সাইফুর’স-এর দুর্নীতি খতিয়ে দেখতে অনুসন্ধানে দুদক - বিবিধ - Dainikshiksha

সাইফুর’স-এর দুর্নীতি খতিয়ে দেখতে অনুসন্ধানে দুদক

আশিক মাহমুদ |

Saifurs dudok

বিতর্কিত কোচিং সেন্টার সাইফুর’স এর অনিয়ম ও দুর্নীতি খতিয়ে দেখতে অনুসন্ধান শুরু করতে যাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সুপারিশের প্রেক্ষিতে সাইফুর’স এর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রাথমিকভাবে যাচাই করে সম্প্রতি অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি।

এ অভিযোগ অনুসন্ধানের ফলে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সাইফুর রহমান খানকে দুদকের মুখোমুখি হতে হবে। সেই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানের আয় ব্যয়ের সব হিসাবও পেশ করতে হবে দুদকে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অনুসন্ধানে প্রতিষ্ঠানটির সব আয়কর নথিও খতিয়ে দেখবে রাষ্ট্রীয় দুর্নীতি দমন সংস্থাটি। এছাড়া ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে সাইফুর’স কোনো ধরনের প্রতারণা বা জালিয়াতির আশ্রয় নিয়েছে কি-না তাও খতিয়ে দেখা হবে।

দুদকের দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, চলতি মাসের শুরুর দিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দুদকে সাইফুর’স এর বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সুপারিশ আসে। প্রাথমিকভাবে যাচাই করে সাইফুর’স এর দুর্নীতি অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক।

এর আগে গত মার্চ মাসে সাইফুর’স কোচিং সেন্টারের অনিয়ম-দুর্নীতির অনুসন্ধান করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দুদককে অনুরোধ জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। পাশাপাশি আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মামলা দায়ের ও গোয়েন্দা সংস্থাকে বিষয়টি জানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। পরে লিখিতভাবে দুদককে অনুসন্ধান করতে সুপারিশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়টির সুপারিশ আমলে নিয়ে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন।

ইংরেজি শিক্ষার নামে বিজ্ঞাপন দিয়ে ‘দক্ষ হ্যাকার’ বানানোর প্ররোচনার অভিযোগ ওঠার পর কোচিং সেন্টারটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেয় সরকার। তার পরপরই সরকারের সঙ্গে ‘সমঝোতার’ উপায় খুঁজতে সাংবাদিক পরিচয়ধারী চার শিবিরকর্মীর সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির বৈঠকের অভিযোগ ওঠে।

কোচিং সেন্টারটির এসব কর্মকাণ্ডের পর গত ২৮ মার্চ শিক্ষাসচিব মো. সোহরাব হোসাইনকে নির্দেশনা দেন শিক্ষামন্ত্রী। শিক্ষাসচিবকে দেওয়া লিখিত ওই নির্দেশনায় বলা হয়, ‘এই বিষয়টি মারাত্মক। এ বিষয়ে সিরিয়াসলি ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে নথিতে সিদ্ধান্ত নিয়ে অগ্রসর করা প্রয়োজন।

শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশনায় ‘থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করা, মামলা দায়ের করা, দুদককে চিঠি দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করার’ কথা বলা হয়। ‘অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার জন্য বলা প্রয়োজন’- বলা হয় নির্দেশনায়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির পর গত ১৩ মার্চ একটি সংবাদপত্রে ‘হ্যাকারদের হাতছাড়া’ শিরোনামে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে সমালোচনায় আসে সাইফুর’স কোচিং সেন্টার। ওই বিজ্ঞাপনে ‘হ্যাকার’ বানানোর কথা বলে ইংরেজি শেখায় প্রলুব্ধ করে সাইফুর’স। ‘হ্যাকার’ বানানোর প্ররোচনা দেওয়ায় গত ২৩ মার্চ সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ কোচিং সেন্টারটির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক ওই সভায় ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে উল্লেখ করে সচিবকে দেওয়া নির্দেশনায় বলা হয়, ‘নথি উপস্থাপন ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক’। গত ২৪ মার্চ রাজধানীর রমনা থানায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা কোচিং সেন্টারটির বিরুদ্ধে জিডি দায়ের করেন।

সাংবাদিক পরিচয়ধারী চার শিবিরকর্মী কোচিং সেন্টারটির জিএম ও ম্যানেজারের সঙ্গে বৈঠক করে টাকার বিনিময়ে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা করার প্রস্তাব দিয়েছেন বলেও অভিযোগ এসেছে। ‘হ্যাকার’ বানানোর বিজ্ঞাপন দেওয়ার পর এ সমঝোতার চেষ্টা নিয়ে আবারও তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা তখন বলেন, অনিয়ম-দুর্নীতি করে আবার সরকারের সঙ্গে ‘সমঝোতার’ চেষ্টার বিষয়টি নিয়ে ক্ষিপ্ত হয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। কোচিং সেন্টারটির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আরো পড়ুন: 

সাইফুরস কো‌চিং সেন্টারের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে: শিক্ষামন্ত্রী

সাইফুরস কোচিংকে ‘চোরের রাজা’ আখ্যা দিলেন শিক্ষামন্ত্রী

ক্ষমা চেয়ে রেহাই পেতে চায় সাইফুরস কোচিং

সাইফুরসের বিরুদ্ধে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জিডি

সাইফুরসের প্রলোভনে পা দিয়ে বিপাকে শিক্ষার্থীরা

সাইফুরস কোচিং বন্ধের দাবি শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের

এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি - dainik shiksha নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি মিলাদুন্নবী উপলক্ষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াজ মাহফিল আয়োজনের নির্দেশ - dainik shiksha মিলাদুন্নবী উপলক্ষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াজ মাহফিল আয়োজনের নির্দেশ ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক বেসরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ - dainik shiksha বেসরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত - dainik shiksha ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website