লাগাতার ধর্মঘটে এমপিওভুক্তরা - সমিতি সংবাদ - Dainikshiksha

লাগাতার ধর্মঘটে এমপিওভুক্তরা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

টানা ১৯ দিন ধরে অবস্থান এবং অনশনের পরও এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের শিক্ষা জাতীয়করণের দাবির প্রতি ইতিবাচক সাড়া দিচ্ছে না সরকার। ফলে ক্ষুব্ধ শিক্ষকেরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশনের পাশাপাশি আজ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) থেকে দেশের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে লাগাতার ধর্মঘট শুরু করেছেন। তাঁরা বলছেন, দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের কর্মসূচি চলবে।

আন্দোলনকারী শিক্ষকদের সংগঠন বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরামের উপদেষ্টা আবুল বাশার হাওলাদার বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে দাবি পূরণের ঘোষণা না আসায় তাঁরা অনশনের পাশাপাশি লাগাতার ধর্মঘটে যাচ্ছেন। তবে তিনি বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলীর সঙ্গে আলোচনাও চলছে। দাবি আদায়ে ১০ জানুয়ারি থেকে অবস্থান এবং ১৫ জানুয়ারি থেকে আমরণ অনশন করছেন এমপিওভুক্ত এসব শিক্ষক-কর্মচারী। গতকাল আমরণ অনশন ১৪ দিনে গড়াল। অনশনের কারণে এই কয় দিনে অসুস্থ হওয়া শিক্ষকের সংখ্যা দেড় শতাধিক হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষকদের দাবির প্রতিও সাড়া নেই

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তৃতীয় ধাপে জাতীয়করণ থেকে বাদ পড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা তাঁদের বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণের দাবিতে গতকাল অষ্টম দিনের মতো অনশন ও দ্বিতীয় দিনের মতো আমরণ অনশন পালন করেছেন। কিন্তু সরকার থেকে কোনো সাড়া পাচ্ছেন না তাঁরা। শিক্ষকনেতা ছালেহ উদ্দিন বলেন, তাঁদের একটি প্রতিনিধিদল সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের সঙ্গে আলোচনার চেষ্টা করছে।

‘শর্ত পূরণ করলেও’ জাতীয়করণ থেকে বাদ পড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে ৪ হাজার ১৫৯টি। এগুলোতে প্রায় ১৬ হাজার শিক্ষক রয়েছেন।

ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি - dainik shiksha নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত - dainik shiksha ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website