please click here to view dainikshiksha website

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও গর্ভপাত, যুবক গ্রেপ্তার

গাজীপুর প্রতিনিধি | আগস্ট ১৪, ২০১৭ - ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ
dainikshiksha print

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ ও তার গর্ভপাত করানোর অভিযোগে আরিফ হোসেন (২৪) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল উপজেলার ঢালজোড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ। আরিফ হোসেন ঢালজোড়া গ্রামের ইছামুদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্কুলছাত্রীর পরিবারসূত্রে জানা যায়, আরিফ হোসেন স্থানীয় একটি হাই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। ওই সম্পর্কের সূত্রে সে ওই ছাত্রীর সঙ্গে দৈহিক মিলন করে। একপর্যায় ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এমন অবস্থায় আরিফ তাকে গর্ভপাত ঘটানোর জন্য চাপ দেয়। সে নানা কৌশলে ছাত্রীর পরিবারের সদস্যদের বুঝিয়ে মির্জাপুর উপজেলার একটি ক্লিনিকে নিয়ে গত শনিবার রাতে ওই ছাত্রীর গর্ভপাত ঘটায়।

ওই ছাত্রী বলেন, ‘আরিফের মামা আব্দুস সামাদ, খালু দেলোওয়ার, বাবা ইছামুদ্দিন ও মা  রাহেলা বেগম আমাকে জোর করে গর্ভপাত করানোর ওষুধ খাওয়ায়। ’

কালিয়াকৈর থানার এসআই আব্দুল হাকিম বলেন, স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও গর্ভপাতের ঘটনায় আরিফ হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ১টি

  1. মণি রহমান says:

    বিয়ের প্রলোভনে প্রলুব্ধ হয় কেন মেয়েরা-ছাত্রীরা?! অভিভাবকের অজান্তে চুপিসারে রাজী হয়ে প্রেমিকের দ্বারা প্রলুব্ধ হয়ে দৈহিক মিলন করে! গর্ভবতী হয়! সম্মতি ছাড়া এমনটি সর্বক্ষেত্রে সম্ভব নয়! তবে, নারী জাতির সঙ্গে প্রতারণা করে যে পাষন্ডেরা এ কাজ করেছে- ওগুলোর সব ক’টাকেই যাবজ্জীবন জেলে পুরে রাখতে হবে।

আপনার মন্তব্য দিন