মিরসরাইয়ের মিঠাছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ভবনে পাঠদান - স্কুল - Dainikshiksha

মিরসরাইয়ের মিঠাছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ভবনে পাঠদান

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি |

মিরসরাই উপজেলার মিঠাছরা উচ্চ বিদ্যালয়ে পরিত্যক্ত ভবনে চলছে পাঠদান। পাঁচ বছর আগে দ্বিতল ভবনটি উপজেলা প্রকৌশলী পরিত্যক্ত ঘোষণার পরও পর্যাপ্ত ভবন না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে পাঠদান পারিচালনা করতে বাধ্য হচ্ছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকবার ভবনের পলেস্তরা খসে পড়ে শিক্ষার্থী আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

মিঠাছরা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেন জানান, বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা হয়েছে ১৯৪৭ সালে। আর মূল ভবনটি নির্মিত হয় ১৯৬৫ সালে। ৫২ বছর আগে নির্মিত এই ভবনটিতে বর্তমানে বিভিন্ন বিভাগের সাতটি ক্লাস চলে। বাকি যে ভবনটি রয়েছে সেখানে শ্রেণিকক্ষের সংকুলান হয় না। ফলে বাধ্য হয়ে ঝুঁকি নিয়ে পরিত্যক্ত ভবনটিতে ক্লাস নিতে হচ্ছে।

প্রধান শিক্ষক বলেন, পরিত্যক্ত ভবনটিতে বেশ কয়েকবার বিদ্যালয়ের নিজস্ব উদ্যোগে সংস্কার করা হয়েছে। একদিকে সংস্কার করলে আরেকদিকে ভেঙে যায় দেয়ালসহ বিভিন্ন স্থান। ইতোমধ্যে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরে আনা হয়েছে। এখনো ভবন নির্মাণে আশানুরূপ কোনো সাড়া পাননি বলে জানান তিনি।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পরিত্যক্ত ভবনটিতে বিভিন্ন বিভাগের পাঁচটি ক্লাস চলছে। প্রতিটি শ্রেণিকক্ষের দেয়াল এবং ছাদে ফাটল রয়েছে। পলেস্তরা খসে আছে অনেক জায়গায়।

দশম শ্রেণির কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, ইতোমধ্যে ক্লাস চলাকালীন সময়ে বেশ কয়েকবার পলেস্তরা খসে পড়েছে। ক্লাসে তারা বড় ধরনের ঝুঁকির মধ্যে থাকে।

শিক্ষক মিলনায়তনের অবস্থাও ভালো নয়। বৃষ্টি হলেই ছাদ চুইয়ে পানি পড়ে। পলেস্তরা ধসে পড়ার শঙ্কায় থাকেন শিক্ষকরা।

বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানান, ১২০০ শিক্ষার্থী পড়ে মিঠাছরা উচ্চ বিদ্যালয়ে। পরিত্যক্ত ভবনটি ভেঙে নতুন ভবন নির্মাণ না করা হলে সংকট আরো তীব্র হবে।

মিঠাছরা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জাফর উদ্দিন আহমদ চৌধুরী বলেন, অত্যন্ত প্রাচীন এই বিদ্যালয়ের ভবনের অবস্থা খুবই নাজুক। শীঘ্রই নতুন ভবন নির্মাণ না করা হলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।

মিরসরাই উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানান, মিঠাছরা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে। শীঘ্রই এই সংকট কেটে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী - dainik shiksha জারির অপেক্ষায় অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ যোগ্যতার সংশোধনী প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা - dainik shiksha প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার অপেক্ষায় চাকরিতে প্রবেশের বয়স: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার অপেক্ষায় চাকরিতে প্রবেশের বয়স: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী আরও ৯২ প্রতিষ্ঠানের তথ্য চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় - dainik shiksha আরও ৯২ প্রতিষ্ঠানের তথ্য চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় শিক্ষকতা ছেড়ে উপজেলা নির্বাচনে শিক্ষক - dainik shiksha শিক্ষকতা ছেড়ে উপজেলা নির্বাচনে শিক্ষক প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সুপারিশপ্রাপ্তদের করণীয় - dainik shiksha প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সুপারিশপ্রাপ্তদের করণীয় প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website