সুপারিশপ্রাপ্ত ৫ শিক্ষককে নিয়োগ না দেয়ার অভিযোগ - শিক্ষক নিবন্ধন - Dainikshiksha

সুপারিশপ্রাপ্ত ৫ শিক্ষককে নিয়োগ না দেয়ার অভিযোগ

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি |

এনটিআরসিএ’র সুপারিশপ্রাপ্ত ৫ শিক্ষককে নিয়োগ না দেয়ার অভিযোগ উঠেছে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার মাঝগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। সুপারিশপ্রাপ্তরা গত তিনদিন ধরে বিদ্যালয়ে ঘুরলেও প্রধান শিক্ষক তাদেরকে ফিরিয়ে দিচ্ছেন বলে  জানান তারা।

সুপারিশপ্রাপ্ত ৫ শিক্ষক হলেন গণিত বিষয়ে মোছাঃ হোসনেয়ারা খাতুন, শরীরচর্চা বিষয়ে শামীমা আক্তার, বাংলা বিষয়ে মোছাঃ জান্নাতুল আক্তার, ব্যবসায় শিক্ষা বিষয়ে উজ্জল কুমার দাস এবং ইংরেজী বিষয়ে মোঃ মুকুল হোসেন।

তারা দৈনিক শিক্ষাকে বলেন, গত মঙ্গলবার, সুপারিশপত্র নিয়ে ৫জন একত্রিত হয়ে বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষক মোঃ রুস্তম আলীর সাথে সাক্ষাৎ করি। তিনি বুধবারে যেতে বলেন। আমরা বুধবার গেলে তিনি বলেন একটা সমস্যা আছে তাই নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হবে না। বিষটি মোবাইল ফোনে এনটিআরসিএ কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে আমাদেরকে পরামর্শ দেওয়া হয় প্রধান শিক্ষক কেন নিয়োগ দিতে পারবেন না সে বিষয়ে লিখিত প্রত্যয়ন নিয়ে এনটিআরসিএকে জানাতে। কিন্তু প্রধান শিক্ষক লিখিত দেওয়ার আগে আমরা সেচ্ছায় নিয়োগ নিচ্ছি না মর্মে ৩০০ টাকার স্ট্যাম্পে লিখিত দেওয়ার দাবি করেন। পরে আমরা লিখিত না দিয়ে ফিরে আসি। বৃহস্পতিবার পুনরায় বিদ্যালয়ে গেলে প্রধান শিক্ষক এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান বরাবর একটি লিখিত দেন যাতে লেখা রয়েছে চাহিদা দিতে গিয়ে তিনি ভোকেশনালের কাছে ভুলে জেনারেল শাখা উল্লেখ করে ফেলেছেন। তাই নিয়োগ দিতে পারছেন না। কিন্তু সুপারিশপ্রাপ্ত ৫টি পদ জেনালের শাখার এই ধরণের পদ ভোকেশনাল শাখায় নাই।

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক রুস্তম আলী বলেন, সুপরিশ প্রাপ্তদের সাথে ফয়সালা হয়ে গেছে। তারা সেচ্ছায় ফিরে গেছে। কি ফয়সালা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সমাধানকৃত বিষয়ে আর প্রশ্ন না করাই ভাল।

জানতে চাইলে এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান দৈনিক শিক্ষাকে বলেন, এই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির সুপারিশ করা হবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে। 

কল্যাণ ট্রাস্টের ৪০ কোটি টাকা এফডিআর করা হয়নি - dainik shiksha কল্যাণ ট্রাস্টের ৪০ কোটি টাকা এফডিআর করা হয়নি কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা লুটকারী সদস্য-সচিবের বাসায় চেক! - dainik shiksha কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা লুটকারী সদস্য-সচিবের বাসায় চেক! সড়ক অবরোধ করে ঢাবির ৭ কলেজ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ - dainik shiksha সড়ক অবরোধ করে ঢাবির ৭ কলেজ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ আদর্শ না শেখালে সন্তানদের হাতে বাবা-মাও নিরাপদ নন: গণপূর্তমন্ত্রী - dainik shiksha আদর্শ না শেখালে সন্তানদের হাতে বাবা-মাও নিরাপদ নন: গণপূর্তমন্ত্রী চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নীতিমালা জারি - dainik shiksha কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নীতিমালা জারি একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে প্রাথমিকের ৪২৭ শিক্ষকের বদলি - dainik shiksha প্রাথমিকের ৪২৭ শিক্ষকের বদলি একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website