শিক্ষা ভবনের সেই কর্মচারীদের বদলিতে শিক্ষকরা খুশি - বদলি - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষা ভবনের সেই কর্মচারীদের বদলিতে শিক্ষকরা খুশি

নিজস্ব প্রতিবেদক |

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের কয়েকজন দুর্নীতিবাজ কর্মচারীর বদলির খবরে শিক্ষকরা খুব খুশী হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) বদলির আদেশ জারি হয়। এদের মধ্যে সরকারিকৃত হাইস্কুলের পদৃসজনসহ যাবতীয় কাজে নিযুক্ত মেহেদীর বদলিতে যারপরনাই খুশী হয়েছেন সরকারিকৃত হাইস্কুল শিক্ষকরা। অবৈধভাবে অঢেল টাকার মালিক  বনে যাওয়া মেহেদীর বিরুদ্ধে গত প্রায় দুই বছর ধরে সরকারিকৃত শিক্ষকদের জিম্মি করে ঘুষ খাওয়ার অভিযোগ থাকলেও বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের কয়েকজন দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাকে ম্যানজে করে বদলি ঠেকিয়ে রাখতে পেরেছিলেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন উপসচিব বলেন, ‘বরিশাল অঞ্চলে আমি যে স্কুলে পড়াশোনা করেছি সেই স্কুল শিক্ষকদেরকেও মেহেদী ঘুষ দিয়ে কাজ করাতে হয়েছে। মেহেদী জানে আমি ওই স্কুলটির সাবেক শিক্ষার্থী তবুও রেহাই দেয়নি আমার শিক্ষকদের।’ 

মেহেদীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনেও অভিযোগ দেয়া হয়েছে। কর্মচারী হয়েও বিভিন্ন দেশে ঘুরতে যান মেহেদী। 

বাংলাদেশ সরকারিকৃত স্কুল শিক্ষক সমিতির নেতা হাবিবুর রহমান বলেন, ‘মেহেদী শুধু টাকাই নয়, শিক্ষকদের সাথে ব্যবহারও ভালো করেনা।  একটা স্কুলের পদসৃজন মানেই মেহেদীর পেছন পেছন ঘোরা। বদলির খবরে সরকারিকৃত সব হাইস্কুল শিক্ষকরা খুশী। গত প্রায় দশ বছর ধরে শিক্ষা ভবনের বিভিন্ন শাখায় কাজ করেছেন মেহেদী। 

এছাড়া শিক্ষা অধিদপ্তরের তৃতীয় তলায় অবস্থিত বেসরকারি কলেজ শাখার অফিস সহায়ক ফজলে রাব্বী শিক্ষা ভবনের দুর্নীতিবাজ সিন্ডিকেটর অন্যতম সদস্য হিসেবে সবার কাছে পরিচিত ছিলেন। কুমিল্লার দাউদকান্দির আকবর আলী খান কারিগরি ও বাণিজ্য কলেজ, ঢাকার স্টেট কলেজ, ঢাকা পাবলিক কলেজ এবং সাতক্ষীরার কলারোয়ার হাজী নাছির উদ্দীন কলেজ এবং নরসিংদীর কোহিনুর জুটমিলস উচ্চবিদ্যালয়সহ সারাদেশের ভেজালযুক্ত সব প্রতিষ্ঠানের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রক্ষা করতেন। তার বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে ফাইল দিয়ে দেওয়াসহ এমপিওর দালালদের সাথে সখ্যতার অভিযোগ রয়েছে। তাকে ঢাকার একটি সরকারি হাইস্কুলে বদলি করা হয়েছে। 

এছাড়া মাদরাসা শাখার মোজাম্মেলের বিরুদ্ধেও রয়েছে বিস্তর অভিযোগ। মোজাম্মেলের বদলি ঠেকাতে বড় কর্তাদের কাছে তদবির করেছেন অধিদপ্তরের একজন বিতর্কিত উপপরিচালক। মোজাম্মেলকে ময়মনসিংহে পাঠানো হয়েছে। 

এছাড়া উচ্চমান সহকারী মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেনকে ডেমরার হাজী এম এ গফুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে, অফিস সহায়ক মো: আইয়ুব চৌধুরীকে ফেনী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে এবং অফিস সহায়ক মো: ওয়াদুদুর রহমানকে তেজগাঁও সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বদলি করা হয়েছে। 

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ - dainik shiksha দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি - dainik shiksha ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী দাখিলের ফল জানবেন যেভাবে - dainik shiksha দাখিলের ফল জানবেন যেভাবে ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব - dainik shiksha ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল জানবেন যেভাবে - dainik shiksha এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল জানবেন যেভাবে এসএসসি-দাখিল ভোকেশনালের ফল জানবেন যেভাবে - dainik shiksha এসএসসি-দাখিল ভোকেশনালের ফল জানবেন যেভাবে নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ - dainik shiksha নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত ঘরে বসেই পরীক্ষা নেয়ার চিন্তা - dainik shiksha ঘরে বসেই পরীক্ষা নেয়ার চিন্তা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website