সাধারণ শিক্ষায় বৃত্তিমূলক কোর্স : ৫৪৮ স্কুলে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগের নির্দেশ - মেডিকেল ও কারিগরি - দৈনিকশিক্ষা

সাধারণ শিক্ষায় বৃত্তিমূলক কোর্স : ৫৪৮ স্কুলে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সাধারণ ধারার স্কুলগুলোতেও চালু হচ্ছে বৃত্তিমূলক বা ভোকেশনাল কোর্স। প্রাথমিকভাবে সেসিপ প্রকল্পের আওতায় ৫৪৮টি স্কুলে ভোকেশনাল কোর্স চালু করা হবে। এ লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানগুলোর জনবল কাঠামো সংশোধন করে নতুন ৪টি পদ অর্ন্তভুক্ত করা হবে। আর জনবল কাঠামো সংশোধন করে এ ৫৪৮টি স্কুলে ২জন ট্রেড ইন্সট্রাক্টর ও ২জন ল্যাব অ্যাসিসটেন্ট নিয়োগে সম্মতি জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। সে প্রেক্ষিতে, ৫৪৮টি স্কুলে ২জন ট্রেড ইন্সট্রাক্টর ও ২জন ল্যাব অ্যাসিসটেন্ট নিয়োগে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সোমবার (২ ডিসেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সাধারণ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদেরও পড়তে হবে ভোকেশনাল কোর্স।  প্রতিটি প্রতিষ্ঠান কারিগরি শিক্ষা বোর্ড পরিচালিত ১২টি ট্রেডের মধ্যে পছন্দ অনুসারে দুটি ট্রেড চালু করতে হবে। বৃত্তিমূলক শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করতে, কর্মমূখী শিক্ষাকে আরও জনপ্রিয় করতে এবং বেকারত্ব কমাতে এ উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ থেকে প্রতিটি সাধারণ স্কুলে দুটি করে ভোকেশনাল ট্রেড অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে বলে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আর ইতোমধ্যে ভোকেশনাল কোর্স চালুর কাজ শুরু করেছে সরকার। 

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানায়, প্রাথমিকভাবে সেসিপ প্রকল্পের আওতায় নির্বাচিত ৫৪৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃত্তিমূলক কোর্স চালু হচ্ছে। এসব প্রতিষ্ঠানে ২ ট্রেড ইনস্ট্রাক্টর ও ২জন ল্যাব অ্যসিসটেন্ট নিয়োগে গত ৩ নভেম্বর সম্মতি জানিয়েছে অর্থ বিভাগ। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল-কলেজ) জনবল কাঠামো সংশোধন করে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানে ২ ট্রেড ইনস্ট্রাক্টর ও ২জন ল্যাব অ্যসিসটেন্ট নিয়োগ করা হবে। 

সুত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে আরও জানায়, অর্থ বিভাগের সম্মতি পাওয়ার পর সেসিপ প্রকল্পের আওতায় প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত ৫৪৮টি প্রতিষ্ঠানে ২জন ল্যাব অ্যসিসটেন্ট নিয়োগে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে গত ১ ডিসেম্বর বিষয়টি জানিয়ে পৃথক তিনিটি চিঠি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের মহাপরিচালক, এনটিআরসিএর চেয়ারম্যান ও সেসিপের যগ্ম প্রকল্প পরিচালককে পাঠানো হয়েছে।  

উপসচিব মো. কামরুল হাসান স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, সাধারণ শিক্ষা ধারায় বৃত্তিমূলক কোর্স চালুর লক্ষ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অধীনে সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (সেসিপ) কর্তৃক প্রাথমিক নির্বাচিত ৫৪৮ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা -২০১৮ সংশোধনক্রমে ২জন ট্রেড ইনস্ট্রাক্টর এবং ২ জন ল্যাব অ্যাসিসটেন্ট বা কম্পিউটার ল্যাব অ্যাসিসটেন্ট পদসহ মোট ৪ টি পদ অন্তর্ভুক্ত করে জনবল নিয়োগের জন্য অর্থ বিভাগ থেকে সম্মতি পাওয়া গেছে।

তাই, সেসিপ কর্তৃক প্রাথমিকভাবে নির্বচিত ৫৪৮ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ল্যাব অ্যাসিসটেন্ট বা কম্পিউটার ল্যাব অ্যাসিসটেন্ট পদে ২ জন জনবল নিয়োগের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে চিঠিতে। এছাড়া প্রাথমিকভাবে নির্বচিত ৫৪৮ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২ জন ট্রেড ইন্সট্রাক্টর নিয়োগের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে এনটিআরসিএর চেয়ারম্যনকে বলা হয়েছে চিঠিতে। 

আর সেসিপের যুগ্ম-প্রোগাম পরিচালককে নির্বাচিত ৫৪৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তালিকা জনবল নিয়োগের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে চিঠিতে। 

করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৩৮১ - dainik shiksha করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৩৮১ দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে - dainik shiksha দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ - dainik shiksha দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি - dainik shiksha ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব - dainik shiksha ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ - dainik shiksha নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website