please click here to view dainikshiksha website

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়

মেয়াদ শেষ হলেও বাসা ছাড়েননি উপাচার্য

শাবি প্রতিনিধি | আগস্ট ১৩, ২০১৭ - ৮:৪৯ পূর্বাহ্ণ
dainikshiksha print

মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার ১৫ দিন পরও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) সদ্য সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আমিনুল হক ভূইয়া বাসভবন ছাড়েননি। অনৈতিকভাবে তিনি সেখানে বসবাস করছেন বলে অভিযোগ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

গতকাল শনিবার শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. সৈয়দ সামসুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক মো. মহিবুল আলম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব অভিযোগ তোলেন।

বিজ্ঞপ্তিতে অভিযোগ করা হয়, গত ২৭ জুলাই উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হয়। এর পর থেকে উপাচার্য না থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম, শিক্ষকদের শিক্ষাছুটি, বিদেশ গমন এবং ছাত্রছাত্রীদের সার্টিফিকেট প্রদানসহ যাবতীয় কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। উপাচার্যের শেষ কর্মদিবসে এক শিক্ষক ছুটির অনুমোদন চাইলে তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। এ সময় ওই শিক্ষককে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আমি চাইলে তোমাকে ছুটি দিতে পারি। কিন্তু দেব না। ’ এর ফলে ভুক্তভোগী শিক্ষক শাহজাহান মিয়ার পিএইচডি কার্যক্রমে অংশগ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। তাঁরা আরো অভিযোগ করেন, মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও আমিনুল অনৈতিক এবং অবৈধভাবে সপরিবারে উপাচার্য বাংলোতে অবস্থান করছেন। তিনি বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করায় সেখান থেকেও সুযোগ-সুবিধা নিচ্ছেন।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এবং কোষাধ্যক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তাঁরা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। এ নিয়ে শিক্ষকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

এ বিষয়ে রেজিস্ট্রার মো. ইশফাকুল হোসেন বলেন, ‘উপাচার্য অবস্থানের জন্য সিন্ডিকেট থেকে অনুমোদন নেননি। এ রকম অবস্থানের নিয়ম বিশ্বাবিদ্যালয়ের আইনেও নেই। অতীতেও কোনো উপাচার্য এ রকম অবস্থান করেননি। ’

বিষয়টি জানতে সদ্যোবিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আমিনুল হক ভূইয়ার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাঁকে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. মো. আমিনুল হক ভূইয়া ২০১৩ সালের ২৮ জুলাই শাবির নবম উপাচার্য হিসেবে যোগ দেন। চলতি বছরের ২৭ জুলাই তাঁর মেয়াদ শেষ হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন