please click here to view dainikshiksha website

স্কুলের বিষয়ভিত্তিক পড়া বাদ দিচ্ছে ফিনল্যান্ড

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক: | নভেম্বর ১৩, ২০১৬ - ৬:১৮ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

ফিনল্যান্ডের শিক্ষাব্যবস্থা বিশ্বের অন্যতম সেরা হিসেবে পরিচিত। আর এ দেশটিই যখন শিক্ষাক্ষেত্রে এমন যুগান্তকারী পরিবর্তন আনে তখন তা অন্যদের গুরুত্বের সঙ্গেই দেখা উচিত। সম্প্রতি ফিনল্যান্ড শিক্ষাক্ষেত্রে যুগান্তকারী এ পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে। এতে তারা বিষয়ভিত্তিক শিক্ষাব্যবস্থাকে বাদ দিয়েছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ব্রাইট সাইড।
ফিনল্যান্ডের নতুন এ শিক্ষাব্যবস্থাকে সত্যিকার অর্থেই বৈপ্লবিক পরিবর্তন বলা যায়। কারণ বহু আগে থেকে আমরা যেভাবে পড়ে আসছি, সে পদ্ধতি এবার বাদ দেওয়া হচ্ছে দেশটির শিক্ষাব্যবস্থায়।


স্কুলের শিক্ষা থেকে তারা বিষয়ভিত্তিক পড়া বাদ দেওয়ার ফলে বিজ্ঞান, অংক, সাহিত্য, ইতিহাস কিংবা ভূগোল কি বাদ হয়ে যাবে? এ প্রশ্নের উত্তরে জানা গেছে, হ্যাঁ, এসব সাবজেক্ট পড়ানো হবে না।
সম্প্রতি ফিনল্যান্ডের শিক্ষা বিভাগের প্রধান মারজো কাইলোনেন এ শিক্ষাব্যবস্থার বিস্তারিত জানিয়েছেন। তার কথাতেই উঠে এসেছে এ ব্যবস্থার নতুনত্ব।
সাবজেক্ট বা বিষয়ভিত্তিক পড়া যদি উঠিয়ে দেওয়া হয় তাহলে কিভাবে পাঠদান করা হবে স্কুলে? শিক্ষার্থীরা মূলত বিভিন্ন বাস্তব ঘটনা ও পরিস্থিতির পাঠ নেবে বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি থেকে। অর্থাৎ সেই বিষয়গুলোই তারা পড়বে। তবে তা বাস্তবতার আলোকে।
ফিনল্যান্ডের এ যুগান্তকারী শিক্ষাব্যবস্থার উদাহরণ হতে পারে দ্বিতীয় মহাযুদ্ধর পাঠ। বিশাল এ ঘটনাকে শিক্ষার্থীরা দেখবে ইতিহাস, ভূগোল ও অংকের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে। অর্থাৎ তারা এ যুদ্ধের ইতিহাস পড়ার পাশাপাশি ভূগোল ও অংকও শিখে নেবে। একই ধরনের আরেকটি উদাহরণ হতে পারে ‘একটি ক্যাফেতে কাজ করা’। এ কোর্স থেকেই তারা ইংরেজি, অর্থনীতি ও যোগাযোগের দক্ষতা শিখবে।
এ ক্ষেত্রে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, শিক্ষার্থীদের নিজেদের পছন্দের বিষয় বেছে নেওয়ার স্বাধীনতা। শিক্ষার্থীরা যেসব বিষয়ে আগ্রহী এবং সক্ষম, সেসব বিষয়কেই বেছে নিতে পারবে।
ফিনল্যান্ডের এ নতুন শিক্ষাব্যবস্থা এখনও যাচাই-বাছাই এর পর্যায়ে রয়েছে। ২০২০ সালে এ ব্যবস্থা চালু করা হবে বলে জানা গেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন