লাইসেন্স কেন বাতিল হবে না জানতে চেয়ে গ্রামীণফোন-রবিকে নোটিশ - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

লাইসেন্স কেন বাতিল হবে না জানতে চেয়ে গ্রামীণফোন-রবিকে নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

দফায় দফায় চেষ্টা করেও নিরীক্ষা আপত্তির পাওনা টাকা আদায় করতে না পেরে দেশের দুই শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবির বিরুদ্ধে ‘চূড়ান্ত’ পদক্ষেপে গেল সরকার। টাকা না দেয়ায় গ্রামীণফোন ও রবির লাইসেন্স কেন বাতিল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দুই অপারেটরকে ‘কারণ দর্শাও’ নোটিশ পাঠিয়েছে টেলিযোগাযোগ খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

কমিশনের চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০০১-এর ৪৬(২) ধারা মোতাবেক মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবির লাইসেন্স কেন বাতিল করা হবে না, আগামী ৩০ দিনের মধ্যে তা জানাতে বলা হয়েছে নোটিশে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নোটিশের জবাব না দিলে বা পাওনা টাকা পরিশোধ না করলে পরবর্তী পদক্ষেপ বিষয়ে সোয়া ১২ কোটি গ্রাহকের এই দুই অপারেটরে প্রশাসক নিয়োগের মতো পদক্ষেপ নেয়া হতে পারে বলেও জানান বিটিআরসি প্রধান। তবে গ্রামীণফোন বলেছে তারা জবাব দেবে।

বিটিআরসির দাবি, গ্রামীণফোনের কাছে নিরীক্ষা আপত্তির দাবির ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা এবং রবির কাছে ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে তাদের। প্রথম ধাপে ব্যান্ডউইথ কমিয়ে দিয়ে এবং দ্বিতীয় ধাপে বিভিন্ন ধরনের সেবার অনুমোদন ও অনাপত্তিপত্র দেয়া বন্ধ রেখেও কাজ না হওয়ায় এই কঠোর পদক্ষেপ নিল সরকার। এটাকে টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার ‘চূড়ান্ত পদক্ষেপে’ হিসেবেই বলেছেন।

এই পদক্ষেপ নেয়ার এখতিয়ার সরকারের আছে মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেছেন, ‘যেহেতু তারা গা করছে না, আমরা তো জাতীয় অর্থ পানিতে ফেলে রাখতে পারি না। এই ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দিতে পারি না।’ বিটিআরসি নোটিশ পাঠানোর পর তাৎক্ষণিকভাবে গ্রামীণফোন বলেছে, এই নোটিশ অযৌক্তিক। তাদের গঠনমূলক সমাধানের প্রস্তাবে এটা বিটিআরসির অনীহার বহিঃপ্রকাশ। গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় নিয়ন্ত্রক সংস্থার যে কোনো অন্যায্য পদক্ষেপের বিরুদ্ধে তারা সব ব্যবস্থাই নেবেন।

তাগাদা দেয়ার পরও ওই টাকা পরিশোধ না করায় গত ৪ জুলাই গ্রামীণফোনের ব্যান্ডউইথ ক্যাপাসিটি ৩০ শতাংশ এবং রবির ১৫ শতাংশ সীমিত করতে আইআইজিগুলোকে নির্দেশ দেয় বিটিআরসি। কিন্তু তাতে গ্রাহকের সমস্যা হওয়ায় ১৩ দিনের মাথায় ওই নির্দেশ প্রত্যাহার করে নেয় বিটিআরসি। এরপর ২২ জুলাই গ্রামীণফোন ও রবিকে বিভিন্ন প্রকার সেবার অনুমোদন ও অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেয়া স্থগিত রাখার ঘোষণা দেয়।

বিটিআরসি ‘এনওসি’ দেয়া বন্ধ রাখায় গ্রামীণফোন ও রবি বর্তমান সেবা চালিয়ে নিতে কোনো সমস্যায় পড়ছে না। তবে তারা নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ বা বিটিএস স্থাপন করতে পারছে না, যন্ত্রাংশ আমদানির অনুমতি পাবে না, নতুন কোনো প্যাকেজ তারা বাজারে ছাড়তে পারছে না, চলতি প্যাকেজে কোনো পরিবর্তনও আনতে পারছে না। দেশে বর্তমানে গ্রাহক ১৬ কোটি ৮২ হাজার। এর মধ্যে ৭ কোটি ৪৭ লাখ গ্রামীণফোনের। আর রবির ৪ কোটি ৭৬ লাখ। এই হিসাবে মোট গ্রাহকের ৪৬ দশমিক ৪৯ শতাংশ গ্রামীণফোন এবং ২৯ দশমিক ৬৫ শতাংশ রবির সেবা নিয়ে থাকেন।

শিক্ষা আইন যেন শুধু শিক্ষকদের শাসন করার জন্য না হয় - dainik shiksha শিক্ষা আইন যেন শুধু শিক্ষকদের শাসন করার জন্য না হয় হঠাৎ রাজধানীর ৩ স্কুলে প্রতিমন্ত্রী, ৫ শিক্ষককে শোকজ - dainik shiksha হঠাৎ রাজধানীর ৩ স্কুলে প্রতিমন্ত্রী, ৫ শিক্ষককে শোকজ ১৩ অক্টোবরের মধ্যে দাবি আদায় না হলে কর্মবিরতির হুমকি প্রাথমিক শিক্ষকদের - dainik shiksha ১৩ অক্টোবরের মধ্যে দাবি আদায় না হলে কর্মবিরতির হুমকি প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী নিয়োগের নীতিমালা প্রকাশ - dainik shiksha প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী নিয়োগের নীতিমালা প্রকাশ এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে - dainik shiksha কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website