সিনহা হত্যা : লিয়াকত, প্রদীপসহ ৭ পুলিশের রিমান্ড চেয়েছে র‌্যাব - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

সিনহা হত্যা : লিয়াকত, প্রদীপসহ ৭ পুলিশের রিমান্ড চেয়েছে র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক |

পুলিশের গুলিতে সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান নিহত হওয়ার ঘটনায় করা হত্যা মামলায় টেকনাফ থানার প্রত্যাহার হওয়া ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশসহ ৭ আসামিকে ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়েছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় কক্সবাজার আদালতে র‌্যাব এই আবেদন করেছে।

এর আগে গতকাল বুধবার সিনহা রাশেদের বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস কক্সবাজার আদালতে মামলাটি করেন। আদালত ওই দিনই মামলাটি এজাহারভুক্ত করার নির্দেশ দেন এবং র‌্যাবকে তদন্ত করতে নির্দেশ দেন। মামলায় পুলিশের ৯ সদস্যকে আসামি করা হয়।

আরও পড়ুন : সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপসহ সাত আসামি কারাগারে

আজ র‌্যাব রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করার আগে সাত আসামি কক্সবাজার আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে আদালতে তাঁদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আত্মসমর্পণ করা আসামি পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকত আলী চেকপোস্টে সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে গুলি করেন। এতে সিনহা রাশেদের মৃত্যু হয়।

র‌্যাব-১৫–এর সিইও উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ বলেন, তাঁরা ৭ আসামির প্রত্যেককে ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেছেন।

কক্সবাজারের টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর পুলিশ তল্লাশিচৌকিতে গত ৩১ জুলাই রাতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান (৩৬)। এ ঘটনার বিচার চেয়ে গতকাল বুধবার কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি করেন নিহত ব্যক্তির বড় বোন শারমিন। আদালতের বিচারক তামান্না ফারাহ মামলাটি গ্রহণ করেন। তিনি এজাহারটি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে সাত দিনের মধ্যে আদালতকে অবহিত করতে টেকনাফ থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। পাশাপাশি মামলাটি তদন্ত করে আদালতকে জানানোর জন্য র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার ক্যাম্পের অধিনায়ককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) - dainik shiksha আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি - dainik shiksha মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! - dainik shiksha জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি - dainik shiksha কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষক সমাবেশ ৫ অক্টোবর - dainik shiksha শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষক সমাবেশ ৫ অক্টোবর please click here to view dainikshiksha website