রুয়েট ছাত্রীকে অটো থেকে ফেলে দিল ৪ যুবক - বিবিধ - Dainikshiksha

রুয়েট ছাত্রীকে অটো থেকে ফেলে দিল ৪ যুবক

রাজশাহী প্রতিনিধি |

রাজশাহীতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের স্ত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনার রেশ না কাটতেই এবার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে উত্যক্ত করে অটোরিকশা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (১৯ আগস্ট) রাজশাহী নগর ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর সন্ধ্যায় ওই শিক্ষার্থী নিজের ফেসবুকে দেওয়া স্ট্যাটাসে এ তথ্য জানান। সেখানে তিনি উল্লেখ করেন, অটোতে তুলে চার যুবক তাকে যৌন হয়রানি করে।  ভুক্তভোগী ছাত্রী রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী। রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টায় ওই স্ট্যাটাসে সাড়ে তিন হাজারের বেশি লাইক ও রিয়্যাক্ট পড়ে। দেড় শতাধিক ফেসবুক ব্যবহারকারী বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন। এছাড়া পোস্টটি শেয়ার হয়েছে প্রায় এক হাজার। 

বিষয়টি নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রশাসনের গাফিলতিকে দায়ী করেছেন।

ওই ছাত্রীর ফেসবুক পোস্টটি হুবহু পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:

‘আমার বাসা উপশহর। বাসা দূর বলে আমি সাধারণত রুয়েট থেকে রেইলগেট পর্যন্ত অটোতে করে আসি। আজকেও প্রতিদিনের মতো অটো নিলাম, সাথে ছিল দুইজন অপরিচিত রুয়েটিয়ান ভাইয়া আর একজন ভদ্রলোক। রুয়েটিয়ান ভাই দুইজন চিশতিয়ার সামনে নেমে গেলেন। ভদ্রা পার হয়ে কিছুদূর যাওয়ার পর হঠাৎ অটোওয়ালা অটো থামায় দিল, সামনে থাকা ভদ্রলোককে বললো, ‘আপনি নেমে যান, আমি নিজস্ব লোক তুলবো!’ আমি কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই ভদ্রলোককে জোরপূর্বক নামিয়ে চারজন গুণ্ডা উঠে অটো চালানো শুরু হয়ে গেলো! ভদ্রা থেকে রেলস্টেশন পর্যন্ত রাস্তা মোটামুটি নির্জন, ইচ্ছামত সেই চারজন আমাকে স্পর্শ করা শুরু করলো। হাজারবার অটো থামানোর জন্য চিৎকার করার পরও অটোওয়ালা পশুর মত হাসতে থাকলো....! পরে নগরভবনের সামনে পুলিশ দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে ভয় পেয়ে তারা অটো থেকে ধাক্কা মেরে আমাকে ফেলে দিয়ে দ্রুত চলে গেলো!!! যতক্ষণে নিজের পায়ে দাঁড় হতে পেরেছি, ততক্ষণে অটো বহুদূর....” কাহিনীটা শুধু শেয়ার করলাম। এইটা বাংলাদেশ, কোনো বিচারের আশা আমি করছিনা। বি.দ্র: অনেকের মনে প্রশ্ন থাকতে পারে আমার পোশাক কি ছিল? সাধারণ বাঙালি নারীর মতো সালোয়ার কামিজ!”

জানতে চাইলে নগরীর মতিহার থানার ওসি (তদন্ত) ওলিউর রহমান বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনও আমাদেরকে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। তারপরও আমরা বিষয়টি জানার পর খোঁজ-খবর নিচ্ছি।’

মাদরাসা শিক্ষকদের নতুন এমপিওভুক্তির কার্যক্রম স্থগিত - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের নতুন এমপিওভুক্তির কার্যক্রম স্থগিত প্রাথমিকের বেতন বৈষম্য : প্রধানমন্ত্রীই একমাত্র ভরসা - dainik shiksha প্রাথমিকের বেতন বৈষম্য : প্রধানমন্ত্রীই একমাত্র ভরসা বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ অক্টোবর - dainik shiksha বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ অক্টোবর এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে - dainik shiksha কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website