শহীদ মিনারে অবসরপ্রাপ্ত বিসিএস শিক্ষকদের শ্রদ্ধা নিবেদন - সমিতি সংবাদ - Dainikshiksha

শহীদ মিনারে অবসরপ্রাপ্ত বিসিএস শিক্ষকদের শ্রদ্ধা নিবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক |

অবসরপ্রাপ্ত বিসিএস সাধারণ শিক্ষকরা আজ ২১শে ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেছেন। সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক মো: নোমান উর রশীদের নেতৃতে শতাধিক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করেছেন। দুপুর বারোটার দিকে তাঁরা মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের নব নিযুক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. মাহাবুবুর রহমানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। শিক্ষা ক্যাডারের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের পেয়ে আবেগাপ্লুত হন নতুন মহাপরিচালক। তিনি তাদেরকে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করেন। অধিদপ্তরের  একাধিক সূত্র দৈনিকশিক্ষাডটকমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। 

গত ডিসেম্বর মাসে অবসরপ্রাপ্ত বিসিএস সাধারণ শিক্ষকদের এই নতুন সংগঠনটির যাত্রা শুরু হয়। সংগঠনের নাম:  অবসরপ্রাপ্ত বিসিএস শিক্ষক এসোসিয়েশন (অবিঅশিএ)। একুশ সদস্য-বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির সভাপতি মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক সফলতম মহাপরিচালক অধ্যাপক মো: নোমান উর রশীদ। ২০১২ খ্রিস্টাব্দের ডিসেম্বর মাসে অবসরের পর অদ্যাবধি তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ পদে রয়েছেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইতিহাসের অধ্যাপক মো: আবদুল মালেক খান। এছাড়া ১৭ সদস্য-বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটি এবং ৬৪ জেলায় সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়েছে।

একুশ সদস্যের কেন্দ্রীয় কার্যকরী সমিতির সহ-সভাপতি প্রফেসর জাহাঙ্গীর আলম ও প্রফেসর ইয়াসমীন আহম্মেদ; যুগ্ম সমম্পাদক প্রফেসর মোহাম্মদ সোলায়মান ও প্রফেসর আমিনা খাতুন; কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. জহুরূল হক; সাংগঠনিক সম্পাদক প্রফেসর তোহুর আহমদ হিলালী; সংস্কৃতি ও সমাজ সেবা সম্পাদক প্রফেসর হাজী দানেশ; প্রচার সম্পাদক প্রফেসর রেজাউল করিম; কার্যকরী পরিষদ সদস্য প্রফেসর নুরুল ইসলাম। সদস্যগণ হলেন: প্রফেসর মুহাম্মদ ওয়ালিউর রহমান, প্রফেসর ফরিদুল আলম, প্রফেসর আব্দুস সামাদ, প্রফেসর অশীত চক্রবর্তী, প্রফেসর সামসুর নাহার, প্রফেসর ওসমান গণি, প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন, প্রফেসর আব্দুল খালেক, প্রফেসর সামসুল আলম জয় ও প্রফেসর সকিনা আক্তার।

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না - dainik shiksha ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ - dainik shiksha পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে - dainik shiksha ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা - dainik shiksha প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা - dainik shiksha কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website