সদ্য সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির নির্দেশনা চেয়েছে অধিদপ্তর - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

সদ্য সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির নির্দেশনা চেয়েছে অধিদপ্তর

শফিকুল ইসলাম |

সদ্য সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা চেয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। সম্প্রতি ১৭৩টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ২৯৬টি বেসরকারি কলেজ সরকারি করা হয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষক-কর্মচারীদের আত্তীকরণ করা হয়নি আজও। আত্তীকরণ ছাড়া নতুন সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানে ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ছাত্রছাত্রী ভর্তিতে কোন পদ্ধতি অনুসরণ করবে তা নিয়ে মাঠ পর্যায়ে চলছে নানা জটিলতা। কোথাও ইউএনওরা সরকারি নিয়মে ভর্তি করাচ্ছেন আবার কোথাও আগের নিয়মেই ভর্তি ও অন্যান্য ফি আদায় চলছে। অভিভাবকদের দাবি প্রতিষ্ঠান সরকারি হয়েছে তা তারা কেন এখনও বেসরকারি নিয়মে টিউশন ও অন্যান্য ফি দেবেন। সরকারি স্কুলে মাসিক ছাত্রবেতন নামমাত্র। পক্ষান্তরে বেসরকারি স্কুল-কলেজ কয়েক হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করা হয়। 

জানা গেছে, টাঙ্গাইলের সখিপুর পি এম পাইলট মডেল স্কুল এন্ড কলেজে গত ১১ অক্টোবর সরকারি করা হয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষকরা আত্তীকৃত হননি। সম্প্রতি টাঙ্গাইলের সখিপুর পি এম পাইলট মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ  কোন প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে জানতে চেয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে একটি আবেদন করেছেন। নতুন সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানে কোন প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে সে বিষয়ে সুস্পষ্ট কোন নির্দেশনা নেই। 

আরও পড়ুন : সদ্য সরকারি স্কুল-কলেজে ভর্তি সমস্যা ও অধিদপ্তরের ব্যাখ্যা (ভিডিও)

এ ছাড়াও কয়েকডজন সদ্য সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সাথে দেখা করে নতুন সরকারিকৃত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তি ও টাকা আদায়ের লিখিত নির্দেশনা চেয়েছেন। এরই প্রেক্ষিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের নির্দেশনা চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

অধিদপ্তরের পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক ড. মো: আবদুল মান্নান দৈনিক শিক্ষাকে বলেন, মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে।   

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি - dainik shiksha প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের - dainik shiksha ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? - dainik shiksha শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন - dainik shiksha ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না - dainik shiksha চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক - dainik shiksha হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প - dainik shiksha শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প please click here to view dainikshiksha website