শিক্ষার মান ঠিক করতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী - বিবিধ - Dainikshiksha

শিক্ষার মান ঠিক করতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

মানসম্মত শিক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তিনি বলেছেন, শিক্ষার মান ঠিক মতো করতে হবে। যেখানে যত দুর্বলতা ও অসংগতি রয়েছে, সেগুলো সবাই মিলে দূর করতে হবে। আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস উপলক্ষে  বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এক আলোচনাসভায় শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এবং বাংলাদেশ ইউনেসকো জাতীয় কমিশনের যৌথ উদ্যোগে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বিজ্ঞান, তথ্যপ্রযুক্তি, গবেষণা এবং ভাষা ও গণিতে মনোযোগ বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, ‘যতটুকু করি, সেটি যেন মানসম্মতভাবে করি। আমাদের অনেক অর্জন আছে, আরও করতে হবে।’ শিক্ষক ও শিক্ষা পরিবারের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সংবেদনশীলতা, সচেতনতা নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান দীপু মনি।

অভিভাবকদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সন্তানেরা শুধু ভালো ছাত্রছাত্রী হবে, পরীক্ষার ফলাফল ভালো হবে, শুধু তা নয়, তারা যেন ভালো মানুষ হয়, সুনাগরিক হয়।

আলোচনা সভা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ভবিষ্যতের অর্থনীতিতে যে ধরনের মানবসম্পদের প্রয়োজন হবে, সেই খাতেই বিনিয়োগ করতে হবে।  

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম-আল- হোসেন, ইউনেসকোর ঢাকার প্রধান বিয়াট্রিস কালদুন, বাংলাদেশ ইউনেসকো জাতীয় কমিশনের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল মনজুর হোসেন।

উল্লেখ্য, প্রতিবছর ২৪ জানুয়ারি আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস দিবস পালন করা হবে।

এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের রাজপথে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু - dainik shiksha এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের রাজপথে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন - dainik shiksha মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? - dainik shiksha কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন - dainik shiksha ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website