please click here to view dainikshiksha website

লালমনিরহাটে বন্যায় পরীক্ষা স্থগিত: ২৪০টি স্কুলে পাঠদান বন্ধ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি | আগস্ট ১৫, ২০১৭ - ৫:৫০ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

উত্তরাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এক নোটিশের মাধ্যমে ১৩ আগস্টের পরীক্ষা স্থগিত করেছে। অন্যদিকে লালমনিরহাটের ২৪০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরবর্তীতে পরীক্ষার তারিখ জানিয়ে দেয়া হবে বলে নোটিশে বলা হয়।

লালমনিরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নবেজ উদ্দিন সরকার জানিয়েছেন, লালমনিরহাটে বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্যার পানি ওঠায় ও বন্যা কবলিতরা আশ্রয় নেওয়ায় ২৪০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধ রয়েছে। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর এসব বিদ্যালয়ে পাঠদান শুরু হবে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলায় ৯১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আদিতমারীতে ৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কালীগঞ্জে ২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাতীবান্ধায় ২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পাটগ্রামে ১০২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পানি ওঠার কারণে শ্রেণি কক্ষে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

এছাড়া জেলার ১৫টি কলেজ, ১০টি মাদ্রাসা ও ২০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পানি উঠেছে। এসব বিদ্যালয়ে সাময়িকভাবে পাঠদান বন্ধ রয়েছে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক সফিউল আরিফ বলেন, ‘তিস্তা, ধরলা ও সানিয়াজন নদী পথে ছাড়াও বিভিন্নভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে পানি ঢুকছে। উজানের ঢলের পানি ও গত ৪ দিনের টানা বর্ষণে লালমনিরহাটের চারদিক ডুবে যাওয়ায় আপাত বিদ্যালয়গুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। ভয়াবহ এ বন্যা পরিস্থিতি সম্পর্কে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।’

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন