please click here to view dainikshiksha website

‘সারাহাহ’ ডাউনলোডের আগে যে তথ্যগুলো জানা জরুরি

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক | আগস্ট ১৭, ২০১৭ - ৪:০৪ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

নাম গোপন রেখে কাউকে মেসেজ পাঠানোর মজাই আলাদা। আর তা দিয়ে চলেছে এ সময়ের ট্রেন্ড ‘সারাহাহ’ অ্যাপটি। টিনএজার থেকে বুড়োরাও এটি ডাউনলোড করে ব্যাপক বিনোদন নিচ্ছেন। যদিও অনেকে হুমকি-ধামকি পেতে শুরু করেছেন। অ্যাপটি বানানো হয়েছে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজকে সহজ করার জন্য। জেনে-বুঝে বা না বুঝে হোক, অ্যাপটি ব্যাপক হারে ডাউনলোড করছেন সবাই। অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর এবং গুগলের প্লে স্টোরে আছে ‘সারাহাহ’। এখানে অ্যাপটি ডাউনলোড করার আগে এর সম্পর্কে ৮টি জরুরি তথ্য জেনে নিন।

১. কারো ‘সারাহাহ’-তে মেসেজ পাঠাতে আপনার অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে না। আপনার বন্ধুরা শেয়ার করছে এমন কোনো আইডি-তে ক্লিক করেই সেখানে মেসেজ পাঠাতে পারবেন। এই একটি ক্লিক আপনাকে সারাহাহ ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে।

সেখানেই আপনি মেসেজ পাঠানোর ডায়ালগ বক্স পাবেন।

২. তবে সারাহ থেকে পাঠানো কোনো মেসেজ আপনি পাবেন না, যদি এখানে আপনার অ্যাকাউন্ট না থাকে। কাউকে মেসেজ পাঠাতে আপনার কাছে তার সারাহাহ এর আইডি থাকতে হবে।

৩. অজ্ঞাতনামা একটা অ্যাপ এই সারাহাহ। মেসেজের প্রেরককে কোনভাবেই বের করতে পারবেন না আপনি। নিজেও অন্য কাউকে মেসেজ পাঠাতে পারেন। তারাও আপনার পরিচয় বের করতে পারবে না।

৪. এই অ্যাপে আপনি যে মেসেজগুলো পাবেন তার ‘রিপ্লাই’ দিতে পারবেন না। অন্য অপশন বলতে ওটাকে সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার দিতে পারবেন কিংবা ‘ফেভারিট’ হিসাবে মার্ক করতে পারবেন।

৫. আপনি যদি নির্দিষ্ট কিছু মানুষের মেসেজ না পেতে চান তবে তাদের ব্লক করতে পারেন। কাউকে ব্লক করলে তাদের মেসেজও আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে হারিয়ে যাবে। তবে সেই মানুষটি বুঝতে পারবেন না যে তাকে ব্লক করা হয়েছে। ব্লক করলে কিন্তু আর অপশনটি বদলানো যাবে না।

৬. অ্যাকাউন্টটি মুছে ফেলা বা ‘ডিলিট’ করার কোনো অপশন নেই সারাহাহ অ্যাপে। সেটিংস-এ গেলে কেবল লগ আউটের অপশনটি পাবেন। এর জন্য সারাহাহ-এর ওয়েবসাইটে যেতে হবে। ডেস্কটপ বা মোবাইল থেকেই যাওয়া যাবে। সেখানে সেটিংস-এ গেলে ‘রিমুভ অ্যাকাউন্ট’ অপশনটি পাবেন।

৭. এই অ্যাপে একটি বিষয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। সবাই জানতে চায়, মেসেজটি কে পাঠিয়েছে? ফলে এটাকে কেন্দ্র করে একটি স্ক্যাম ঘোরাফেরা করে। তাই এটা সাইবার অপরাধীদের টার্গেট হয়ে গেছে। যেমন একটি মেসেজে কেউ একজন লিখেছে, সারাহাহ-তে পাঠানো অ্যাপে মেসেজ প্রেরকদের পরিচয় প্রকাশ করবে www.sarahahexposed.com নামের একটি সাইট। এটা কিন্তু মোটেও ঠিক নয়। হ্যাকারদের কোনো কারসাজি হবে।

৮. আমেরিকার কানসাস, মিশিগানে আর নিউ জিল্যান্ডে সন্তানদের সারাহাহ ব্যবহারের বিষয়ে বাবা-মায়েদের সতর্ক করেছে পুলিশ বাহিনী। অ্যাপটি কোন বয়সীদের জন্য প্রযোজ্য সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা নেই। গঠনমূলক সমালোচনার পরিবর্তে টিনএজাররা এটাকে হুমকি-ধামকির কাজেই ব্যবহার করছে।

সূত্র : গেজেট স্নো

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন