please click here to view dainikshiksha website

‘শিক্ষকদের বেতন শিক্ষামন্ত্রীর চাইতেও বেশি চাই’ (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক | মে ২০, ২০১৭ - ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ
dainikshiksha print

শিক্ষামন্ত্রী ও শিক্ষাসচিবের চাইতেও শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বেশি হওয়া উচিত বলে মনে করেন শিক্ষা বিশ্লেষক ও দৈনিক শিক্ষাডটকম সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান খান। আগে শিক্ষকদের সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে বেঁচে থাকা নিশ্চিত করতে হবে। তারপর মানসম্মত শিক্ষাদানের কথা বলতে হবে। আর শিক্ষার মানের উন্নতি চাইলে মানসম্মত শিক্ষক নিয়োগ করতে হবে। সব ধরণের শিক্ষকদের বেতন-ভাতা মন্ত্রী-সচিবের চেয়েও বেশি দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
বুধবার (১৭ই মে) বেসরকারি টেলিভিশন এটিএননিউজের শিক্ষা বিষয়ক টকশোতে অংশ নিয়ে উক্ত দাবী করেন শিক্ষা বিষয়ক একমাত্র অনলাইন জাতীয় পত্রিকার সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান খান। “শিক্ষা: কোয়ালিটি না কোয়ানটিটি” শিরোনামের টকশোতে আরো অংশ নেন সাবেক শিক্ষাসচিব মো: নজরুল ইসলাম খান ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়াধীন সেসিপ প্রকল্পের জাতীয় পরামর্শক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক মো: ছিদ্দিকুর রহমান।

প্রায় ঘন্টাব্যাপী টকশোতে অংশ নিয়ে প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে পরীক্ষার কেন্দ্র ও কেন্দ্রসচিব নিয়োগের নীতিমালা থাকা উচিত বলে মত প্রকাশ করেছেন সম্পাদক। ট্রেজারি থেকে কারা প্রশ্ন আনতে যেতে পারবেন এ বিষয়েও সঠিক নির্দেশনা থাকতে হবে। এ ছাড়াও শিক্ষা মন্ত্রণালয়, শিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষাবোর্ডগুলোতে যোগ্য লোক বসানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

সদ্য প্রকাশ হওয়া এসএসসি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন ও ফল বিপর্যয় সম্পর্কে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান বলেন, “২০০৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে নম্বর বাড়িয়ে দেয়ার জন্য পরীক্ষকদের মৌখিক নির্দেশ দেয়া শুরু হয়। ২০০৮ খ্রিস্টাব্দের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে ফলাফল অস্বাভাবিক হয়।  এ বিষয়টি ২০০৯ খ্রিস্টাব্দের শুরুতে সেসিপ প্রকল্পে নিযুক্ত দেশী-বিদেশী পরামর্শকদের অনুসন্ধানেও বেরিয়ে আসে।”সাবেক শিক্ষা সচিব এন আই খান বলেছেন, খাতা মূ্ল্যায়নের জন্য পরীক্ষকদের মডেল প্রশ্নের উত্তর দেয়া ঠিক হবে না। তাহলে সৃজনশীল থাকলো কোথায়?

এর সঙ্গে মত প্রকাশ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, একটাই মডেল উত্তর দিয়ে শিক্ষার্থীদের তৈরি করা ঠিক হবে না।

শিক্ষাখাতের ক্ষমতাসীন সরকারের কাজ সম্পর্কে সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান খান বলেন, মোটাদাগে সরকারের সাফল্য যেমন: মাধ্যমিকে বিনামূল্যে পাঠ্যবই, স্কুল-কলেজ জাতীয়করণ, মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম, বছরের শুরুতে বই দেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক টেন্ডার, ডিজিটাল ভর্তি পদ্ধতি ও স্নাতক শ্রেণির শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বয়ং।
টকশো সঞ্চালকের অপর এক প্রশ্নের জবাবে সম্পাদক বলেন, এখন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়। দল হিসেবে আওয়ামী লীগের শিক্ষা-ভাবনা, কর্মসূচি; প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শিক্ষা ভাবনাকে ধারণ করেন না শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ণ ডেস্কে বসা অতিরিক্ত সচিব ও যুগ্ম-সচিবরা। একইভাবে শিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষাবোর্ডগুলোতে যারা নিযুক্ত রয়েছেন তারা শিক্ষাখাতে বর্তমান সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চিন্তা করছেন না। ফলে প্রশ্নফাঁস হচ্ছে কিন্তু শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। এসব কর্মকর্তাদের কোনো কমিটমেন্ট নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ৪৭টি

  1. আব্দুল হাদী says:

    স্যার আপনার তথ্য বহুল আলোচনার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনাকে একটি বিষয়ে অালোকপাত করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি,সেটা হলো টাইমস্কেল/উচ্চতরস্কেল/পরবর্তি ধাপ সংক্রান্ত। স্যার আপনি নিশ্চয়েই জানেন তবুও বলছি হয়তো আপনি ‍বিষয়টি ভুলে গিয়েছেন। পুর্বেে এমপিওভুক্ত শিক্ষকগন ০১টি টাইমস্কেল পেতো নতুন জাতীয় বেতন স্কেল/১৫ জারী হওয়ার পর তা বন্ধ আছে। কিন্তু কেন তা জানা যায়নি। আপনি নিশ্চয়ই জানেন সরকারী চাকুরিজিবীদের ৮,১২,১৫ বছরে মোট ৩টি টাইমস্কেল ছিল তা কমিয়ে ১০,১৬বছরে ০২টি করা হয়েছে। আশ্চর্যের বিষয় হলো গেডেটেডদের ০১টি সিলেকশনগ্রেড ও ০২টি টাইমস্কেল ছিল তার পরিবর্তে একইপদে ২৩ বছর চাকুরি করলে ০৭টি টাইমস্কেল পাবে অর্থাৎ যদিএকজন ক্যাডার কর্মকর্তা চাকুরিজীবনে কোন পদোন্নতি নাপান তাহলে সে অটোমেটিক সর্বে্বাচ্চ স্কেল অর্থাৎ ৭৮০০০/-টাকার স্কেল পাবে ( স্যার দয়া করে ১৫সালের বেতন স্কেলের গেজেটটি দেখে নিবেন) অথোচ আমাদের ০১টি মাত্র ৮বৎসরে টাইমস্কেল ছিল তা এখন কত বৎসরে দিবে কি সমাচার এ পর্যন্ত এমপিও শিক্ষকগন জানেনা। নাকি অন্য সবকিছুুরমত টাইমস্কেল বন্ধ হয়ে গিয়াছে এম ধুয়া তুলে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বনিচত করা হবে? স্যার দয়াকরে বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে এনে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বন্চনাথেকে রক্ষা করুন।

  2. আব্দুল হাদী,সিরাজগন্জ,রাজশাহী says:

    স্যার আপনার তথ্য বহুল আলোচনার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনাকে একটি বিষয়ে অালোকপাত করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি,সেটা হলো টাইমস্কেল/উচ্চতরস্কেল/পরবর্তি ধাপ সংক্রান্ত। স্যার আপনি নিশ্চয়েই জানেন তবুও বলছি হয়তো আপনি ‍বিষয়টি ভুলে গিয়েছেন। পুর্বেে এমপিওভুক্ত শিক্ষকগন ০১টি টাইমস্কেল পেতো নতুন জাতীয় বেতন স্কেল/১৫ জারী হওয়ার পর তা বন্ধ আছে। কিন্তু কেন তা জানা যায়নি। আপনি নিশ্চয়ই জানেন সরকারী চাকুরিজিবীদের ৮,১২,১৫ বছরে মোট ৩টি টাইমস্কেল ছিল তা কমিয়ে ১০,১৬বছরে ০২টি করা হয়েছে। আশ্চর্যের বিষয় হলো গেজেটেডদের ০১টি সিলেকশনগ্রেড ও ০২টি টাইমস্কেল ছিল তার পরিবর্তে একইপদে ২৩ বছর চাকুরি করলে ০৭টি টাইমস্কেল পাবে অর্থাৎ যদিএকজন ক্যাডার কর্মকর্তা চাকুরিজীবনে কোন পদোন্নতি না পান তাহলে সে অটোমেটিক সর্বে্বাচ্চ স্কেল অর্থাৎ ৭৮০০০/-টাকার স্কেল পাবেন ( স্যার দয়া করে ১৫সালের বেতন স্কেলের গেজেটটি দেখে নিবেন) অথোচ আমাদের ০১টি মাত্র ৮বৎসরে টাইমস্কেল ছিল তা এখন কত বৎসরে দিবে কি সমাচার এ পর্যন্ত এমপিও শিক্ষকগন তা জানেননা। নাকি অন্য সবকিছুুরমত টাইমস্কেল বন্ধ হয়ে গিয়াছে এমন ধুয়া তুলে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বন্চিত করা হবে? স্যার দয়াকরে বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে এনে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বন্চনাথেকে রক্ষার সর্ব্বোচ্চ চেষ্টা করবেন ইনসাল্লাহ্ ।

  3. Khandakar shahajahan.ass.teacher,kalidaha Sc high school feni sadar,feni. says:

    Sir amio akjan time scale banchit,amar time scale01 january 2016 power katha,but pai ni, karon notice chili 24 december2015,daia Kary kartipakker disti TE DEBEN.

  4. Md.Shahjahan Shaju [,Lecturer Sociology]R A Gani School And College .Sundiapur ,Sadullapur ,Gaibandha. says:

    নন এম পি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কি হবে ,বাচঁবে না মরবে জানি না ,নন এম পি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক গলায় দড়ি দেবে। বাঁচান এসব প্রতিষ্ঠান। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী ,শিক্ষা মন্ত্রী,ও অন্নান্ন মন্ত্রী মহাদয়।

  5. শহিদুল ইসলাম শহিদ says:

    জাতিয়করণ না হলে শিক্ষার মান এজিবনে ভাল হবেনা

  6. শহিদুল ইসলাম শহিদ,ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয়, কানাইঘাট, সিলেট। says:

    জাতিয়করণ আগে করুন,এরপর ভাল ফলাফল হবে

  7. শহীদুল্লাহ says:

    এক কথা জাতীয়করণ চাই।

  8. মো: শহীদু্ল্লাহ, কেনা ইসলামিয়া আলিম মাদরাসা, বিজয়নগর, বি,বাড়িয়া।। says:

    জাতীয়করণ ই এক মাএ সমাধান।

  9. dulal chandra biswas says:

    জাতিয়করণ আগে করুন,এরপর ভাল ফলাফল হবে.

  10. Gopal Chandra Biswas says:

    The teachers of which countries are neglected, can not be developed. Above all, the primary teachers should be highly qualified and highly paid.

  11. মো: নজরুল ইসলাম says:

    Thanks a lot

  12. মীর মনিরুল ইসলাম says:

    জাতীয় করন চাই।

  13. মো: আশরাফুল আলম says:

    যে প্রতিষ্ঠানে আজ শিক্ষার মান ভালো নয় তারা জাতীয়কধণ করলুও। হবেনা।

  14. Md Abdul Hannan says:

    জাতীয় করন চাই।

  15. এম.সোলায়মান এম.এ says:

    ১০০%

  16. Karttic chandra chakra barty.(Assistant teacher). says:

    আপনার মন্তব্য শিক্ষামন্ত্রীর চেয়ে শিক্ষকদের বেতন বেশি-কম বুঝিনা,জাতীয়করণ চাই।

  17. মোঃ শাহীন আলম says:

    শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করন করে সরকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের মত বেসরকারী শিক্ষকদের জীবনমান উন্নয়ন সাধন করতে সরকার ও শিক্ষামন্ত্রী মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

  18. মোঃ শাহীন আলম says:

    শিক্ষাব্যবস্থাকে জাতীয়করন করে বেসরকারি শিক্ষকদের জীবনমানের উন্নয়ন সাধনে দেশের সরকার প্রধান ও মাননীয় শিক্ষামন্ত্রির দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

  19. আব্দুর রহমান says:

    সবার আগে কাওমি মাদ্রাসা জাতিয়করন হোক।কারন সামনে ভোট।

  20. মোঃ শাহাদাত হুসাইন সারকার says:

    শিক্ষা নিয়ে আলোচনাটি শুনা প্রয়োজন । খাতা মুল্যায়নে বোর্ডের এম,পি,ও ভুক্ত বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক গুরুত্ব পাওয়া দরকার । প্রধান শিক্ষকের সার্টিফিকেট নিয়ে বোর্ডে্র খাতা মুল্যায়ন করতে চাইলেই খন্ডকালীন শিক্ষক দিয়ে খাতা মুল্যায়ন করতে দেওয়া যাবেনা । এবং শিক্ষক খাতা দেখবেন ,কিন্তু শিক্ষকের স্ত্রী,ছেলে-মেয়েরা বোর্ডের খাতা দেখবেনা এটা নিশ্চিত করতে হবে ।

  21. মোঃ জাকির হোসেন মোল্যা । says:

    সবার আগে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো জাতিয়করন করা হোক।কারন সামনে ভোট।

  22. মোঃ জাকির হোসেন মোল্যা । says:

    আমরা আর কতকাল আশায় আশায় থাকবো ?

  23. মোঃশামজাদ হোসেন খান, সহকারী শিক্ষক,পূবধলা উচ্চ বিদ্যালয়,পূর্বধলা,নেএকোনা। says:

    বেসরকারী শিক্ষকদের ক্ষেএে সরকার মহোদয়ের টাকার সমস্যা অথচ সরকারী অনেক প্রতিষ্টান আছে যেখানে কোন কর্মচারীই নাই অথচ তারা বাসায় বসে থেকে সরকারী বেতন পাচ্ছে।তাও না হয় মানলাম সরকারের টাকা তারা খাইবার যোগ্যতা তারা অর্জনকরে বসে আছে।কিন্তু আমার কথা হল যারা শিক্ষিত হয়ে বড় বড় বেতন স্কেল পাচ্ছেন আপনারাদের মনে রাখা দরকার কার কাছে লেখাপড়া করেছিলেন?আর এখন ওই শিক্ষক মহোদয়গন রাস্তাঘাটে দাঁড়িয়ে তাদের অভাবের কথা আপনাদের মত সুযোগ্য ছাএদের কাছে বার বার জানিয়েও কোন সুব্যবস্তার পথ পচ্ছেন না।এই দেশে কি এমন একজন ছাএও কি নাই য়ার কলমের /কথার দ্বারা এই অসহায় শিক্ষকেগনের দাবী সমুহ পূরন হতে পারে?

  24. রশিদুল says:

    এভাবে বলে আসলে কতটা লাভ হচ্ছে শিক্ষকদের কপালে?

  25. মো: হাবিবুর রহমান (সুপার, গণিপুর দাখিল মাদ্রাসা, আক্কেলপুর, জয়পুরহাট ) says:

    প্রধানমন্ত্রীর দাবি,
    চাইলেই কেও দিতে পারবেনা ফঁাকি ।
    আমলাতন্ত্র ধংস হোক,
    এবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সব জাতীয়করণ হোক ।
    তবেই পূরণ হবে প্রধানমন্ত্রীরর আশা,
    আর ২০২১ এ মধ্যম আয়ের দেশ হলে ,
    প্রধানমন্ত্রী পাবে সকলের ভালোবাসা ।

  26. Shyamal says:

    Sokol shikkha protisthan jatiokoron chai.

  27. আব্দুল আউয়াল। আশরাফ উচ্চ বিদ্যালয় শিবপুর আটঘরিয়া পাবনা says:

    আগে জতীয়করন করলেই শিক্ষার মান সার্বিক উন্নতি হবে।

  28. দিলীপ সিকদার,সহকারী প্রধান শিক্ষক,গংগানগর আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজ,শরীয়তপুর। says:

    জাতীয়করণ করলেই সকল সমস্যা সমাধান হবে।

  29. এম এ হক says:

    শিক্ষামন্ত্রী কি কোন শিক্ষকের ছাত্র না? শিক্ষকদের প্রতি উনার এতটুকুও ইয়ে নাই…….! কেন?……?….?

  30. tohedul says:

    অভাব নিয়েতো আর সভাব বদলানো যায়না।ঠিক তেমনিকরে শিক্ষকসম্প্রদায়কে কষ্টেরেখে ভালো ফলাফল আশাকরা দূরআশাবৈ কিছুইনা? তাই শিক্ষায় ভালোকিছু করারা জন্য আগে বেতন বৈসম্ম দূর করতেহবে। শিক্ষক জাতীয়করণ করেন সমস্বার সমাধান হবে।নইলে হবেনা।

  31. নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক says:

    কর্তৃপক্ষ কেনো জানি চোখ থাকতেও অন্ধ হয়ে আছে। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সর্বময় ক্ষমতা সভাপতির জেনেও সব দোষ প্রধান শিক্ষকের উপর চাপিয়ে দেন। আপনারা যদি সত্যি সত্যি শিক্ষার মঙ্গল চান তবে অন্ততঃ এই কাজটু করুন যে, প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শিক্ষক প্রতিনিধিদের সাময়িক বরখাস্তসহ সকল শাস্তি ম্যানেজিং কমিটির হাত থেকে সরিয়ে শিক্ষা বোর্ডের হাতে নিন। এতে সরকারের টাকা লাগবেনা বাট শিক্ষার জন্য বেশ ভালো হবে।

  32. Mizanur Rahman says:

    13-11-11er proggaponer কারনে শত শত শিক্ষক mpo paccha na. বিনা বেতনে বছরের পর বছর চাকরি করছে science and ict teacher.এক টাকাও বেতন পাইনা.Education minister er চাইতে বেতন বেশি পাবার Asha koren ki kora?

  33. সায়েম মাহবুব says:

    ntrc নীরব কেন.? গতি বাড়ান। উত্তীর্ণ সকল কে নিয়োগ দিয়ে শিক্ষক শূণ্যতা দূর করুন। হাজার 2 স্কুল কলেজে শিক্ষক নেই,মান বাড়াবেন কি দিয়ে?গ্রামের স্কুল কলেজে শিক্ষক দিন জরুরী ভাবে।

  34. মোঃমস্তফা কামাল says:

    মানুষ গড়ার কারিগরদের সম্মানের সহিত বাঁচতে দিন।

  35. Md.Ishahaque Ali, says:

    Non-Government Schools and Colleges should be nationalized without delay.

  36. Soyeb AHMED says:

    Amader desh chara onno kono deshe prithibite/worlde shikkha non_Govt. NaI. Tahole Amora kind Model desh? ???????

  37. শফি আহম্মেদ সরকার says:

    শিক্ষা সবার জন্য এক হওয়া দরকাার।

  38. আশরাফুল আলম says:

    আমরা শিক্ষক মানুষ গড়ার কারিগর।আমাদের একটাই দাবি জাতীয়করন।মাস শেষে হাতে যখন টাকা থাকেনা তখন স্ত্রীর গ্যানর গ্যানর প্যানর প্যানর শুনতে হয়।

  39. Nasir uddin says:

    আমরা য়ারা এক বছর ধরে নিয়োগ পেঁচিয়ে কিন্তু বেতন হয়নি তাদের কি হবে একটু যানাবেন খুব চিন্তাই আছি

  40. Nasir uddin says:

    আমরা য়ারা এক বছর ধরে নিয়োগ পেঁয়েছি কিন্তু বেতন হয়নি তাদের কি হবে একটু যানাবেন খুব চিন্তাই আছি

  41. শাহীন says:

    আমি ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ২/০২/২০১৫ তাং যোগ দান করি কিনতু আমার বেতন আসে জুলাই মাস থেকে এখন আমি আমার চাকুরীর সময় কোন তাং ধরবো যোগ দান থেকে না এমপিও তাং থেকে

  42. ফারুক হোসেন says:

    দৈনিক শিক্ষার সসম্মানিত সম্পাদক মহদয় সদা সর্বদা শিক্ষা নিয়েই ভাবেন,তাকে অন্তর থেকে শ্রদ্ধা জানাই।

  43. Md.Saiful islam says:

    জাতীয়করনসহ টিচারদের যথাযথ Training দিতে হবে

আপনার মন্তব্য দিন