শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাণ্ড, পলাতক মন্মথ রঞ্জন বাড়ৈকে বিএল কলেজে পদায়ন! - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাণ্ড, পলাতক মন্মথ রঞ্জন বাড়ৈকে বিএল কলেজে পদায়ন!

নিজস্ব প্রতিবেদক |

একাদশ সংসদ নির্বাচনের দুইদিন আগে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে যাওয়া শিক্ষা ক্যাডারের কুখ্যাত বাড়ৈ সিন্ডিকেট প্রধান মন্মথ রঞ্জন বাড়ৈকে এবার খুলনার সরকারি বিএল কলেজে সংযুক্ত থাকার আদেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ। আজ ২৫ মার্চ এ আদেশে জারি হয়। ১২ এপ্রিলের মধ্যে তাকে যোগদান করতে বলা হয়েছে।

আদেশে বাড়ৈকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে ওএসডি দেখানো হয়। বাস্তবে তিনি স্ত্রী-সন্তানসহ যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। বাড়ৈ সিন্ডিকেটের প্রধান দুই উপদেষ্টা রতন ও কান্তবাবু নিয়মিত ফেসবুকে যোগাযোগ রাখছেন বাড়ৈর সাথে। 

জানা যায়, ২০০৯ থেকে ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত শিক্ষা প্রশাসনে বদলি, টেন্ডার, ক্যমরিয়ানের কাছে জিপিএ ফাইভ বিক্রি, ঢাকাবোর্ডের আবাসিক বাড়ীতে মাস্তিসহ এমন কিছু নেই যা বাড়ৈ সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ করেনি। দশ বছরে টাকার কুমির হওয়ার পর পালিয়ে যু্ক্তরাষ্ট্রে গেছেন বাড়ৈ। আর উপদেষ্টা ও সদস্যরা খোলস বদলে শিক্ষা প্রশাসনের আরো ভালো পদে নিযুক্ত হয়েছেন। আজকের আদেশ দেখে চোখ কপালে তুলেছেন শিক্ষা প্রশাসনের বোদ্ধারা। তারা বলেছেন,এমন আদেশের মানে হলো বাড়ৈর চাকরি রক্ষার প্রথম ধাপ। এই চিঠি চালাচালি আগামী চার বছর চলবে। 

সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সাবেক এপিএস বির্তকিত শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা মন্মথ রঞ্জন বাড়ৈ ছুটি নিয়েছেন এমন কোনও আবেদন  শিক্ষা প্রশাসনের কোথাও নেই। 

শিক্ষা প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ সব পদে জামাত-বিএনপি ও দুর্নীতিবাজদের পদায়নের নেপথ্যে ছিলেন এই বাড়ৈ। তার সহযোগী ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণলায়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোললা। বর্তমানে মোল্লূার ভূমিকায় নতুন একজন উপসচিব। তিনি শিক্ষা প্রশাসনে বাড়ৈর উপদেষ্টা হিসেবে পরিচিত।   

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি - dainik shiksha প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন - dainik shiksha ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন মৃত শিক্ষককেও বদলি করল মন্ত্রণালয় - dainik shiksha মৃত শিক্ষককেও বদলি করল মন্ত্রণালয় এনটিআরসিএ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রধান শিক্ষকদের কাছে চাঁদা দাবি - dainik shiksha এনটিআরসিএ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রধান শিক্ষকদের কাছে চাঁদা দাবি যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল : যেদিন প্রধান শিক্ষক পদে আবেদন সেদিনই নিয়োগ - dainik shiksha যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল : যেদিন প্রধান শিক্ষক পদে আবেদন সেদিনই নিয়োগ চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না - dainik shiksha চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক - dainik shiksha হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক please click here to view dainikshiksha website