শিশুদের পাশবিক অত্যাচার বন্ধে আইনকে আরও কঠোর করা হবে: প্রধানমন্ত্রী - বিবিধ - Dainikshiksha

শিশুদের পাশবিক অত্যাচার বন্ধে আইনকে আরও কঠোর করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সামাজিক অপরাধ বৃদ্ধি ও শিশুদের ওপর পাশবিক অত্যাচারের বিরুদ্ধে আবারও কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রয়োজনে বিদ্যমান আইনকে আরও কঠোর করা হবে। অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর কেউ সাহস না পায়। 

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সমাপনী ভাষণে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সমাপনী বক্তব্যে শেষে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী রাষ্ট্রপতির আদেশ পাঠ করে সংসদ অধিবেশনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। 

এর আগে প্রধানমন্ত্রী গণমাধ্যমের সহযোগিতা কামনা করে বলেন, ধর্ষকদের চেহারা যেন বার বার দেখানো ও প্রকাশ করা হয়। যাতে এই জঘন্য অপরাধীরা লজ্জা পায়। পাশাপাশি পুরুষ সমাজকেও ধর্ষকদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নারীরা কেন একা প্রতিবাদ করবে। এ বিষয়ে পুরুষদেরও সোচ্চার হওয়া প্রয়োজন।

সমাপনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ২ শতাংশে উন্নীত করবো সেই লক্ষ্য নিয়ে বাজেট দিয়েছি এবং এগিয়ে যাচ্ছি। বিশ্বের কাছে প্রমাণিত সময় এখন বাংলাদেশের। এখন বিশ্বের কাছে হাত পাততে হয় না। আমরা স্বাবলম্বী হতে চাই, দেশের উন্নয়ন করবো কারো কাছে হাত পেতে নয়, ভিক্ষা করে নয়, আজ সেটা প্রমাণ করতে পেরেছি। আর এক বছর পর মাথাপিছু আয় ২ হাজার ডলারে উন্নীত করতে পারবো। খাদ্যে ভেজাল, পুষ্টি নেই শুনতে হয়। তারপরও গড় আয়ু বাড়ছে, জানি না কেন। 

তিনি আরও বলেন, ১০ বছরে ১৪ হাজার ডাক্তার নিয়োগ দিয়েছি, নার্স নিয়োগ দিয়েছি। শিক্ষার ক্ষেত্রেও ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। ১ লাখ ৮ হাজার ২শ জন শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছি। প্রতিটি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় করে দিচ্ছি শিক্ষার মান উন্নয়নে। এক সময় খাদ্য উৎপাদন হতো ১ কোটি মেট্রিক টন। এখন খাদ্য উৎপাদন করতে পারছি ৪ কোটি মেট্রিক টন। আমাদের সরকার প্রতিটি গ্রামকে শহরে পরিণত করতে চায়। আকাশ, রেল, নৌ-পথ, সড়কপথ সবক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। ৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ।

শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধে কঠোর হচ্ছে নীতিমালা - dainik shiksha শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধে কঠোর হচ্ছে নীতিমালা প্রাথমিকে ৬১ হাজার শিক্ষকের পদ সৃষ্টি হবে - dainik shiksha প্রাথমিকে ৬১ হাজার শিক্ষকের পদ সৃষ্টি হবে দৈনিকশিক্ষার প্রতিবেদনে জাহাঙ্গীরকে ওএসডি - dainik shiksha দৈনিকশিক্ষার প্রতিবেদনে জাহাঙ্গীরকে ওএসডি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার রুটিন - dainik shiksha প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার রুটিন ভিকারুননিসায় ৪৪৩ অতিরিক্ত ভর্তি, সাবেক অধ্যক্ষকে শোকজ - dainik shiksha ভিকারুননিসায় ৪৪৩ অতিরিক্ত ভর্তি, সাবেক অধ্যক্ষকে শোকজ তিন শর্তে অস্থায়ী এমপিও পাচ্ছে ১৭৬৩ প্রতিষ্ঠান, আলাদা পরিপত্র - dainik shiksha তিন শর্তে অস্থায়ী এমপিও পাচ্ছে ১৭৬৩ প্রতিষ্ঠান, আলাদা পরিপত্র প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি করতে হবে চর এলাকায়, আসছে চর ভাতা - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি করতে হবে চর এলাকায়, আসছে চর ভাতা বিএড ৩য়-৫ম সেমিস্টারের ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৫ আগস্ট থেকে - dainik shiksha বিএড ৩য়-৫ম সেমিস্টারের ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৫ আগস্ট থেকে সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তির আবেদন শুরু ১০ সেপ্টেম্বর - dainik shiksha সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তির আবেদন শুরু ১০ সেপ্টেম্বর এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা ৪ অক্টোবর - dainik shiksha এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা ৪ অক্টোবর কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে - dainik shiksha কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে ঢাবিতে ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha ঢাবিতে ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website