসলিম নারী ৫৬ জন কাউন্সিলরের মধ্যে সর্বাধিক ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। বিশেষ করে এই নগরীর জনসংখ্যা প্রায় ৪২ হাজার। এরমধ্যে ৩৮ হাজার ৭১০ জন অর্থাৎ প্রায় ৯৭ শতাংশ ইংলিশ শেতাঙ্গ কমিউনিটির মানুষ এবং এশিয়ান মাত্র ৭শ ৫৬ জন। এ থেকেই সহজে অনুমান করা সম্ভব যে বাংলাদেশের গৌরব মিস রওশন আরা এই সমাজে  অত্যন্ত জনপ্রিয় এক রাজনৈতিক প্রতিভূ।

স্থানীয় বাসিন্দা মি. টম জে এই প্রতিবেদককে বলেন, “মিস রওশন আরা তাঁর শালীন-শোভন আচরণের মাধ্যমে আমাদের মনের গভীরে জায়গা করে নিয়েছেন। আমরা দলমত নির্বিশেষে তাঁকে ভোট দিয়েছি।”

অপর এক বাসিন্দা মিস রেবেকা স্কট বলেন,  “আমি যখনই কোনো কাজে তাঁর কাছে গিয়েছি তখনই তাঁকে একজন ভালো বন্ধু হিসাবে পেয়েছি।”

বাংলাদেশী অভিবাসী বেলাল আহমেদ বলেন, “মিস রওশন আরা এই এলাকায় দারুণ জনপ্রিয়। তিনি সত্যিই বাংলাদেশের এবং যুক্তরাজ্যে বাঙালি  কমিউনিটির গর্ব।”

মিস রওশন আরা এই প্রতিবেদককে বলেন, “আমি একজন মুসলিম হিসাবে গর্বিত। বিশ্বের নানা দেশে মুসলিম জাতি আজ নিগৃহীত-নির্যাতিত। আমি একজন মুসলিম সম্প্রদায়ের সদস্য হিসাবেই কাজ করছি। আমি তাঁদের প্রতিনিধি হিসাবেই কাজ করে যাবো। আমার বার্তা হচ্ছে- একজন মুসলমান সততা-নিষ্ঠা এবং উদার নৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে সমাজের প্রতিটা মানুষের সেবা করতে সক্ষম। ইতোমধ্যেই আমি তা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি। মুসলমান কখনোই ঘাতক নয়। তাঁরা সকল মানুষ-মানবতার দায়ত্বশীল সেবক।”

তিনি আরও বলেন, “লেবার পার্টি থেকে হাউজ অব কমন্স নির্বাচনে ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দে এই এলাকা থেকে নির্বাচন করেছিলেন। কিন্তু ওই নির্বাচনে বিজয়ের জন্য জাতীয় পর্যায়ের নির্বাচনী পরিবেশ-পরিস্থিতি লেবার পার্টির অনুকূল ছিল না।”

তিনি উল্লেখ করেন, “২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে এশিয়ান এবং বাঙালি মুসলিম হিসাবে রেকর্ড সংখ্যক ভোট পেয়ে রামসগেট শহরের মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় সকলের কাছে বিনীতভাবে কৃতজ্ঞ। ”

উল্লেখ্য, গত বছর নভেম্বরে তিনি  ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের ১৯ হাজার কাউন্সিলরের মধ্যে সেরা কাউন্সিলর হিসাবে পুরস্কৃত হন। এবছর চলতি করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে যুক্তরাজ্যের সকল নির্বাচন এক বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। ফলে গত ২৯ জুলাই রামসগেট টাউন কাউন্সিলের এক সভায় সরকারি দল কনজারভেটিব ও লেবার দলের সর্বসম্মতিতে  তিনি মেয়র পদে পুনঃ দায়িত্বপ্রাপ্ত হন। তিনি ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের মে মাস পর্যন্ত এ দায়িত্ব পালন করবেন।

মিস রওশন আরা বলেন, “আমি আমার জন্মস্থানকে কখনোই ভুলে যায়নি। আমার  জন্মস্থান ইরতাকাশিমপুর  গ্রামে প্রায় প্রতিবছর বেড়াতে যাই। চেষ্টা করি এখানের  পিছিয়ে থাকা নারীদের সহায়তা করতে। এজন্য ১৯৯৮ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠা করেছি রামস-বাংলা মহিলা উন্নয়ন সংস্থা নামের একটি দাতব্য সংস্থা।”

এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অসহায় দরিদ্রদের সহায়তা করার চেষ্টা করেন বলে তিনি জানান।

তিনি আরও জানান, “তাঁর  গ্রামে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা করার পরিকল্পনা রয়েছে।”

সম্প্রতি দ্বিতীয়বার রামসগেটের মেয়র হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণের পর তিনি এই প্রতিবেদককে এসব কথা বলেন।

মিস রওশন আরা দোলন বলেন, “মেয়র হিসাবে আমার দায়িত্ব পালনের সফলতায় লেবার পার্টি ও কজারভেটিভ পার্টির প্রস্তাবে আমি ফের মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করেছি। আসলে মানুষের জন্য কাজ করলে মানুষ অবশ্যই তার মূল্যায়ন করে।”

দোলন বলেন, “রামসগেটে বাঙালি নেই বললেই চলে। এখানে বিজয়ী হতে আমাকে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে।”

ইরতাকাশিমপুর কাঁঠাল বাড়ি  গ্রামে রামসগেটের নামে গড়া সংস্থার মাধ্যমে করোনাকালে রমজান মাসে  ৩০০ মানুষকে দুই বেলা খাবার সরবরাহ করা হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি  চলতি বছর ফেব্রুয়ারি  দেশে এসেছিলেন। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি তালেবপুর আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ে তাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।

দেশে সফরকালে তাঁকে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য প্রশাসনসহ সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করবেন যেভাবে স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রমোশন: সরকারের সিদ্ধান্ত জানা যাবে কাল - dainik shiksha স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রমোশন: সরকারের সিদ্ধান্ত জানা যাবে কাল প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের আবেদন শুরু ২৫ অক্টোবর - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের আবেদন শুরু ২৫ অক্টোবর অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত বাতিল চায় ছাত্র ফ্রন্ট - dainik shiksha অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত বাতিল চায় ছাত্র ফ্রন্ট দাখিলের রেজিস্ট্রেশন নবায়ন শুরু - dainik shiksha দাখিলের রেজিস্ট্রেশন নবায়ন শুরু প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে প্রতারণা: আদালতে শিক্ষা ভবনের কর্মকর্তা - dainik shiksha প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে প্রতারণা: আদালতে শিক্ষা ভবনের কর্মকর্তা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন ডিজি মনসুরুল আলম - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন ডিজি মনসুরুল আলম উচ্চমাধ্যমিকের উপবৃত্তি পেতে শিক্ষার্থীদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার সময় বাড়লো - dainik shiksha উচ্চমাধ্যমিকের উপবৃত্তি পেতে শিক্ষার্থীদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার সময় বাড়লো ইএফটির মাধ্যমে শিক্ষকদের বেতন দিতে কাজ চলছে - dainik shiksha ইএফটির মাধ্যমে শিক্ষকদের বেতন দিতে কাজ চলছে please click here to view dainikshiksha website