সব কোচিং নয়, ‘কোচিং বাণিজ্য’ বন্ধ করতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী - বিবিধ - Dainikshiksha

সব কোচিং নয়, ‘কোচিং বাণিজ্য’ বন্ধ করতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, সব কোচিং নয়, কোচিং বাণিজ্য খারাপ। তাই কোচিং বাণিজ্য বন্ধে পদক্ষেপ নেয়া হবে। বুধবার (১৩ মার্চ) সচিবালয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আমরা চাই মানসম্মত শিক্ষা। এর সাথে অনেক কিছু জড়িত। তিনি বলেন, আমি যদি বলি যে আর কোনো কোচিং সেন্টার চলবে না। কোচিং সেন্টার তো অনেক রকমের। এ নিয়ে অনেক দিন ধরেই তো কথা হচ্ছে।

আইইএলটিএস, জিআরই ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কোচিং এর উল্লেখ করে তিনি বলেন, এসবে তো সমস্যা নেই। এমনকি যদি কোনো কোচিং দুর্বল শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করে, স্কুলের পড়ার বাইরেও শিক্ষার্থীরা স্বেচ্ছায় সেখানে যেতে পারে। আর কেউ যদি বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীকে পড়ান এবং যে পিছিয়ে আছে তাকে সহযোগিতা করতে বাসায় কাউকে পড়ান অথবা স্কুলে এক্সট্রা ক্লাসের ব্যবস্থা করা হয়, এর কোনোটার মধ্যেই দোষের কিছু নেই।

আরও পড়ুন: সব বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ গঠনে সহযোগিতা করবে সরকার

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দোষ বা সমস্যা তখনই হবে যখন একজন শিক্ষক ক্লাসে শিক্ষার্থীদের যতটা পড়ানোর কথা ততটা না শিখিয়ে বাইরে কোচিং করান এবং নিজের শিক্ষার্থীকে কোচিংয়ে আসতে বাধ্য করেন। অনেক সময় শিক্ষার্থীকে বলা হয় কোচিংয়ে না আসলে তাকে ফেল করিয়ে দেয়া হবে। এমনটা করাও হয়। সেটাই কোচিং বাণিজ্য, সেটাই খারাপ। তাই যেটা কোচিং বাণিজ্য তা চিহ্নিত করে অবশ্যই বন্ধ করতে হবে।

আর কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করার আগে স্কুলে পড়ার মান আরও উন্নত করার প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেন তিনি। বলেন, হঠাৎ বলা যাবে না আজ থেকে বন্ধ, তাহলে বাকিটার কি হবে?

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী যাদের পরিবার আর্থিকভাবে ভালো অবস্থানে নেই, তাদের অনেকে টিউশনি বা কোচিং সেন্টারগুলোতে পড়িয়ে নিজেদের পড়াশোনা চালান। তাতে তো অসুবিধা নেই। কারণ তারা স্কুলের শিক্ষক না, তারা তো শিক্ষার্থীকে বাধ্য করছে না। তারা স্কুলে ফাঁকি দিচ্ছেন না।

মন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের প্রচেষ্টা হচ্ছে এই প্রক্রিয়ার প্রতিটি জায়গায় সঠিক ব্যবস্থাটিতে যেতে চাই এবং সেজন্য হঠাৎ একটিকে ধরে কোনো সিদ্ধান্ত নিলে হবে না। আমাদের একেবারে চেইনের পুরোটাতে কাজ করতে হবে এবং সেটা একদিন, দু’দিন বা দু’মাসে, ছ’মাসে হবে না। চিন্তা-ভাবনা করে কোথায় কোথায় কী জিনিস আমরা কীভাবে করব তা করতে হবে। আমরা নিশ্চিত করব একজন শিক্ষক ক্লাসে পুরোপুরি তার যে যত্ন নিয়ে পড়াবার কথা সেটি পড়াচ্ছেন কিনা, কীভাবে পড়াচ্ছেন সেটা দেখতে হবে।

দীপু মনি বলেন, আবার এটাও বলা সম্ভব না যে ছয় মাস বাদে কোচিং বন্ধ করে দেব, এমন কথা বলার এখনই সুযোগ নেই। আমরা পুরো বিষয়টাকে দেখছি, পুরো বিষয়টাকেই নিয়ে চেষ্টা করছি। উন্নত মানে পৌঁছাতে পারলে আমরা ধাপে ধাপে যাব, তারমধ্যে কোচিং বন্ধ করা একটা অংশ।

তাহলে পাবলিক পরীক্ষার সময় কোচিং সেন্টার বন্ধ করা হচ্ছে কেন? এমন প্রশ্নে বলেন, তথ্য আছে প্রশ্ন ফাঁসের সাথে অনেক কোচিং সেন্টার জড়িত থাকে। সে কারণে পরীক্ষার সময় বন্ধ রাখার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। তবে আজকের পরীক্ষা শেষে কালকে বলা সম্ভব নয় যে কোনো কোচিং সেন্টার চলবে না। বিদ্যমান যে ব্যবস্থাটা আছে তা পরিবর্তন করতে হবে। একারণেই সেই পদক্ষেপটি নেয়া যাচ্ছে না। তবে অবশ্যই কোচিং বাণিজ্য সব সময়ের জন্যই বন্ধ থাকা উচিত। বাকি যে ধরনের কোচিংগুলো আছে সেগুলোতে তো কারো কোনো ধরনের অসুবিধা হওয়ার কথা না।

তাহলে সব ধরনের কোচিং নিষিদ্ধের বিধান রেখে প্রস্তাবিত শিক্ষা আইনের খসড়া এখন রিভিউ করা হবে কিনা, সেই প্রশ্নের সরাসরি কোনো উত্তর দেননি শিক্ষামন্ত্রী। তবে নানা কারণে শিক্ষা আইনের ওই খসড়াটি রিভিউ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

 

 

প্রধান শিক্ষককে সভাপতির কাছে ক্ষমা চাইতে বললেন বোর্ড চেয়ারম্যান - dainik shiksha প্রধান শিক্ষককে সভাপতির কাছে ক্ষমা চাইতে বললেন বোর্ড চেয়ারম্যান মাদরাসার পাঠ্যবই বদলাতে বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞ নেবে শ্রীলংকা - dainik shiksha মাদরাসার পাঠ্যবই বদলাতে বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞ নেবে শ্রীলংকা জুলাই থেকে বেতন পাবেন নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা - dainik shiksha জুলাই থেকে বেতন পাবেন নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা - dainik shiksha নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website