সুস্পষ্ট লক্ষ্য নেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

সুস্পষ্ট লক্ষ্য নেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের

ঢাবি প্রতিনিধি |

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদরা বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সুস্পষ্ট জাতীয় ও আন্তর্জাতিক লক্ষ্য থাকা প্রয়োজন। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কারও মধ্যে এ রকম কোনো লক্ষ্য নেই। বুধবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার সামনে আয়োজিত 'ছাত্র-শিক্ষক উন্মুক্ত আলোচনা' সভায় তারা এসব কথা বলেন।

আবাসিক হলগুলোতে গণরুম-গেস্টরুমের নামে নির্যাতন বন্ধ এবং প্রথম বর্ষ থেকে বৈধ সিটের দাবিতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর। এতে বক্তব্য দেন প্রখ্যাত লেখক-কলামিস্ট ও ঢাবির বাংলা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম এম আকাশ, আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল, আন্তজার্তিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক তানজীনউদ্দীন খান প্রমুখ। শিক্ষার্থীদের মধ্যে ডাকসু ভিপি নুর ও সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতীয় লক্ষ্যের মধ্যে থাকতে পারে স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে নিজেদের গড়ে তোলা। আর আন্তর্জাতিক লক্ষ্যের মধ্যে থাকবে, সব জাতি ও রাষ্ট্রের প্রয়োজনে উন্নত বিশ্বব্যবস্থা গড়ে তোলা। ঢাবির বাংলা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত এই অধ্যাপক বলেন, এই প্রতিষ্ঠানে এ রকম কোনো লক্ষ্য না থাকার ফলে শুধু বিসিএস পরীক্ষা দেওয়া, কোথাও একটি চাকরি পাওয়া, মেধাবীদের দেশের বাইরে চলে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটছে। তিনি প্রশ্ন করেন, এসব লক্ষ্য নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কি ভালো চলতে পারে? এ রকম লক্ষ্য নিয়ে হলগুলোতে টর্চার সেল কীভাবে বন্ধ করা যাবে? কত দিনের জন্য বন্ধ করা যাবে?

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্যাগুলোর দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের ওপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, এ জন্য দলমত নির্বিশেষে সবার সদিচ্ছা, দূরদর্শিতা এবং ঐকমত্য দরকার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ছাত্র-শিক্ষকের উপলব্ধি হওয়া দরকার যে, এই প্রতিষ্ঠানটিকে পর্যায়ক্রমে উন্নত করা দরকার। এ জন্য একটি অগ্রযাত্রিক দল প্রয়োজন যারা উন্নত নৈতিক শক্তি ও জ্ঞান দিয়ে প্রভাব খাটিয়ে কাজ করবে।

অধ্যাপক এম এম আকাশ বলেন, 'আমরা কোনোভাবেই ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ চাই না। কেননা আমাদের ছাত্র রাজনীতির একটা গৌরবময় ঐতিহ্য আছে। ছাত্র রাজনীতির নামে হলে হলে টর্চার সেল, শিক্ষার্থী নির্যাতন, দখলদারিত্ব বন্ধ করতে হবে।'

আসিফ নজরুল বলেন, আমরা সবাই ছাত্রদল, ছাত্রলীগ, শিবিরের কথা বলি। আমাদের হল প্রশাসন নিয়ে কথা বলতে হবে। হল প্রাধ্যক্ষ এবং হাউস টিউটররা নানা রকম সুবিধা পান, তাহলে কেন তারা ছাত্রদের স্বার্থ দেখবেন না? তিনি বলেন, হলে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা সবচেয়ে বেশি অসহায় থাকে। তাই হলে আসন বণ্টনের ক্ষেত্রে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। আর এই সিট ছাত্রলীগ বা ছাত্রদল নয়, দেবে হল প্রশাসন। অনিয়মিত ছাত্রদের বের করে দিতে হবে। হলগুলো ডিজিটাইজ করতে হবে। সিসিটিভি বসাতে হবে।

ভিপি নুর বলেন, শিক্ষার্থী নির্যাতনের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদেরই কথা বলতে হবে। ডাকসু বা শিক্ষকদের কয়েকজন প্রতিবাদ করলেও কোনো পরিবর্তন হবে না। কোনো শিক্ষার্থী নির্যাতনের শিকার হলে তাকেই আগে কথা বলতে হবে।

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ - dainik shiksha দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি - dainik shiksha ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী দাখিলের ফল জানবেন যেভাবে - dainik shiksha দাখিলের ফল জানবেন যেভাবে ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব - dainik shiksha ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল জানবেন যেভাবে - dainik shiksha এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল জানবেন যেভাবে এসএসসি-দাখিল ভোকেশনালের ফল জানবেন যেভাবে - dainik shiksha এসএসসি-দাখিল ভোকেশনালের ফল জানবেন যেভাবে নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ - dainik shiksha নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত ঘরে বসেই পরীক্ষা নেয়ার চিন্তা - dainik shiksha ঘরে বসেই পরীক্ষা নেয়ার চিন্তা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website