শিক্ষকের পা কর্তন মামলায় ৪জন কারাগারে - বিবিধ - Dainikshiksha

শিক্ষকের পা কর্তন মামলায় ৪জন কারাগারে

কলাপাড়া(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি |

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় বরিশাল শেরে বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শাহ আলম হাওলাদারকে (শাহ আলম মাষ্টার) কুপিয়ে পা কর্তনের মামলায় গ্রেফতারকৃত চার আসামীকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। রোববার (২৬ আগস্ট) সকালে গ্রেফতারকৃত সাঈদ, রহিম খোকন, তাইফুর ও জাহাঙ্গীরকে আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই বিপ্লব জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত আগামী  ২৯ আগষ্ট রিমান্ড শুনানীর দিন ধার্য্য করে তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ। 

শিক্ষকের ওপর হামলার ঘটনায় শনিবার রাতে আহত শিক্ষকের ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন বাদি হয়ে ২১ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৩০ জনের বিরুদ্ধে কলাপাড়া থানায় মামলা করেন।  এ মামলায় ওই চারজনকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই বিপ্লব জানান, শনিবার ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজনকে আটক করলেও একজনের সম্পৃক্ততা না থাকায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। 

কলাপাড়া থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে এ সহিংসতার ঘটনা ঘটলেও পুলিশ গুরুত্ব দিয়ে ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৫ আগষ্ট) সকালে কলাপাড়ার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের মোস্তফাপুর গ্রামে ভগ্নিপতির বাসা থেকে দাওয়াত খেয়ে ফেরার পথে একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলা চালায় শাহ আলমের উপর। পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে আহতের স্বজনরা জানান। সন্ত্রাসীরা তার শিশু পুত্রের সামনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশ কুপিয়ে জখম করে বাম পায়ের গোড়ালীর ৯০ ভাগ কেটে ফেলে। প্রথমে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। কিন্তু অবস্থার অবনতি ঘটলে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রোববার ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের মানবিক গুণাবলী সম্পর্কেও শিক্ষা দিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের মানবিক গুণাবলী সম্পর্কেও শিক্ষা দিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী বেশি চাপ নয়, শিক্ষার্থীদের নিজের পথ বেছে নিতে দিন: শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha বেশি চাপ নয়, শিক্ষার্থীদের নিজের পথ বেছে নিতে দিন: শিক্ষা উপমন্ত্রী নীতিমালা মেনে ভর্তি ফি আদায়ের নির্দেশ - dainik shiksha নীতিমালা মেনে ভর্তি ফি আদায়ের নির্দেশ এমপিও কমিটির সভা ২০ জানুয়ারি - dainik shiksha এমপিও কমিটির সভা ২০ জানুয়ারি ২৬ জানুয়ারি স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন - dainik shiksha ২৬ জানুয়ারি স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ৩৫ উত্তীর্ণ ইনডেক্সধারী কর্মচারীরা শিক্ষক পদে নিয়োগ পাবেন না - dainik shiksha ৩৫ উত্তীর্ণ ইনডেক্সধারী কর্মচারীরা শিক্ষক পদে নিয়োগ পাবেন না উপবৃত্তি : ডাচ-বাংলার অদক্ষতায় গাইবান্ধায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি - dainik shiksha উপবৃত্তি : ডাচ-বাংলার অদক্ষতায় গাইবান্ধায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ শুরু - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ শুরু ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার খবর সবার আগে পেতে ‘দৈনিক শিক্ষা ব্রেকিং নিউজ’ ফেসবুক পেজে লাইক দিন - dainik shiksha শিক্ষার খবর সবার আগে পেতে ‘দৈনিক শিক্ষা ব্রেকিং নিউজ’ ফেসবুক পেজে লাইক দিন please click here to view dainikshiksha website