শরীয়তপুরে এমপিওবিহীন কলেজ এইচএসসির ফলাফলে জেলায় প্রথম - এইচএসসি/আলিম - Dainikshiksha

শরীয়তপুরে এমপিওবিহীন কলেজ এইচএসসির ফলাফলে জেলায় প্রথম

শরীয়তপুর প্রতিনিধি |

চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলে শরীয়তপুর জেলার বি.এম. আইডিয়াল কলেজ জেলার সরকারি-বেসরকারি কলেজের মধ্যে প্রথম হয়েছে। বোর্ডের ঘোষিত ফলাফলে কলেজের ৮৯ দশমিক ৩৩ শতাংশ পরীক্ষার্থী পাস করে।

জেলার সদর উপজেলার প্রত্যন্ত চরাঞ্চলে ২০০৪ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত এই কলেজে বিনোদপুর, মাহমুদপুর, চন্দ্রপুর চিতলিয়া চিকন্দী ইউনিয়নের শিক্ষাথীরা পড়াশুনা করে। দীর্ঘ ১৪ বছর এমপিও বিহীন শিক্ষক-কর্মচারিরা শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে পড়া লেখা শিখিয়ে যাচ্ছেন। দীর্ঘদিন এমপিওহীন থাকার পরও জেলা শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিয়ে ২০১৭ খ্রিস্টাব্দের এইচএসসি পরীক্ষায় শরীয়তপুর জেলায় প্রথমস্থান অর্জন করে।

কলেজের প্রতিষ্ঠাতা এম.এ আলী বলেন, এই এলাকা শিক্ষায় অনেক পিছিয়ে থাকায় অন্ধকার কে আলোকিত করার জন্য কলেজটি ২০০৪ সালে সাবেক সংসদ সদস্য হেমায়েত উল্লাহ আওরঙ্গজের এর সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠা করা হয়। ১৪বছর ধরে কলেজটি এমপিওবিহীন থাকায় শিক্ষক-কর্মচারিরা মানবেতর জীবন যাপন করছে। আমরা গর্ভণিং বডির সদস্যরা মাঝেমধ্যে কিছু টাকা দিয়ে থাকি। শিক্ষক-কর্মচারিরা তারপরও অন্তরিকতার সাথে তাদের দায়িত্ব পাল করে যাচ্ছে।

কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও বিনোদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ সাকিদার বলেন, শরীযতপুর-১ আসনের এমপি বি.এম মোজাম্মেল হক এর সহযোগিতায় তথ্য ও প্রযুক্তির সহায়তায় শিক্ষার মান উন্নয়ন প্রকল্প থেকে একটি চারতলা ভবন নির্মান করা হয়েছে। এমপি মহোদয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে কলেজেটি উন্নতির দিকে যাচ্ছে। আমি এ কলেজের সভাপতির পদ গ্রহনের পর থেকে ফলাফল ভাল হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, এ বছর এইচ.এস.সি ফলাফলে আমার  কলেজটি  শরীয়তপুর জেলার সরকারি-বেসরকারি কলেজের মধ্যে প্রথম হয়েছে। আমি ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষক ও পরীক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানাই। শিক্ষক –কর্মচারিদের আর্থিক সমস্যা সমাধানে আমি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ  লোকমান হোসেন বলেন, সকল শিক্ষক নিবন্ধনধারী হয়েও অনেকের সরকারি চাকরির বয়স শেষ হয়ে গেছে। কলেজেটি  শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বোর্ডের সকল শর্ত পূরণ করার পর  ১৪ বছর যাবৎ এমপিওহীন। গভর্নিং বডি মাঝে মধ্যে কিছু টাকা দিলেও তা দিয়ে  জীবন যাপন করা সম্ভব নয়। আমরা শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে সেবা দিয়ে যাচ্ছি। ২০১৭ খ্রিস্টাব্দের এইচএসসি পরীক্ষায় ভাল করার পরও বর্তমানে শিক্ষক-কর্মচারিরা হতাশার মধ্যে রয়েছে। আমি প্রাধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট অনুরোধ করছি আমার এ কলেজটি এমপিওভুক্ত করা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য।

জেডিসি ও ইবতেদায়ি জন্মসনদ অনুযায়ী রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক - dainik shiksha জেডিসি ও ইবতেদায়ি জন্মসনদ অনুযায়ী রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক অর্থাভাবে দুই বোনের লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম - dainik shiksha অর্থাভাবে দুই বোনের লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম অবসর সুবিধার আবেদন শুধুই অনলাইনে, দালাল ধরবেন না(ভিডিও) - dainik shiksha অবসর সুবিধার আবেদন শুধুই অনলাইনে, দালাল ধরবেন না(ভিডিও) দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website