লটারি জিতে ৬৮ কোটি টাকার মালিক - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

লটারি জিতে ৬৮ কোটি টাকার মালিক

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

জীবনে বহুবার লটারি ধরে একবারও কোনো পুরস্কার ভাগ্যে জুটেনি, এমন মানুষের সংখ্যাই বেশি। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যের রকউডের বাসিন্দা মার্ক ক্লার্কের সৌভাগ্যের পাল্লা অন্যান্যদের তুলনায় অনেক ভারী। একবার নয়, পরপর দুবার লটারি জিতলেন তিনি। আর যেনতেন লটারিও নয়। দুইবার লটারি জিতে তিনি এখন ৬৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকার মালিক হয়েছেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, ইনস্ট্যান্ট গেম লটারি জেতেন ৫০ বছর বয়সী মার্ক ক্লার্ক। দুইবার চার মিলিয়ন করে মোট ৮ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬৮ কোটি টাকা) জেতেন এই মার্কিন নাগরিক।

সিএনএনকে মার্ক ক্লার্ক জানান, ঘটনাটি ৩ বছর আগের। ওই সময় মিশিগানের হাডসনের একটি গ্যাস স্টেশনে জ্বালানি সরবরাহের কাজ করতেন তিনি। তখন ইনস্ট্যান্ট গেম লটারির একটি টিকিট কিনেছিলেন। লটারি পরিচালনা কর্তৃপক্ষ তাকে ক্লার্ক নামতে খুঁজতে বললে তিনি তাই করেন।

ক্লার্ক বলেন, আমি টিকিটের বার কোডটি একটি কয়েন দিয়ে ঘষা দিই এবং কয়েনটি ১০ বছর আগে বাবা আমাকে দিয়েছিলেন। ওই সময় শারীরিক জটিলতায় ভুগে মারা যাওয়া আমার বাবার জন্য কিছুই করতে পারিনি। আর এই কয়েনই আমাকে লটারি জিতিয়ে দিল।

ওই ঘটনার তিন বছর পর গতমাসেও একই ভাগ্য এসে ধরা দিল ক্লার্কের কপালে।

ক্লার্ক জানান, গত মাসে আবার একটি ইনস্ট্যান্ট গেম লটারির টিকিট কেনেন এবং এইবারও চার মিলিয়ন ডলার পেয়ে যান।

তিনি বলেন, আপনি হয়তো কখনোই ভাববেন না যে এক লাফে মিলিয়নিয়ার হয়ে গেছেন। আবার এটাই কল্পনা করতে পারবেন না যে, একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে। আমার বেলায় ঠিক তাই ঘটেছে। দ্বিতীয়বার লটারি জিতে আমার অনুভূতি প্রকাশ করার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।

প্রথম লটারি জেতার পর থেকেই গ্যাস স্টেশনে জ্বালানি সরবরাহের কাজটি ছেড়ে দিয়েছেন ক্লার্ক।

করোনা : আরও ৫৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩ হাজার ২৭ - dainik shiksha করোনা : আরও ৫৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩ হাজার ২৭ এনটিআরসিএর নতুন চেয়ারম্যান আকরাম হোসেন - dainik shiksha এনটিআরসিএর নতুন চেয়ারম্যান আকরাম হোসেন প্রাথমিকে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ আসছে - dainik shiksha প্রাথমিকে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ আসছে গার্ডেনিং করতে ৫ হাজার করে টাকা পাবে ১০ হাজার স্কুল - dainik shiksha গার্ডেনিং করতে ৫ হাজার করে টাকা পাবে ১০ হাজার স্কুল কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের নতুন সচিব আমিনুল ইসলাম - dainik shiksha কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের নতুন সচিব আমিনুল ইসলাম চলতি মাসেই স্থায়ী হচ্ছেন প্রাথমিকের অস্থায়ী প্রধান শিক্ষকরা - dainik shiksha চলতি মাসেই স্থায়ী হচ্ছেন প্রাথমিকের অস্থায়ী প্রধান শিক্ষকরা সৌদি আরবে থেকেও নিয়মিত হাজিরা, এমপিওভুক্তি! - dainik shiksha সৌদি আরবে থেকেও নিয়মিত হাজিরা, এমপিওভুক্তি! শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান - dainik shiksha শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান শিক্ষক প্রশিক্ষণের নামে টেসলের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ - dainik shiksha শিক্ষক প্রশিক্ষণের নামে টেসলের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক - dainik shiksha বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে - dainik shiksha শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website