রাবিতে আমরণ অনশনে শিক্ষার্থীরা, অসুস্থ ৫ - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

রাবিতে আমরণ অনশনে শিক্ষার্থীরা, অসুস্থ ৫

রাবি প্রতিনিধি |

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফলিত পদার্থ ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (এপিইই) বিভাগকে ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে একীভূতকরণের দাবিতে আমরণ অনশনে ফলিত পদার্থ বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

প্রকৌশল অনুষদের সভায় একীভূত হচ্ছে না- এমন সিদ্ধান্তের কথা জানতে পেরে সোমবার বেলা ১১টা থেকে আমরণ অনশনের ঘোষণা দেন তারা। এরই মধ্যে অনশনে অংশ নেওয়া ৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে বিভাগ একীভূত হবে কি হবে না, সে বিষয়ে আগামী ৫ ডিসেম্বর বুধবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় সিদ্ধান্ত হবে।

অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলেন তৃতীয় বর্ষের রফিকুল ইসলাম, অনিকা তাবাসসুম পুষ্প, সাবিরা খাতুন, চতুর্থ বর্ষের মধুসূদন গুপ্ত ও মমিনুন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম বিজ্ঞান ভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সেখানে অবস্থানেরও ঘোষণা দিয়েছেন। তারা রাতেও অবস্থান করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ সময় অনশনরত শিক্ষার্থীদের মাঝে ‘দাবি পূরণ হবে না যত দিন, একনাগাড়ে অনশন চলবে তত দিন’সহ বিভিন্ন প্লাকার্ড দেখা যায়।

বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী নাইম আহমেদ বলেন, রাতদিন ২৪ ঘণ্টা এখানে অবস্থান করব আমরা। তবে ৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

এ দিকে এপিইই শিক্ষার্থীদের বিপরীত পাশে বিভাগ একীভূতকরণের বিপক্ষে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে সকাল থেকে অবস্থান কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে ইলেকট্রনিক ও ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীরা। তারা তাদের দাবির পক্ষে অনড়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশল অনুষদের ডিন একরামুল হামিদ বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে জানিয়েছি। এখন কিছু করার নেই। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আগামী ৫ ডিসেম্বর সিদ্ধান্ত নেবেন।

আগামী বছর সব স্কুলে একযোগে প্রাক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ - dainik shiksha আগামী বছর সব স্কুলে একযোগে প্রাক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ এক নজরে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার নম্বর বিভাজন - dainik shiksha এক নজরে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার নম্বর বিভাজন ভিকারুননিসার অডিট রিপোর্ট, শাখা খোলার কাগজপত্র চেয়েছে ঢাকা বোর্ড - dainik shiksha ভিকারুননিসার অডিট রিপোর্ট, শাখা খোলার কাগজপত্র চেয়েছে ঢাকা বোর্ড কে এই নাজনীন ফেরদৌস? - dainik shiksha কে এই নাজনীন ফেরদৌস? জাল সনদ বিক্রেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha জাল সনদ বিক্রেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ প্রাথমিক সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষার ফল ২৪ ডিসেম্বর - dainik shiksha প্রাথমিক সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষার ফল ২৪ ডিসেম্বর নবসৃষ্ট পদে নিয়োগে ও ব্যয়ের তথ্য চেয়েছে মন্ত্রণালয় - dainik shiksha নবসৃষ্ট পদে নিয়োগে ও ব্যয়ের তথ্য চেয়েছে মন্ত্রণালয় বিজয় দিবসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মসূচি পালনে নির্দেশনা - dainik shiksha বিজয় দিবসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মসূচি পালনে নির্দেশনা স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ - dainik shiksha স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website